বিটিসিএল এর ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট রিভিউ এবং কনফিগারেশন

7 175

দেশের অনেকগুলো ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। সবাই স্বতন্ত্রতা এবং ভাল মন্দ নিয়েই চলছে শুরুর থেকে। বলা বাহুল্য আমাদের মত স্বল্পউন্নত দেশের মধ্যে এতোগুলো ইন্টারনেট সার্ভিস দাতা প্রতিষ্ঠান থাকলেও আমরা ভাল সার্ভিস কারো থেকেই পাই না। যাহোক…. সম্প্রতি আমি গ্রামীনফোন এর নেট পরিহার করে বিটিসিএল এর ব্রডব্যান্ড লাইন ব্যবহার করছি প্রায় ১ মাস হচ্ছে। আর মাত্র ১ মাসের সামান্য অভিজ্ঞতা নিয়েই আজকের পোষ্টটি…

যেভাবে সংযোগের আবেদন করবেনঃ

১. আপনার শহরের নিকটস্থ বিটিসিএল অফিসে যেয়ে তাদের দেয়া নির্দিষ্ঠ আবদেন ফর্মে আপনার যে নামে টিএনটি(বর্তমান বিটিসিএল) এর টেলিফোন লাইন আছে সেই সব প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে পূরণ করুন।

২. টেলিফোন লাইনের এক কপি ফটোকপি।

৩. তারপর, যার নামে টেলিফোন লাইন তার ভোটার আইডি কার্ড এর সত্যায়িত ফটোকপি, এক কপি কালার পাসপোর্ট সাইজ ছবি সত্যায়িত।

৪. বিটিসিএল এর এডিএসএল মডেম মূল্য ২৫০০টাকা সাথে সার্ভিস চার্জ ৪০০টাকা। এই সর্বমোট ২৯০০টাকা এর তিন পেজের একটি ডিমান্ড নোট তারাই লিখে দিবে। ডিমান্ড নোট+২৯০০টাকা তাদের বলা মত ব্যাংকে গিয়ে জমা দিবেন। (শুধু টাকা আর ডিমান্ড নোট জমা দিবেন।)

৫. সেই ব্যাংক টাকা সহ ডিমান্ড নোটের এক কপি জমা নিয়ে বাকী ২কপি আপনাকে দিবে।

৬. বাকী দুই কপি ডিমান্ড নোট, আবেদন ফর্ম, ছবি এবং ভোটার আইডি কার্ডটি এবার বিটিসিএল অফিসে জমা দিবেন।

৭. বাকী দু কপি ডিমান্ড নোট এর মধ্যে বিটিসিএল অফিস এক কপি রেখে আপনাকে এক কপি দিয়ে দিবে। এবং খুব বেশি হলে তিন দিনের মধ্যে আপনার একাউন্ট তৈরী করে আপনাকে জানানো হবে। না জানালে ২/৩ দিন পরে খোঁজ নিতে ভুলবেন না।

বাস! আবেদনের কাজ শেষ! :)

নোট: বিটিএল এর এই সার্ভিস বাংলাদেশের অনেক জেলাতে এখনও পৌছায় নাই।

সুবিধা-অসুবিধাঃ

১. সুবিধা বা অসুবিধা বলতে আমি এখনো তেমন জটিল কোন অসুবিধা পাই নাই। যেখানে জিপি-তে আমার দৈনিক ১০-১৫ বার লাইন কেটে যেত অটোমেটিক। সেখানে গত একমাসেও এমন সমস্যায় একবারো পড়তে হয় নাই।

২. মাত্র ৪৫০ টাকায় ১২৮ কেবিপিএস এর আনলিমিটেড সংযোগ।  [যদিও ২০১২ এর জানুয়ারী এর আগে মাত্র ৩০০ টাকায় এই লাইন পাওয়া যেতো…। :( ] প্রয়োজন অনুযায়ী লাইন স্পীড পরিবর্তণ করতে পারবেন। তবে মাইগ্রট করতে হলে স্থানীয় অফিসে প্রতিমাসের ২০ তারিখের মধ্যে আবদেন করে জানাতে হবে। আবেদন করাটা কারও কারও কাছে সমস্যাও মনে গতে পারে।

৩. সময় মত বিল না দিতে পারলে প্রায় সব নেট সার্ভিসের লাইন কেটে যায়, তবে বিটিসিএল এর ক্ষেত্রে এমনটা হবে না কারন, আপনার টেলিফোন বিলের সাথে ইন্টারনেট বিল পাবেন। তাই আপনার সুবিধামত সময় বিল জমা দিতে পারবেন। তবে, সময়মত বিল দেয়াই আদর্শ নাগরিকের কাজ! :D

৪. একই সাথে টেলিফোনে কথা বলা এবং নেট চালাতে পারবেন। তবে একটি সমস্যা হতে পারে, আপনার মূল টেলিফোন সংযোগ আপনার মডেমের সাথে হতে হবে। সেখান থেকে হাব এর মাধ্যমে একাধিক সংযোগ  করতে পারবেন। এমনটা না করলে কখনও কল আসলে বা করতে চাইলে মোডেমের লাইন পাবেন না।

