DDR2 ও DDR3 র‍্যাম এর পার্থক্য কি জেনে নিন ?

5 118

DDR2 এবং DDR3 র‍্যাম এর মধ্যে পার্থক্য কি?

১.  DDR র‍্যাম মানে হচ্ছে Double Data Rate Random Access Memory। ১০০ মেগাহার্টজের একটি DDR র‍্যাম যদি প্রতি সাইকেলে ২টি ডাটা ট্রান্সফার করে তাহলে DDR2 র‍্যাম করবে ৪টি আর DDR3 করবে ৮টি!

ধরা যাক, ১০০ মেগাহার্টজের একটি র‍্যাম DDR হলে তার মেমরি ব্যান্ডউইথ হবে ১৬০০মেগাবাইট/সেকেন্ড DDR2 হলে তার হবে ৩২০০মেগাবাইট/সেকেন্ড আর DDR3 হবে ৬৪,০০০ মেগাবাইট/সেকেন্ড!

বিখ্যাত গেমিং DDR3 র‍্যাম

বিখ্যাত গেমিং DDR3 র‍্যাম করসায়ার ভেনজেন্স

২. সাধারন ব্যবহারে এই পার্থক্য বোঝা যায় না কারন ৯৯% কম্পিউটার প্রোগ্রামের জন্য এত বিপুল পরিমান মেমরি ব্যান্ডউইথ দরকারই হয় না। ভারি প্রোগ্রাম ও ভিডিও গেমস চালানোর সময় পার্থক্যটা বোঝা যায়।

৩. র‍্যামের ক্লক স্পিড যদি বেশি হয় তাহলে সেটি পারফর্ম করবে ভাল। DDR3 র‍্যাম তাই DDR2 র‍্যামের চেয়ে ভাল এক্সপেরিয়েন্স দেয়।

বিখ্যাত গেমিং DDR3 র‍্যাম

বিখ্যাত গেমিং DDR3 র‍্যাম ট্রান্সসেন্ড এক্স-র‍্যাম

৪. DDR3 র‍্যাম অনেক বেশি এনার্জি এফিসিয়েন্ট!

৫. DDR2 থেকে DDR3 র‍্যামে অনেক কম latency কাজ করে, এতে করে DDR3 তুলনামূলক তাড়াতাড়ি রেসপন্স করে।

এধরনের মজার মজার হার্ডওয়্যার তথ্যাবলী নিয়ে আমরা শুরু করেছি একটি ফেসবুক পেইজ বাংলায় কম্পিউটার সমগ্রপেইজে সবাইকে স্বাগতম।

এ ছাড়া এন্ড্রয়েড নিয়ে আমাদের আরেকটি তথ্যবহুল পেইজ আছে সেখানেও আমরা এন্ড্রয়েডের বাছাই করা সবচেয়ে সেরা নিউজগুলো প্রকাশ করছি ঘুরে দেখে আসতে পারেন বাংলায় এন্ড্রয়েড সমগ্র থেকে

Powered by-

লেখকঃ দিহান

5 মন্তব্য
  1. হামিদ খান বলেছেন

    ধন্যবাদ শিখলাম ভাই

  2. আকাশ বলেছেন

    পোস্টটি উপহার দেওয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। 🙂

  3. নাঈম প্রধান বলেছেন

    খুবই সুন্দর পোস্ট । শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

  4. Rockstar Boy Masum বলেছেন

    thanks to share.

  5. Nafiz Ur Rahman বলেছেন

    tHANK you

উত্তর দিন