স্থানীয় টিভি চ্যানেল তৈরী করার ক্যাবল অপারেটরদের জন্য সফটওয়্যার ফ্রি ডাউনলোড

4 156

আমাদের দেশে দু‘ধরণের ক্যাবল টিভি চ্যানেল রয়েছে একটি স্যাটেলাইট এবং অন্যটি স্থানীয় ক্যাবল টিভি চ্যানেল । স্যাটেলাইট ক্যাবল টিভি চ্যানেলের সম্পর্কে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেয়ার কিছুই নেই। তবে স্থানীয় ক্যাবল টিভির টিভি চ্যানেলের ধারণাটি খুব বেশী নতুন এবং প্রচলিত নয়। মুলত: ক্যাবলটিভির সার্ভিসের প্রথমদিকে স্থানীয় ডিশ অপারেটররা ডিভিডি প্লেয়ারের মাধ্যমে কিছু অনুষ্ঠান স্থানীয়ভাবে প্লে করত। এবং এতে স্বল্প পরিসরে কিছু স্থানীয় বিজ্ঞাপণ ছিলো। কিন্তু সময়ের সাথে প্রযুক্তির উন্নতির সাথে সাথে প্রতিটি ডিশ কন্ট্রোল রুমের জন্য স্থানীয় ক্যাবলটিভি হয়ে ওঠে একটি অপরিহার্য চ্যানেল। বর্তমানে এটি স্থানীয় বিনোদন (ভিডিও অন ডিমান্ড) এবং স্থানীয় অর্থনীতির একটি অন্যতম নিয়ামক। স্থানীয় ক্যাবলটিভির সম্পূর্ণ সেটাপের ক্ষেত্রে এর খরচ ব্যাপকভাবে কমে আসায় ২০০৪/০৫ এর পর থেকে এর প্রসারও হতে  থাকে দ্রুত গতিতে।


