খুব সহজে জানুন প্রাইজ বন্ড লটারীর ড্র

5 380


টাকা আর টাকা

আসসালামু আলাইকুম।

আমাদের অনেকের কাছেই প্রাইজ বন্ড আছে। প্রতি তিন মাস অন্তর অন্তর এই প্রাইজ বন্ড লটারীর ড্র অনুষ্ঠিত হয়। দেখা গেছে এই ড্র অনুষ্ঠিত হবার পর এর ফলাফলের জন্য আমরা বিভিন্ন পত্রিকা বা অনলাইনে খোঁজ করতে থাকি। অনেক সময় শুধুমাত্র এই লটারীর ড্র মিলানোর জন্য আমরা টাকা খরচ করে ঐ নির্দিষ্ট দিনের পত্রিকা কিনি। কিন্তু এই প্রযুক্তির যুগে কেন আপনি এত কষ্ট করে একটা একটা নাম্বার দেখে মিলিয়ে দেখবেন। আরেক টা কথা হলো আপনার এই লটারী যদি বিগত দুই বছরের মধ্যে অনুষ্ঠিত যেকোন একটি ড্র এর সাথে মিলে গেলেই আপনি পুরষ্কার প্রাপ্তির জন্য নির্বাচিত হবেন। প্রযুক্তির বিভিন্ন খুটিনাটি বিষয় সহজ  ও বোধগম্য ভাবে সবার মাঝে জানানোর জন্যই পিসি হেল্পলাইন বিডি ব্লগ তার জন্মলগ্ন থেকে কাজ করছে। “ নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান ” এই স্লোগানে আস্থা রেখে আমি আমার এই পোষ্টে প্রাইজবন্ডের সকল সমস্যা এক নিমিষেই দুর করার চেষ্টা করবো। 🙂

 

চলুন এক নজরে দেখে নেই আমার এই পোষ্ট পড়ে আপনি কতটুকু উপকৃত হবেন…

১. আপনি আপনার প্রাইজ বন্ডের নম্বর বিগত আটটি ড্র এর সাথে মিলিয়ে দেখতে পারবেন, মাত্র এক ক্লিকে।

২. কোন নাম্বার যদি মিলে যায় তাহলে খুব সহজেই জানতে পারবেন যে কত তম ড্র এ আপনি কত তম পুরষ্কার পেয়েছেন এবং সাথে সাথে আপনার পুরষ্কারের অর্থ (টাকা) সহ দেখতে পারবেন। 😆

৩. ড্র মিলানোর জন্য আপনাকে কোন পত্রিকা কিনতে হবে না।

৪. অনলাইনে সার্চ দিতেও হবে না।

৫. নির্ভরযোগ্য ফলাফল একদম সরাসরি বাংলাদেশে ব্যাংক থেকে ফলাফল নেয়া।

৬. এবং  খুব দ্রুত আপনার প্রাইজবন্ডের নম্বর সমুহ মিলাতে পারবেন।

 

ওকে তাহলে চলুন শিখে নেই কিভাবে প্রাইজ বন্ডের নম্বর সমুহ মিলিয়ে দেখবেন।

১. আপনি ইচ্ছে করলে একটি বা একাধিক প্রাইজবন্ড নম্বর এক ক্লিকেই মিলিয়ে দেখতে পারবেন। যদি Single নম্বর হয় অর্থাৎ একটি প্রাইজ বন্ডের নম্বর হলে (সিরিজ নয়) নিচের লাল বর্ডারের বক্সের ভিতরের Enter Number এর ঘরে আপনার নম্বরটি টাইপ করুন এবং Go বাটনে ক্লিক করুন।

২. একের অধিক প্রাইজবন্ডের নম্বর এর জন্য : যদি আপনার প্রাইজবন্ডের নম্বর গুলো সিরিয়ালে থাকে, তাহলে আপনি আপনার সকল নম্বর গুলো খুব সহজেই মিলাতে পারবেন। শুধু টাইপ করবেন এভাবে: 1st number ~ last number.   যেমন:  0012345~0012349