৫. লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক বা ল্যান কার্ডের মাধ্যমে এবং ইউএসবি ক্যাবলের মাধ্যমেও মডেমকে সিপিউ এর সাথে লাগাতে পারবেন।

৬. সর্বোচ্চ ১২টি পিসিতে একই সংযোগ দিয়ে চালাতে পারবেন। তবে, ভাল গতির জন্য কম পিসি ব্যবহার করাই উত্তম।

পিসিতে সেটআপ পদ্ধতিঃ

আর অন্যান্য হার্ডওয়্যারের যেমন সফটওয়্যার ইন্টল করতে হয়। তেমনি আপনি যদি সরাসরি ল্যান কার্ড দিয়ে ব্যাবহার করতে ইচ্ছুক না হন অথবা সমস্যা ফেস করে তবে, সরাসরি ইউএসবি ক্যাবল দিয়েও মডেম চালাতে পারবেন। তার জন্য মডেমের দেয়া সফটওয়্যার ইন্সটল করে নিবেন। নয়তো ল্যান দিয়েই চালাবেন।

লাইন কনফিগার করবেন যেভাবেঃ

১. উইন্ডোজ কন্ট্রোল প্যানেল থেকে Network Connections এ প্রবেশ করুন।

 

 

২. Network Connections এর বাম প্যানেল উইন্ডো থেকে Create a new connection এ ক্লিক করুন।

 

৩. Create a new connection এ ক্লিক করলে নতুন একটি উইন্ডে ওপেন হবে নিচের মত। সেখানে থেকে Set up my connection manually সিলেক্ট করে Next এ ক্লিক করুন।

 

৪. পরের ধাপে, Connect using a broadband connection that requires a username and password সিলেক্ট করে Next করুন।

 

৫. পরের ধাপে, ISP Name এ BTCL লিখে দিন এবং Next করুন।

৬. এবার বিটিসিএল থেকে আপনাকে দেয়া ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড দিন। তারপর নিচের চেক বক্সগুলো চেক করুন এবং Next করুন।

৭. এবার পরের ধাপে, Add a shortcut to this connection to my desktop এর বাম পাশের চেক করুন এবং Finish করুন।

৮. এবার বিটিসিএল নেট এ লগইন/কানেক্ট করার উইন্ডো পাবেন। Connect বাটনে ক্লিক করুন। ২/৩ সেকেন্ডর মধ্যে কানেক্টেড হবে। তারপর উপভোগ করুন ব্রডব্যান্ড সার্ভিসের মজা!! :)

কিছু সংযুক্তিঃ

১. সংযোগ একটিভ করে দিতে আপনার বাসায় বা প্রতিষ্ঠানে বিটিসিএল এর প্রতিনিধি আসবে। তাদের সংযোগ সেটআপ এর কাজ তাদেরকেই করতে দিবেন। কারন আপনি এসবের জন্য অতিরিক্ত ৪০০টাকা জমা দিয়েছেন মডেমের সাথে। ভুলেও অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করতে যাবেন না। তবে, যদি মনে করেন ৫০/১০০ টাকা চা-নাস্তা খেতে দিতে পারেন, সেটা আপনার মানবতা মাত্র! :)

২. গত বছরের জানুয়ারি এর দিকে বিটিসিএল একটি ঘোষনা দিয়েছিলো সবগুলো প্যাকেজ এ স্পীড ডাবল করে দেওয়ার । এ কারনেই সবগুলো প্যাকেজ এর বিল  বেড়েছে । কিন্তু বিল বাড়ালেও এখনো আগের স্পিড আছে…।  :(    বিটিসিএল এর সকল প্যাকেজ গুলো দেখতে এখানে যান

৩. সবগুলো মাসিক প্যাকেজ এ বিল এর সাথে ১৫% ভ্যাট যুক্ত হবে ।

আজকে এ পর্যন্তই পোস্ট টি কেমন লাগলো তা জানাতে ভুলবেন না ।

(পোস্টটি এই ব্লগ এ প্রকাশিত হয়েছিলো )

7 মন্তব্য
  1. নাঈম প্রধান বলেছেন

    ভাল একটি পোস্ট । শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

  2. জাকির হোসেন বলেছেন

    শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

  3. B Islam বলেছেন

    অনেক ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য

  4. মো: নাসির উদ্দিন বলেছেন

    নাইস। খুব ভাল পোস্ট। ধন্যবাদ আপনাকে।

  5. marfat বলেছেন

    এর চেয়ে আমার লোকাল আই এস পি ই ভাল। কারন মাত্র ৫০০ টাকা তে ৫১২ এম বি চালাচ্ছি । তাও আবার আনলিমিটেড।

    1. rafarayhan বলেছেন

      kon এরিয়াতে থাকেন আপনি?

  6. sabuj4u বলেছেন

    একটা শিক্ষনীয় বিষয়ে পোষ্ট করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ এই রকম একটি সুন্দর পোষ্ট শেয়ার করার জন্য ।

উত্তর দিন