জনপ্রিয় দশটি স্মার্টফোন : কেনার আগে জেনে নিন।

4 114
top 10 smartphone review
top 10 smartphone review

স্মার্টফোনগুলোকে জনপ্রিয় করার জন্য ব্রিলিয়ান্ট এইচডি স্ক্রিন, প্রসেসিং ক্ষমতা, পারফর্মেন্স ও উদ্ভাবনি বিভিন্ন নতুন ফিচারের সমন্বয় করেছে নির্মাতারা। এনডিটিভির তালিকা অনুযায়ী ২০১৩ সালের সেরা ১০টি স্মার্টফোনের বিস্তারিত-

১. এইচটিসি ওয়ান
২০১৩ সালে এইচটিসির অন্যতম সেরা স্মার্টফোন এইচটিসি ওয়ান। পারফর্মেন্স ও স্টাইলের দিক দিয়েও এটা জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।
ভালো দিক-
ব্রিলিয়ান্ট এইচডি স্ক্রিন, উন্নত গঠনশৈলী, সেরা পারফর্মেন্স, ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ
খারাপ দিক-
পাওয়ার বাটনের অবস্থান, ছবিতে গ্রেইন থাকে এবং মাঝে মাঝে অস্পষ্ট হয়।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৫৫,০০০ টাকা।

২. গ্যালাক্সি এসফোর
বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্মার্টফোন নির্মাতা স্যামসাংয়ের সর্বাধুনিক স্মার্টফোন গ্যালাক্সি এসফোর।
ভালো দিক-
ব্রিলিয়ান্ট এইচডি স্ক্রিন, ভালো পারফরমেন্স, ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ, ভালো ক্যামেরা (অল্প আলো বাদে)
খারাপ দিক-
আগের মডেলের অনুরুপ ডিজাইন, অল্প আলোতে ভালো ছবি উঠে না, এফএম রেডিও নেই, স্যামস্যাংয়ের অ্যাপ দিয়ে মেমোরির অধিকাংশ দখল হওয়া।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৬৩,৫০০ টাকা।

৩. অ্যাপল আইফোন ফাইভএস
ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার ও ৬৪ বিট প্রসেসরের সমন্বয়ে অ্যাপলের আইফোন ফাইভএস এ বছরের অন্যতম সেরা স্মার্টফোন। অ্যাপল ভক্তরাও স্মার্টফোনটি পেয়ে যথেষ্ট খুশি।
স্মার্টফোনটির বিস্তারিত-
ডিসপ্লে: ৪ ইঞ্চি, প্রসেসর ১.৩ গিগাহার্জ, সামনের ক্যামেরা ১.২ মেগাপিক্সেল, স্ক্রিন রেজুলিশন- ৬৪০ বাই ১১৩৬ পিক্সেল, র‌্যাম ১ জিবি, ওএস- আইওএস ৭, স্টোরেজ -১৬ জিবি, পেছনের ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল, ব্যাটারি ১৫৭০ এমএএইচ।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৭০,০০০ টাকা।

৪. গ্যালাক্সি নোট থ্রি
স্যামসাংয়ের আরেকটি সেরা স্মার্টফোন গ্যালাক্সি নোট থ্রি।
ভালো দিক
ব্রিলিয়ান্ট এইচডি স্ক্রিন, ভালো পারফরমেন্স, সর্বশেষ অপারেটিং সিস্টেম, একহাতে সহজে ব্যবহারের সুবিধা
খারাপ দিক
এফএম রেডিও নেই, ফোরকে ভিডিও রেকর্ডিং নেই, মূল্য বেশি, কম আলোতে নিম্নমানের ছবি।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৫১,০০০ টাকা।