প্রথমদিকে ব্যয়বহুল এবং ঝামেলাপূর্ণ ভারতীয় কিছু সফটওয়্যার সেই সাথে দেশীয় কিছু বাংলা ভাষার পরিপূর্ণ সাপোর্ট বিহীন সফটওয়্যার দিয়ে এর যাত্রা শুরু হয়। যেমন: (১) এমিগা (২) মুভিম্যাক্স (৩) চ্যানেলষ্টুডিও (৪)এসিএম [ভারতীয়],  (১) চ্যানেল প্লেয়ার (২) এভিব্রডকাষ্ট (৩) মাল্টিলিংক [দেশীয়] ইত্যাদি। কিন্তু সময়ের সাথে স্যাটেলাইট চ্যানেলগুলোর বিজ্ঞাপণ এবং অনুষ্ঠান প্রচারের ধারা ও পদ্ধতি, তথ্য প্রচার ব্যবস্থা পাল্টে যাওয়ায় উল্লেখিত সফটওয়্যারগুলো হয়ে পড়ে ব্যবহার অনুপোযোগী। এই শুন্যতাকে পূরণের জন্যই একটি পরিপূর্ণ বিশ্ব মানের স্থানীয় টেলিভিশন সফটওয়্যার তৈরীর কাজ দেশেই শুরু হয় ২০০৪ এর দিকে। যার নাম দেয়া হয় ক্যাবলটিভির সংক্ষিপ্তরুপ ক্যাবটিভি। ২০০৮ সাথে এর বেসিক বেটা ভার্সণ রিলিজ করা হয়। পরবর্তীতে ২০১০ সালে এর পূর্ণাঙ্গ ভার্সণ সীমিত আকারে রিলিজ করা হয়। আরও দুবছর পর এর অত্যাধুনিক ফিচার, বাগ ফিক্সিং এবং সিকিউরিটি ফিক্সিং করে সকল ব্যবহারকারীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। বর্তমানে এর যে সমস্ত ফিচারগুলো রয়েছে তা নিম্নে সংক্ষিপ্ত আকারে দেয়া হলো। এখানে প্রতিটি ফিচারের বেসিক অংশগুলো উল্লেখ করা হয়েছে মাত্র।
(১)    পরিপূর্ণ বাংলা ভাষার সাপোর্ট যেমন: বাংলা ঘড়ি, রানটাইম নিউজ স্ক্রল, অনুষ্ঠানসূচী (ওয়াচিং কার্ড, সিডিউলকার্ড, মুভি ব্যান্ড, রিজিউম ব্যান্ড)। এছাড়া শুধুমাত্র ইংরেজী অথবা বাংলা এবং ইংরেজী মিক্সড মোডের সুবিধা। স্প্যানিশ ল্যাংগুয়েজ সাপোর্টেড (শুধুমাত্র ৩.২০ ভার্সণ)
(২)    ষ্টান্ডার্ড এবং এইচডি সম্প্রচার সাপোর্টেড (যে কোন অডিও এবং ভিডিও ফাইল)
(৩)    সময়সূচী ভিত্তিক (ফিক্সড টাইম অথবা কারেন্ট টাইম) ১০০% অটোমেশন ভিত্তিক অনুষ্ঠান প্রচার।
(৪)    ষ্টান্ডার্ড টিভি চ্যানেলের নিয়মানুসারে স্বয়ংক্রিয় প্রোগ্রাম কম্পাইল (যেমন: সিজি, ওয়াচিং কার্ড, সিডিউল কার্ড, কপিরাইট প্লেট, ওয়াচিং ব্যান্ড, রিজিউম ব্যান্ড, কাউন্টডাউন ব্যান্ড)
(৫)    রানটাইম (অফলাইন/অনলাইন) ব্যানার বিজ্ঞাপন, নিউজ স্ক্রল, ব্রেকিং নিউজ, মুভি ব্রান্ডিং ব্যবস্থা (বুলেটিং সহকারে ইমেজ এবং এনিমেশন উভয় ফরম্যাট সাপোর্টেড)
(৬)    এল-শেপ বিজ্ঞাপন
(৭)    বিজ্ঞাপন থেকে ফেরার সময়সূচী (যেমন: ফিরছি ০২.১৫ মিনিট পর)
(৮)    * অপারেশনের ক্ষেত্রে ইনষ্ট্যান্ট প্লে, লাইভ, নেক্সট, প্রিভিয়াস, জাম্প, কিপ কিউয়িং, ভলিউম কন্ট্রোল সাপোর্টেড। * রান টাইম (অনলাইন) সিডিউল পরিবর্তনের সুবিধা। * ডুয়েল এবং সিঙ্গেল ভিউ সাপোর্টেড।
(৯)    আনলিমিটেড শিডিউলিং।
(১০)    অটোম্যাটিক সেটিংস রিকভারি। এই ব্যবস্থার মাধ্যমে কোন কারণে কম্পিউটারের উইন্ডোজ পরিবর্তন করা হলেও পুরো সফটওয়্যারের কোন অংশেরই নতুন করে সেটিংস নির্ধারণ করতে হয়না। পুনরায় উইন্ডোজ সেটাপ করার পর নতুন করে সম্প্রচার চালু করতে সর্বোচ্চ ১ মিনিট সময় লাগে।
(১১)    পিসি চালুর সাথে সাথে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পুর্বের বন্ধ হওয়া পজিশন থেকে সম্প্রচার চালুর সুবিধা, এবং সময় গ্যাপের ক্ষেত্রে নতুন করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সময়সুচী ঠিক করে নেয়ার সুবিধা। নির্দিষ্ট সময়ে অথবা অনুষ্ঠানসূচীর উপর ভিত্তি করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পিসি বন্ধ করার সুবিধা।
(১২)    ব্যবহারকারীর ইচ্ছে অনুযায়ী যে কোন গ্রাফিক্স পরিবর্তনের সুবিধা বিধায় এটি মুলতঃ যে কোন ভাষায় ব্যবহার করা যাবে (স্ক্রলের ক্ষেত্রে আরবী বা উর্দু বাদে)।
(১৩)    সবগুলো ফিচারের উপর বাংলায় ভিডিও টিউটোরিয়াল।
(১৪)    ২৪ ঘন্টা সাপোর্ট  [রিমোট ডেক্সটপ, ফোন, ই-মেইল, ফেসবুক চ্যাট ***]

