দেশে মোট ইন্টারনেট গ্রাহক ৩ কোটি ৬২ লাখ ৪৯ হাজার ১৮ জন

5 97

টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসিতে মোবাইল অপারেটরসহ সকল ইন্টারনেট সেবাদানকারী কোম্পানিগুলোর জমা দেওয়া সর্বশেষ হিসেবে অনুযায়ী দেশে মোট ইন্টারনেট গ্রাহক ৩ কোটি ৬২ লাখ ৪৯ হাজার ১৮ জন।

দেশের শীর্ষ মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের প্রতি চার গ্রাহকের একজন ইন্টারনেট ব্যবহার করছে।

আর বাংলালিংকের ইন্টারনেট ব্যবহারকারী প্রতি তিন জনে একজন। সর্বশেষ খবর হলো এ দুটি অপারেটরের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা কোটির ঘরে পৌঁছে গেছে।

অপর মোবাইল অপারেটর রবির প্রতি তিন জনে একজন ইন্টারনেট ব্যবহার করে।

কমিশনের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, আগস্ট মাসের শেষে দেশে মোট ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা ৩ কোটি ৬২ লাখ ৪৯ হাজার ১৮।

ইন্টারনেট প্যানিট্রেশনের হার ২৩ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এর মধ্যে গ্রামীণফোনের ১ কোটি ১৪ লাখ ৭৪ হাজার ৭৯৩ গ্রাহক ইন্টারনেট ব্যবহার কর।

যদিও তাদের মোট গ্রাহক ৪ কোটি ৫২ লাখের বেশি। অপারেটরটির ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের প্রায় সকলেই প্রি-পেইড সংযোগ ব্যবহার করছে।

এ সংখ্যা ১ কোটি ১২ লাখ ৭৯ হাজার ৫৫। এর বিপরীতে পোস্ট পেইড গ্রাহক সংখ্যা ১ লাখ ৯৫ হাজার ৭৩৮।

তবে পোস্ট পেইড ইন্টারনেট ব্যবহারকারী গ্রাহকের বিবেচনায় গ্রামীণফোনের চেয়ে চমক দিয়েছে বাংলালিংক।

তাদের এই ক্যাটাগরির গ্রাহক দেখানো হয়েছে ৬ লাখ ৮৫১। আর সব মিলে মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ১ কোটি ২ লাখ ১৯ হাজার ২৫।

শীর্ষ দুই মোবাইল অপারেটরের চেয়ে কিছুটা পিছিয়ে রয়েছে রবি। তাদের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৯৩ লাখ ৭৯ হাজার ৩৮১।

এর মধ্যে ৯২ লাখ ৭১ হাজার ১১১ জনের পছন্দের প্যাকেজ প্রি-পেইড।

সংখ্যায় অন্যদের থেকে কম হলেও শতাংশের বিবেচনায় ইন্টারনেট ব্যবহারে এগিয়ে রয়েছে এয়ারটেল। তাদের মোট গ্রাহক ৭৯ লাখ।

কিন্তু এর মধ্যে ৩০ লাখেরও বেশি গ্রাহকের ইন্টারনেট সংযোগ আছে বলে বিটিআরসিতে জমা দেওয়া তথ্যে উল্লেখ করা হয়েছে।

সিটিসেলের গ্রাহক তিন লাখের চেয়ে খানিকটা কম। অন্যদিকে এক বছর আগে থ্রিজি সেবা চালু করলেও রাষ্ট্রায়ত্ব টেলিটক খুব একটা এগুতে পারেনি। তাদের গ্রাহক তিন লাখের সামান্য বেশি।

এদিকে ওয়াইম্যাক্স অপারেটর বাংলালায়ন বিভিন্ন সময় তাদের গ্রাহক তিন-চার লাখ বলে দাবি করলেও বিটিআরসির এ হিসেব বলছে, আগস্টের শেষে তাদের গ্রাহক দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৯৮০।

এর আগে অপারেটরটির গ্রাহক সংখ্যা বিষয়ে একটি তদন্ত করে কমিশন। আর সে কারণে জুলাই মাসের ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যার হিসাব প্রকাশ করতে পারেনি কমিশন।

অপর ওয়াইম্যাক্স অপারেটর কিউবির গ্রাহক ১ লাখ ৩১ হাজার।

আর ইন্টারনেট সেবার ক্ষেত্রে আগের মতোই সরকারি কোম্পানি বিটিসিএল এখনও অনেক পিছিয়ে। তাদের মোট গ্রাহক মাত্র ১২ হাজার।

আর ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারদের মোট গ্রাহক ১২ লাখ।

প্রসঙ্গত, সর্বশেষ গত জুলাই মাসে দেশের মোট ইন্টারনেট গ্রাহকের তালিকা প্রকাশ করেছিল বিটিআরসি।

সে তালিকায় গত ৩০ জুন পর্যন্ত দেশে মোট মোট ইন্টারনেট গ্রাহক ছিল ৩ কোটি ৫৬ লাখ ৩১ হাজার ২৬৯ জন।

তখন মোট মোবাইল ইন্টারনেট গ্রাহক ছিল ৩ কোটি ৩৯ লাখ ৪ হাজার ৮৪১ জন, আইএসপি ও পিএসটিএন-এর গ্রাহক ছিল ১২ লাখ ২১ হাজার ৬২ জন এবং ওয়াইম্যাক্স অপারেটরদের মোট গ্রাহক ছিল ৫ লাখ ৪ হাজার ৮০৮ জন।

 

priyotech

5 মন্তব্য
  1. আকাশ বলেছেন

    চমৎকার পোস্টটি শেয়ার করার জন্য থ্যাংকস ভাই!

  2. নাঈম প্রধান বলেছেন

    শেয়ার করার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

  3. দিপু রায়হান বলেছেন

    ধন্যবাদ আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য।

  4. হামিদ খান বলেছেন

    ধন্যবাদ,,,,,,,

  5. লিটন হাফিজুর বলেছেন

    thanks for share.

উত্তর দিন