৫. নোকিয়া লুমিয়া ১৫২০
নোকিয়ার প্রথম ফ্যাবলেট (স্মার্টফোন ও ট্যাবলেটের সমন্বয়) লুমিয়া ১৫২০ মডেলের সর্বাধুনিক পণ্যটি। এতে ছয় ইঞ্চি ফুল এইচডি ডিসপ্লে, কোয়াড কোর স্ন্যাপড্রাগন ৮০০ প্রসেসর ও উইন্ডোজ ফোন এইট অপারেটিং সিস্টেম আছে।
ফিচার:
প্রসেসর- ২.২ গিগাহার্জ, সামনের ক্যামেরা- ১.২ মেগাপিক্সেল, স্ক্রিন রেজুলিশন- ১০৮০ বাই ১৯২০ পিক্সেল, র‌্যাম- ২জিবি, স্টোরেজ- ৩২ জিবি, পেছনের ক্যামেরা- ২০ মেগাপিক্সেল, ব্যাটারি- ৩৪০০ এমএএইচ।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৫৪,০০০ টাকা।
৬. মটরোলা মটো এক্স
বিশ্বের প্রথম কাস্টমাইজেবল স্মার্টফোন হিসেবে পরিচিত এ স্মার্টফোনটিতে বেশকিছু উদ্ভাবনী উপাদান যোগ করা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমচালিত স্মার্টফোনটির মূল্যও তুলনামূলকভাবে কম।
ফিচার
প্রসেসর- ১.৭ গিগাহার্জ, ডিসপ্লে ৪.৭ ইঞ্চি, সামনের ক্যামেরা- ২ মেগাপিক্সেল, স্ক্রিন রেজুলিশন- ৭২০ বাই ১২৮০ পিক্সেল, র‌্যাম- ২জিবি, অপারেটিং সিস্টেম- অ্যান্ড্রয়েড ৪.২, স্টোরেজ-১৬জিবি, পেছনের ক্যামেরা- ১০ মেগাপিক্সেল, ব্যাটারি- ২২০০এমএএইচ।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৪০,০০০ টাকা।
৭. এলজি জিটু
এলজির সর্বাধুনিক স্মার্টফোন এলজি জিটু বেশকিছু ফিচারের জন্য ব্যবহারকারীদের দৃষ্টি কেড়েছে। এর মধ্যে রয়েছে এর উদ্ভাবনী পেছনের বাটন। এতে স্মার্টফোনটি একহাতে চালাতে ব্যাপক সুবিধা হয়।
ভালো দিক-
ব্রিলিয়ান্ট ডিসপ্লে, ভালো পারফর্মেন্স, ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ।
খারাপ দিক-
বেমানান বাটন, প্লাস্টিকে নির্মিত পেছনভাগ।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৪৯,০০০ টাকা।
৮. সনি এক্সপেরিয়া জেড আল্ট্রা
৬.৪ ইঞ্চির বড় আকারের স্ক্রিনযুক্ত বেশ পাতলা ফ্যাবলেট সনি এক্সপেরিয়া জেড আল্ট্রা।
ভালো দিক-
দারুণ পারফর্মেন্স, ভালো ডিসপ্লে।
খারাপ দিক-
ব্যাটারি লাইফ কম, ছবির বিস্তারিত কম, ক্যামেরার জন্য ফ্ল্যাশ নেই, বৃহদাকার।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৬৪,০০০ টাকা।
৯. ব্ল্যাকবেরি কিউটেন
কানাডিয়ান বনেদি স্মার্টফোন নির্মাতা ব্ল্যাকবেরি তাদের নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেম সংযোজন করে বানিয়েছে ব্ল্যাকবেরি কিউটেন। বহু আগে থেকেই প্রতিষ্ঠানটি স্মার্টফোন নির্মাতা হিসেবে পরিচিত।
ভালো দিক-
কার্যকর কি বোর্ড, ভালো পারর্ফমেন্স, ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ, মানসম্মত ক্যামেরা।
খারাপ দিক-
ব্যয়বহুল, তৃতীয় পক্ষের অ্যাপের ঘাটতি, স্ক্রিনের অ্যাসপেক্ট রেশিও ১:১, এফএম রেডিওর অভাব।
বাংলাদেশে মূল্য প্রায় ৫৯,০০০ টাকা।
১০. এলজি জি ফ্লেক্স
এলজির বাঁকানো ডিসপ্লের স্মার্টফোন জি ফ্লেক্স বিশ্বব্যাপী ব্যবহারকারীদের দৃষ্টি কেড়েছে। দারুণ পারফর্মেন্স ও উদ্ভাবনের সমন্বয় রয়েছে এতে।
ফিচার-
ডিসপ্লে- ৬ ইঞ্চি, প্রসেসর- ২.২ গিগাহার্জ, সামনের ক্যামেরা- ২.১ মেগাপিক্সেল, স্ক্রিন রেজুলিশন- ৭২০ বাই ১২৮০ পিক্সেল, র‌্যাম- ২ জিবি, অপারেটিং সিস্টেম- অ্যান্ড্রয়েড ৪.২, স্টোরেজ- ৩২ জিবি, পেছনের ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল, ব্যাটারি, ৩৫০০এমএএইচ।
4 মন্তব্য
  1. হামিদ খান বলেছেন

    সুন্দর তথ্য, ধন্যবাদ

  2. নাঈম প্রধান বলেছেন

    খুবই সুন্দর পোস্ট । শেয়ার করার জন্য অনেক ধন্যবাদ ।

  3. Simply Apon বলেছেন

    আপনার পোস্টটির টাইটেল এমন হলে সুন্দর হতোঃ–
    জনপ্রিয় দশটি স্মার্টফোনঃ কেনার আগে জেনে নিন (ফকির লোক দেইখেন না!! লজ্জা পাবেন!) 😀
    এত সম্পদ নাই ভাই।

  4. মোঃ আসলাম পারভেজ বলেছেন

    দারুন শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ ভাই ।

উত্তর দিন