উপরে উল্লেখিত ফিচারের বাইরে আরো অনেক অনেক ফিচার রয়েছে যা লিখে প্রকাশ করতে গেলে পোষ্টটি অনেক বড় হয়ে যেতে পারে বিধায় উল্লেখ করা হলোনা।

ক্যাবটিভির বর্তমান ব্যবহারকারীদের কিছু অংশের তালিকা (থার্ড ব্রাকেট দিয়ে একাধিক চ্যানেল বোঝানো হয়েছে)
(১)    মিজু, পাবনা সদর, পাবনা [৩]
(২)    মাল্টি-১, ময়মনসিংহ সদর, ময়নসিংহ
(৩)    মাল্টি-৩, সুভাষ, ময়মনসিংহ সদর, ময়নসিংহ [২]
(৪)    মাল্টি-৪, হিরো, ময়মনসিংহ সদর, ময়নসিংহ [২]
(৫)    মাল্টি-৫, রিপন, ময়মনসিংহ সদর, ময়নসিংহ [২]
(৬)    ফয়সাল, গফরগাও, ময়মনসিংহ
(৭)    রাজু, ভালুকা, ময়মনসিংহ [২]
(৮)    শিহাব, ভালুকা, ময়মনসিংহ
(৯)    হিমটন, ত্রিশাল, ময়মনসিংহ
(১০)    কামাল, ত্রিশাল, ময়মনসিংহ
(১১)    রিপন, নান্দাইল, ময়নসিংহ
(১২)    মনির, ফুলপুর, ময়মনসিংহ
(১৩)    সবুজ, কেশরগঞ্জ, ময়মনসিংহ
(১৪)    আজিজ, ফুলবাড়িয়া, ময়মনসিংহ
(১৫)    আজিম, নেত্রকোনা সদর [২]
(১৬)    হিমেল, মোহনগঞ্জ, নেত্রকোনা
(১৭)    গোপাল, কেন্দুয়া, নেত্রকোনা [২]
(১৮)    খায়রুল, নকলা, শেরপুর
(১৯)    বাঙ্গালী, নকলা, শেরপুর
(২০)    হালিম, ঝিনাইগাতী, শেরপুর
(২১)    লিটন, নলিতাবাড়ি, শেরপুর
(২২)    বাবুল, শেরপুর সদর, শেরপুর
(২৩)    কালাম, শেরপুর সদর, শেরপুর
(২৪)    মনির, শেরপুর সদর, শেরপুর
(২৫)    জুবায়ের, শ্রীবর্দি, জামালপুর
(২৬)    ইলিয়াস, বকশীগঞ্জ, জামালপুর
(২৭)    শাহীন, জামালপুর সদর, জামালপুর
(২৮)    নোমান, বটতলা, টাঙ্গাইল সদর
(২৯)    তারিফ, ঘাটাইল, টাঙ্গাইল
(৩০)    টুটুল, ঘাটাইল, টাঙ্গাইল
(৩১)    হাশিম, গাজীপুর সদর, গাজীপুর [২]
(৩২)    আউয়াল, মাওনা, গাজীপুর
(৩৩)    আজগর, মাওনা, গাজীপুর
(৩৪)    সাইদ, বরমী, গাজীপুর
(৩৫)    ফিরোজ, বাইপাইল, গাজীপুর
(৩৬)    মনির, কোনাবাড়ী, গাজীপুর
(৩৭)    রুবেল, চালাকচর, মনোহরদী, নরসিংদি
(৩৮)    সুমন, চালাকচর, মনোহরদী, নরসিংদি
(৩৯)    স্বপন, উত্তরা, ঢাকা
(৪০)    বাদশা, এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা
(৪১)    আলমগীর, সাভার, ঢাকা
(৪২)    সাইফুল, সাভার, ঢাকা
(৪৩)    ইমান আলী, সাটুরিয়া, মানিকগঞ্জ
(৪৪)    সিঙ্গাইর, মানিকগঞ্জ
(৪৫)    মানিক, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ
(৪৬)    খোকন, শিমরাইল, নারায়ণগঞ্জ
(৪৭)    টুটুল, হোমনা, কুমিল্লা
(৪৮)    আনোয়ার, হোমনা, কুমিল্লা
(৪৯)    শহীদ, চৌদ্দগ্রাম, কুমিল্লা
(৫০)    স্বপন, বাঞ্ছারামপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া
(৫১)    মাসুদ, দাগনভুইয়া, ফেনী
(৫২)    বাচ্চু, বসুর হাট, নোয়াখালী
(৫৩)    তানিম, বসুর হাট, নোয়াখালী
(৫৪)    সাগর, সীতাকুন্ড, চট্টগ্রাম
(৫৫)    মুসলিম, ভাটিয়ারী, চট্টগ্রাম
(৫৬)    রাজ্জাক, ভোলা সদর, ভোলা
(৫৭)    মামুন, চরফ্যাশন, ভোলা
(৫৮)    জুয়েল, মুলাদী পৌরসভা, বরিশাল
(৫৯)    তানভির, গলাচিপা, পটুয়াখালী
(৬০)    রাজীব, কলাপড়া, পটুয়াখালী
(৬১)    ইউসুফ, বেতাগী, বরগুনা
(৬২)    শংকর, বরগুনা সদর, বরগুনা
(৬৩)    দোলোয়ার, মোকসেদপুর, গোপালগঞ্জ
(৬৪)    টিপু, যশোর সদর, যশোর
(৬৫)    ইয়াছিন, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা
(৬৬)    কাশীনাথপুর, পাবনা
(৬৭)    মিন্টু, মেহেরপুর সদর, মেহেরপুর
(৬৮)    আসাদুল, বাঘা, রাজশাহী [২]
(৬৯)    সুমন, পুঠিয়া, রাজশাহী
(৭০)    জন, নওগা সদর, নওগা
(৭১)    শাওন, বগুড়া সদর, বগুড়া
(৭২)    ইউসুফ, দুপচাচিয়া, বগুড়া [২]
(৭৩)    ইকবাল, রংপুর ক্যান্টনমেন্ট, রংপুর
(৭৪)    সালাম, পাগলাপীর, রংপুর
(৭৫)    রফিক, সৈয়দপুর ক্যান্টনমেন্ট, নীলফামারী
(৭৬)    লিটন, সৈয়দপুর, নীলফামারী
(৭৭)    উজ্জল, ডিমলা, নীলফামারী
(৭৮)    রনি, নীলফামারী সদর, নীলফামারী
(৭৯)    ডোমার, নীলফামারী
(৮০)    আরিফ, জলঢাকা, নীলফামারী
(৮১)    আলম, কাহারোল, দিনাজপুর
(৮২)    রাশেদুল, রুহিয়া, ঠাকুরগাঁও
(৮৩)    মানিক, নেকমরদ, ঠাকুরগাঁও
(৮৪)    রফিক, রানীশংকৈল, ঠাকুরগাঁও
(৮৫)    আরিফ, কুড়িগ্রাম সদর, কুড়িগ্রাম
(৮৬)    রনি, পাটগ্রাম, লালমনিরহাট

