টিউটোরিয়ালই নয়, লাইভ ক্লাস। ওয়েব ডিজাইন এত্তো সহজ?!!

0 139

টিউটোরিয়াল গুলো তৈরি করা হয়েছে যাতে- ১. অল্প সময়ে অধিক পরিমান শেখা যায়। ২.পাঠ আনন্দদায়ক হয় এবং ৩. শিখলফল স্থায়ী হয়। মোবাইল ফোন শুরুতে শুধুই কথা বলার যন্ত্র হিসেবে তৈরি হলেও আজ আমরা এটিকে আমরা টিভি, খেলনা, ক্যালকুলেটর, চর্ট, ক্যামেরা, ওডিও ভিডিও প্লোয়ার, ক্যালেন্ডোর, ডায়রী, টিভি এমন কত্তো যে প্রয়োজনীয় যন্ত্রের বা কাজের বৈশিষ্ট্য যোগ করেছি বলে শেষ করা যাবেনা। আজ আমরা জানবো -ওয়েব সাইটের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ট্যাগ এর বৈশিষ্ট্য সমম্পর্কে যাকে বলা হয় এট্রিবিউট। এট্রিবিউট হলো মোবাইল ফোনের মধ্যে আমরা যে অন্যান্য গুন ঢুকিয়ে এটিকে আরো ব্যবহার উপযোগী করতে পেরেছি। তেমনি ট্যাগের সাধারণ বৈশিষ্ট্যের পাশাপাশি বাড়তি বৈশিষ্ট্য যো করা। অ্যাট্রিবিউট নিজে কাজ করতে পারেনা। কোন একটি ট্যাগের সাথে সংযুক্ত হয়ে কাজ করে। এটি সব সময় স্ট্যার্ট ট্যাগে নির্দিষ্ট করা হয়। এটি ২টি অংশ একটি এট্রিবিউট নেইম অন্যটি ভ্যালু।

বিস্তারিত দেখতে জানতে হলে পুরো ভিডিওটি দেখুন ১টি ভিডিও দেখেই যাচাই করুন-

সিনট্যাক্সঃ
+++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++
<tag AtttributeName=”value”>Contents</tag>
+++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++
উদাহরনঃ

<img src=”logo.jpg” width=”100″ height=”100″>

উপরের উদাহরণে এইচটিএমএল এর img ট্যাগটি নেয়া হয়েছে। এইচটিএমএলের এই ট্যাগটির মাধমে এইচটিএমএল পেজে কোন ইমেজ যোগ করতে হয় (img হচ্ছে image)। img এর পরে লেখা রয়েছে src (src হচ্ছে source অর্থাৎ ইমেজটির location)। এটা img ট্যাগের একটা অ্যাট্রিবিউট। এবং এরপর আরও দুইটি অ্যাট্রিবিউট রয়েছে width এবং height। এখানে দেখা যাচ্ছে প্রতিটি অ্যাট্রিবিউটই img ট্যাগ নিয়ে কাজ করছে। যেমনঃ src ইমেজের লোকেশন, width ইমেজের প্রশস্থতা, height ইমেজের উচ্চতা।

অ্যাট্রিবিউট এর মাধ্যমে এইচটিএমএল ট্যাগের উপরে বিভিন্ন প্রোপার্টিজ সেট করে দেয়া যায়।

সিরিজ পর্ব শুরু- https://www.youtube.com/watch?v=qkeaa7tSU9U

চ্যানেল – https://www.youtube.com/channel/UCF55vj9SIJtp1KZ2RbfN1Eg

গ্রুপ- https://www.facebook.com/groups/ICTonlineSchool/

উত্তর দিন