খেয়াল করুন প্রথম নম্বর এবং সিরিয়ালের একদম শেষের নম্বর এর মাঝে  ~ এই চিন্হটা দিবেন। তারপর Go বাটনে ক্লিক করুন।

 

৩. অথবা যদি আপনার অনেকগুলো প্রাইজ বন্ড আছে, কিন্তু নম্বর গুলো সিরিয়াললি নাই তাহলে আপনি আপনার সব নম্বর গুলো কমা (,) দিয়ে দিয়ে একটার পর একটা লিখুন। যেমন: 0030401,0123901,1234708

৪. অথবা আপনি আপনার প্রাইজবন্ড নম্বরগুলো এভাবেও লিখতে পারেন : 0012345~0012349,0030401,0123901,1234708

 

যদি পুরষ্কার পান তাহলে কিভাবে রেজাল্ট দেখাবে তার জন্য আমি আপনাকে একটি নম্বর দিচ্ছি। এটি  ৩১ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে অনুষ্ঠিত ৭৩তম ড্র এর ফলাফলে প্রথন পুরষ্কার হিসেবে নির্বাচিত। নম্বরটি হলো : 0167730

নম্বরটি লেখুন এবং Go বাটনে ক্লিক করে দেখুন। 😛

 
 
 সাধারনত দেখা যায়, ড্র অনুষ্ঠিত হবার পর আমরা অনলাইনে সার্চ দেই, কিভাবে প্রাইজ বন্ডের লটারীর ড্র জানব, প্রাইজ বন্ড লটারীর ড্র, Prize bond lottery draw result , সার্চ দেবার পর পুরস্কার জিতলে নিচের মত রেজাল্ট দেখাবে ।
PRIZE BOND Lottery Draw
৭৪তম, ৭৫তম, ৭৬তম, ৭৭তম, ৭৮তম প্রাইজ বন্ড লটারীর ড্র ইত্যাদি। কিন্তু এখন থেকে আপনাকে আর এভাবে সার্চ করে অযথা সময় নষ্ট করা লাগবে না। আপনি আমার এই পোষ্টটি বুর্কমার্ক করে রাখুন। যখন ইচ্ছে তখন এই পোষ্ট ভিজিট করে আপনার প্রাইজ বন্ড নম্বর মিলিয়ে দেখুন। আচ্ছা আমি আর একটু সুবিধা করে দিচ্ছি। ধরলাম, আপনি আমার এই পোষ্ট বুর্কমার্ক ও করেন নাই বা মনে নেই এই পোষ্টের লিংক এর কথা। তাহলে আপনি গুগল এর সার্চে লিখুন “ prize bond lottery draw by Nasir ” এই এতটুকু কথা গুগলে সার্চ দিলেই সার্চ ফলাফলে পিসি হেল্পলাইন বিডির এই পোষ্টটি সবার উপরে দেখতে পারবেন। এবং তাতে ক্লিক করে আপনি এখানে এসে আপনার মূল্যবান প্রাইজ বন্ডের নম্বর মিলিয়ে দেখুন। ধন্যবাদ।

ফেসবুক এ আমাকে পেতে নিচের ফেসবুক বাটনে ক্লিক করুন।

 

 

  
 
 

কিছু প্রশ্ন এবং উত্তর:

১. নম্বর এর সিরিয়াল  এ কি কক, কখ, কঘ….. এগুলো লেখতে হবে?

উত্তর: না শুধুমাত্র আপনার প্রাইজবন্ডের নম্বর লিখলেই হবে।

 

২. বাংলাতে নম্বর লিখলে কি হবে?

উত্তর: নাহ, আপনাকে নম্বর গুলো ইংরেজিতেই লিখে Go এ ক্লিক করতে হবে।

 

৩. ইসলামের দৃষ্টিতে প্রাইজ বন্ড ক্রয় করা কি জায়েজ?