CabTV ডাউনলোড লিংক : http://www.mediafire.com/download/mcu1lfkz5hhbjxk/CabTV_Ultra_328_Net.zip
ডাউনলোড হয়ে গেলে এর মধ্যকার ভিডিও টিউটোরিয়াল ফাইলটি দেখে প্রাথমিক ভাবে শুরু করতে পারবেন অতি সহজেই।
ফেসবুক লিংক : http://www.facebook.com/cabtvbd

ক্যাবল অপারেটরদের জন্য আরো একটি সফটওয়্যার cBill [ক্যাবল টিভি বিলিং সিস্টেম] এর
ডাউনলোড লিংক: http://www.mediafire.com/download/kyz6glr5hgf3e17/cBill_v1.26.zip

4 মন্তব্য
  1. আকাশ বলেছেন

    পোস্টটি উপহার দেওয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। 🙂

  2. sabbir islam sumon বলেছেন

    আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সুন্দর একটি পোস্ট করার জন্য । আমি অনেকদিন ধরে এরকম একটি software খুজছিলাম।

  3. নাঈম প্রধান বলেছেন

    খুবই সুন্দর পোস্ট । শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

  4. মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেছেন

    আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সুন্দর একটি পোস্ট করার জন্য ।

উত্তর দিন