বাংলাদেশে অনলাইনে কেনাকাটা ও কিছু তুলনামূলক চিত্র। দেখে শুনে বুঝে কিনুন।

2 113

বন্ধুরা! ইন্টারনেটে আমরা অনেকেই হয়তো কেনাকাটা করেছি! ভাবতে ভাললাগে। আগে শুধু আমাজন, ইবে আর আলীবাবাতে বিভিন্ন জিনিসের বিজ্ঞাপন দেখতাম। তখন মনে হতো কবে আমাদের দেশেও এই সুবিধা পাওয়া যাবে।

বিশেষ করে এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে যেয়ে মনে হতো আর কতদিন অন্যদেশের প্রডাক্ট নিয়ে মার্কেটিং করব? বাংলাদেশেও শুরু হয়েছে অনলাইনে কেনাকাটা। বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে। এটি অত্যন্ত আশাব্যঞ্চক।আমরা যারা তরুন তাদের কাছে এটি অত্যন্ত রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা।

কিন্তু কখনও কি ভেবেছেন আমাদের দেশের শপিং ওয়েবসাইটগুলোতে ভাল মানের পণ্য পাওয়া যাচ্ছে কিনা বা সঠিক দাম রাখা হচ্ছে কি না?

দেখুন নিচের কিছু তুলনামূলক তালিকা। আশা করি সবাই উপকৃত হবেন।

(কোন বিশেষ ওয়েবসাইট তালিকায় না থাকলে ক্ষমা করবেন। কমেন্টস এ আপনিও আপনার মতামত দিতে পারেন)

ওয়েবসাইটের স্পিড:

দেখুনতো নিচের কোন ওবেসাইটের হোমপেজ সবচেয়ে দ্রুত অপেন হয়? কোন ওয়েবসাইটগুলো মোটামুটি অসুবিধা ছাড়াই ব্রাউজ করা যায়?

http://www.esufiana.com/

http://www.akhoni.com/

http://ajkerdeal.com/

http://biponee.com/

http://iferi.com/

http://www.mojarshop.com/

http://bangladeshbrands.com/

http://priyoshop.com/

http://jemonkhushi.com/

 

ওয়েবসাইটের ডিজাইন ও ইউজার ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেস?

উপরের তালিকার কোনগুলো প্রথম ৫ এর মধ্যে থাকবে বা কোগুলো সবচেয়ে বেশী ইউজার ফ্রেন্ডলি?

পণ্যের কালেকশন ও দামের মূল্যায়ন:

গতবাধা তুলনা না করে বিশেষ বিশেষ পণ্য নিয়ে তুলনা দেখুন নিচে:

 

টি-শাট:

সবচেয়ে বেশি কালেকশন http://iferi.com/http://www.akhoni.com/ এবং http://biponee.com/

তুলনামূলক বেশী দাম http://www.esufiana.com/http://bangladeshbrands.com/

আর কম দাম http://www.akhoni.com/ , http://biponee.com/http://jemonkhushi.com/

তবে সব সাইটেই একটি/দুটি ছাড়া সবগুলোর দাম-ই বেশী মনে হয়েছে। যেগুলোর দাম ৩০০ বা ৩৫০ এমনকি ৫০০ চাওয়া হচ্ছে সেগুলোর তৈরির খরচ হিসাবে ২৫০ এর বেশী হওয়ার কথা না।

শাট

সবচেয়ে বেশী কালেকশন http://www.akhoni.com/ এ। বেশী দাম চাওয়া হচ্ছে esufiana.com, http://iferi.com/ এবং http://www.akhoni.com/ এ। ajkerdeal.com/ এ কালেকশন কম হলেও যা আছে রুচিশীল আর দাম মানের তুলনায় মানানসই। আর কম দাম রাখার চেষ্টা চোখে পড়ে  jemonkhushi.com/ এ।

মেয়েদের সালোয়ার-কামিজ:

সবচেয়ে বেশী কালেকশন http://www.akhoni.com/ এ। দাম সবগুলো ওয়েবসাইটেই বেশি লাগে, দু/চারটি  ডিজাইন ছাড়া।

তবে খুব ইন্টারেস্টিং হলো পাকিস্থানি লন/সিপন থ্রি-পিস এর দাম। একই লন/সিপন থ্রি-পিস ২৬০০, কোথাও ২২০০ আবার কোথাও ১৬০০ থেকে ১৮০০। এইখানে সবচেয়ে বেশী এগিয়ে আসে http://www.mojarshop.com/

তারা সবচেয়ে সাচ্ছ্রয়ী দামে বিক্রি করছে ১৩০০/১৪০০ টাকার মধ্যে।

মেমোরি র্কাড:

Twinmos ‍ SD 8GB, 16GB এর দাম। http://www.mojarshop.com/ এ যথাক্রমে 485, 890 টাকা । কিন্তু http://iferi.com/Twinmos ‍ SD 8GB, 16GB এর দাম যথাক্রমে 1050, 1650 টাকা !!