উত্তর: প্রাইজ বন্ড এবং এর ড্র থেকে যে অর্থ আসে তার মৌলিক প্রক্রিয়া ইসলামে বৈধ। কিন্তু এই টাকা ব্যাংক বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ করে ও ঋণ দেয়। ফলে সেখান থেকে ব্যাংক সুদ নেয়। সার্বিক বিবেচনায় সরাসরি বললে অবৈধ। কিন্তু আপেক্ষিক বিবেচনায় ইসলামি ব্যাংকের কার্যক্রমও ইসলাম অনুযায়ী অবৈধ।

এই বিষয়টা বিবেচনা করুনঃ আপনি সুদের টাকা একজনকে ধার দিলেন বা কাউকে দান করলেন, এখন যাকে (তিনি হয়তো জানেন বা জানেন না এই ব্যাপারে) দিলেন তিনি কি পাপ করলেন নিয়ে? ইসলামি ব্যাংকসহ সকল ব্যাংক বাংলাদেশ ব্যাংক-এর অধীনে চলে। ফলে সকল ব্যাংক-ই সুদের লেনদেন করে (প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে)। তাছাড়া অর্থের প্রয়োজনে ইসলামি ব্যাংককেও কল মানি মার্কেট থেকে অর্থ নিতে হয় যার জন্য সুদ দিতে হয়।

অর্থাৎ, মন্দের ভালো। তবে লটারি থেকে প্রাইজ বন্ড অনেক অনেক গুন ভালো। কারণ, লটারি জুয়া খেলার সমান। এক্ষেত্রে একজন অন্যজনদের নিঃস্ব করে লাভবান হয়।

অন্যএকটি উত্তর: আমাদের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী বর্তমান প্রচলিত প্রাইজ বন্ড ও ড্র পদ্ধতিতে সুদ ও জুয়া শামিল হওয়ায় তা ক্রয় করা ও লাভ নেয়া জায়েজ নয়। {ফাতওয়ায়ে উসমানী-৩/১৭৩-১৭৬}

قوله تعالى- وَأَحَلَّ اللَّهُ الْبَيْعَ وَحَرَّمَ الرِّبَا
অনুবাদ-আল্লাহ ব্যবসাকে হালাল করেছেন, আর সুদকে করেছেন হারাম। {সূরা বাকারা-২৭৫}

قوله تعالى- يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُواْ اتَّقُواْ اللَّهَ وَذَرُواْ مَا بَقِيَ مِنَ الرِّبَا إِن كُنتُم مُّؤْمِنِينَ (278)
অনুবাদ-হে মুমিনরা! তোমরা আল্লাহকে ভয় পাও। আর সুদের অংশকে ছেড়ে দাও যদি তোমরা মুমিন হয়ে থাক। {সূরা বাকারা-২৭৮}

قوله تعالى- يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُواْ لاَ تَأْكُلُواْ الرِّبَا أَضْعَافًا مُّضَاعَفَةً
অনুবাদ-হে মুমিনরা! তোমরা চক্রবৃদ্ধিহারে সুদ খেয়ো না। {সূরা আলে ইমরান-১৩০}

عبد الله بن مسعود عن أبيه عن النبي صلى الله عليه وسلم قال لعن الله آكل الربا وموكله وشاهديه وكاتبه
হযরত আব্দুল্লাহ বিন মাসউদ রাঃ এর পিতা থেকে বর্ণিত। রাসূল সাঃ ইরশাদ করেছেন-“যে সুদ খায়, যে সুদ খাওয়ায়, তার সাক্ষী যে হয়, আর দলিল যে লিখে তাদের সকলেরই উপর আল্লাহ তায়ালা অভিশাপ করেছেন। (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস নং-৩৮০৯, মুসনাদে আবি ইয়ালা, হাদিস নং-৪৯৮১) 

হাদিস সুত্র: জামায়াতুলআসাদ

 

আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ আমার পোষ্টটি পড়ার জন্য । আবার আসবেন। 🙂

উত্তর দিন