 

ইন্টারনেট সিকিউরিটি ২০১৪ এবং ১ ইউজার এর দামের তালিকা বিভিন্ন ওয়েবসাইটে যেমন পাওয়া গেল:

NORTON

ESCAN

PANDA

KASPERSKY

AVIRA

AVASTBitDefender
ajkerdeal.com

550

650

990

850

795

akhoni.com

999

600

biponee.com

500

500

900

mojarshop.com

450

500

780

850

950

iferi.com

1100

1050

1099

850

 

2 মন্তব্য
  1. rockyspider বলেছেন

    বনিক জাহিদ ভাই, ধন্যবাদ। ভবিষ্যতে আরও তথ্য দিয়া দেখার চেষ্টা করব। আপনার প্রতি শুভকামনা রইল।

  2. rockyspider বলেছেন

    সরি ভাই আবির হাসান, অনেক বড় ভুল হয়ে গেছে। বিটিগো (মাইয়াগো) হাটের কথা কইতে ভুইলা গেছি। অনেক ভাল সাইট ! কোন দর্জি দিয়া ওয়েব ডিজাইন করাইছেন? আরে ভাই নিজের চেহারার দিকে একটু তাকান। দুই দিনে মার্কেটিং শিখা আর কিছু বস্তাপচা প্রডাক্ট তুইলা ফেসবুক/গুগলে অ্যাড দিয়া বহুত ফাল পারতাছেন? হাজার দশেক ডলার খরচ কইরা যে কেউ ট্রাফিক বানাইতে পারে।

    সবার কাছে মাপ চাই——- উপরের কথাগুলো আসলে ভাল হইলো না। আবির হাসান ভাই মাপ কইরা দেন। এমন মন্তব্য আশা করি নাই, একটু ভদ্রতাতো দেখাইবেন, । আপনি একটা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিত্ব করতেছেন, এইটাতো মনে রাখবেন? গায়ের জোরে সোস্যাল মিডিয়া হয় না। আপনি একটা গাল দিলে আরেকটা খাইবেন এটা নিশ্চিত।

    নিচের লেখাটি কপি কইরা দিলাম। একটু পইড়া দেইখেন।
    ————————————————————–

    একজন মানুষ কখন আরেকজন মানুষকে জনসন্মুখে হেয় করে কথা বলতে পারে? ধরুন, আমি একজন মানুষকে “কুকুর” বলে গালি দিলাম। আমি তখনই একজনকে সবার সামনে কুকুর বলতে পারবো, যখন আমার ভেতরে সেই প্রবৃত্তিটি কাজ করবে। উল্টো করে বললে, আমরা আমাদের ভাষা দিয়ে মূলত নিজেকেই প্রকাশ করে থাকি। আমাদের ভেতরে যে মানুষটি বিরাজ করে, তারই নিত্য বহিঃপ্রকাশ করে চলেছি আমরা ফেসবুকে।

    একজন মানুষ কেবলমাত্র তখনই জনসম্মুখে অন্য আরেকজন মানুষকে এভাবে হেয় করে কথা বলতে পারেন, যখন তিনি নিজেকে সেই মাত্রায় নামিয়ে নিয়ে আসেন; এবং একই কথা তাকে পাল্টা বললে তাতে তার কোনও বিকার হবে না। কারণ, তার আত্মসন্মানবোধটুকু চলে গেছে। নিজের উপর সন্মানবোধ নেই বলে, সে যা ইচ্ছে তাই বলে যেতে পারে, এবং তাতে সে কোনও ভ্রুক্ষেপও করে না।

    বাংলাদেশে যারা লেখালেখি করেন, তাদের লেখার নিচে মন্তব্যগুলো পড়লেই আমাদের সমাজের খুব ভালো একটা চিত্র পাওয়া যাবে। একজন লেখক তার মতো করে কোনো বিষয়ে মতবাদ দিতেই পারেন – এগুলো তো আর বেদবাক্য নয়। কিন্তু সেই মতবাদ যদি কারো পছন্দ না হয় (এক পক্ষের পছন্দ না হতেই পারে), তবেই আর রক্ষা নেই। পুরো দলবল নিয়ে এসে যাচ্ছেতাই ভাবে নোংরা ভাষায় মন্তব্য লিখে গেল। এতে করে কার ছবি ফুটে উঠলো? কার সন্মানহানি হলো? লেখকের? নাকি যিনি নোংরা ভাষায় গালিগালাজ করে মন্তব্য লিখে গেলেন তার?

উত্তর দিন