আপনার ব্রেনের কর্মক্ষমতা বাড়ান

25 117

 

পোষ্টটির শুরুতেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি শ্রদ্ধেয় এ্যাডমিন ও সকল মডারেটর ভাইয়ের কাছে। কারন পোষ্টটি আপাতত দৃষ্টিতে, কোন প্রযুক্তি বিষয়ক নয়, তাই।

 

আসসালামু আলাইকুম। সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আমার ভিন্ন ধর্মী একটি পোষ্ট।  নাম দেখেই আশাকরি আন্দাজ করে ফেলেছেন কি নিয়ে লিখলাম।  তাহলে চলুন শুরু করি।

 

বাড়িয়ে তুলুন স্মরণ ক্ষমতা:  আপনি আজকের দিনে করবেন এমন ১০টি বা তার ততোধিক কাজের একটা ‘করণীয় তালিকা’ বা ‘to do list’ স্মরণে রাখুন অর্থাৎ কাগজে না লিখে তা মুখস্থ করে রাখুন।  এটা আপনার স্মরণ ক্ষমতা তথা মেমরি বাড়ানোর একটা উপায়।  এই হতে পারে, এ করণীয় তালিকাটি স্মরণে আনতে চেষ্টা করবেন কাজে যাওয়ার সময়, কিংবা খেলতে যাওয়ার সময়- তখন মনে মনে একটা সংযোগ গড়ে তুলতে চেষ্টা করবে কাজ ও কাজের স্থানটির মধ্যে।  যেমন সংবাদপত্র কিনতে হবে সংবাদপত্রের দোকান থেকে, সড়কের কিনারের দোকানটায় কাপড় দিয়ে যেতে হবে ড্রাই ক্লিনিংয়ের জন্য, কাফের বাইরে থেকে বাড়িতে ফোন করতে হবে ইত্যাদি।

তখন নিজেকে এসব প্রশ্ন করুন:  সংবাদ পত্র কেনার পর কোন কাজটা করতে হবে? বাড়িতে ফোন করার আগে কোন কাজটা করতে হবে? করণীয় তালিকার দ্বিতীয় কাজ কোনটি? ড্রাই ক্লিনারের বিষয়টি তালিকার কত নম্বর স্থানে আছে?

পরদিন বের হন ২০টি কাজের তালিকা মুখস্ত করে বা স্মরণে রেখে। এভাবে ধীরে ধীরে তালিকা দীর্ঘ করতে পারেন দিন দিন। দেখবেন একই ভাবে বাড়ছে আপনার স্মরণশক্তি।

 

স্থান – সম্পর্কিত সচেতনতা বাড়ান:  ঘরে বসে চোখ বন্ধ করে ভাবুন কোথায় কোন পথে যেতে হবে।  একটি চেয়ারে বসে মানসিকভাবে আপনার বাড়ির চার পাশে ঘুরুন।  চলার সময়  মনে মনে প্রতিটি দৃশ্যমান বস্তু দেখুন। অতপর একটা ট্রে’র মাঝে ১২টি বস্তু রেখে এগুলোর অবস্থান মনে রাখতে চেষ্টা করুন। তখন কাউকে বলুন এর কয়েকটি সরিয়ে ফেলতে।

আন্দাজ করুন কোনগুলো সরিয়ে ফেলা হয়োছে। এতে করে আপনার স্থান-সম্পর্কিত সচেতনতা বাড়বে।

 

বেশি থেকে বেশি সংখ্যা নিয়ে চর্চা করুন:  প্রতিদিন এ অনুশীলন চালিয়ে যান।  আপনার  কেনা সামগ্রীর দাম পরিশোধের আগে মনে মনে যোগ করে ফেলুন।  বিলগুলো হাতে পেলে সেগুলোকে আলাদা আলাদা ভাগ করে মিলিয়ে নিন।  কতগুলো জিনিস পেছনে ফেলে এলেন তার সংখ্যা আন্দাজ করুন- যেমন কতটা গাছ পেছনে ফেলে এলেন, কিংবা কতজন মানুষের একটি দল।  কিংবা একটা বাগানে আছে কতগুলো গাছ। আপনার মনকে সব সময় কর্মতৎপর কিংবা চটপটে রাখলে এবং সব সময় সচল রাখলে সংখ্যা গত বিষয় নিয়ে , তাহলে আপনার  গাণিতিক তীক্ষ্ণতা আর প্রজ্ঞা বাড়বে।

 

বাড়িয়ে তলুন শব্দক্ষমতা:   যতটুকু সম্ভব আপনার ওয়ার্ড পাওয়ার বা শব্দক্ষমতা  বাড়িয়ে তুলুন।  শব্দের খেলা খেলুন ও দেখুন।  সময় ধরে এ খেলায় মাতুন। প্রতিদিন কিছু নতুন শব্দ শিখুন এবং তা সুযোগ পেলেই মাঝে মধ্যে ব্যবহার করুন।  তৈরি করুন  শব্দের অ্যানাগ্রাম।  একটি শব্দের বা বাক্যাংশের বর্ণগুলো পরিবর্তন করে নতুন ভিন্ন শব্দ বা বাক্যাংশ গঠনের নাম অ্যানাগ্রাম।   একটা দিন কাটিয়ে দিন না শব্দ নিয়ে নানা বিশ্রিঙ্খলার ওপর কাজ করতে । এতে করে একটা শব্দের অর্থ বোঝার ক্ষমতা আপনার বেড়ে যাবে।

 

উপরের কাজ গুলো একটু একটু করে অভ্যাসে পরিনত করতে চেষ্টা করুন।  তাহলে দেখবেন আপনার মনে রাখার ক্ষমতা, ধী শক্তি, বুদ্ধিমত্তা, বিচক্ষনতা ইত্যাদি বাড়বে।  আপনি পড়ালেখায় আরও মনযোগী হতে পারবেন। খুটিনাটি কোন বিষয়ই আপনার চোখ এড়াবে না।

 

তো সবাই ভাল থাকবেন। খুব ভালো । আল্লাহ হাফেয।

 

25 মন্তব্য
  1. Nafiz Ur Rahman বলেছেন

    অসাধারন পোস্ট নাসির ভাই

  2. sabuj4u বলেছেন

    গুরুত্বপূণ পোষ্ট শেয়ার করা জন্য অনেক ধন্যবাদ ।

  3. নাঈম প্রধান বলেছেন

    সুন্দর পোষ্ট টি আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

  4. darkpain বলেছেন

    boss eaita to just starting ……….
    tai na………

  5. Asif121 বলেছেন

    ধন্যবাদ।

  6. কম্পিউটার ভাইরাস বলেছেন

    দারুন ভাইয়া । কার্যকরী পোস্ট ।

  7. himaloy বলেছেন

    great post!!!!!!!!!!!!!

  8. সিহাব সুমন বলেছেন

    সুন্দর পোষ্ট টি আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

  9. সরোজ বলেছেন

    কতো বড়ো কথা বলেছেন ভাই!!!

  10. Sei chele ti বলেছেন

    Thank u.
    Khub important tips! 🙂

    1. মো: নাসির উদ্দিন বলেছেন

      ধন্যবাদ

  11. fahad50 বলেছেন

    Really nice & unique nasir vi.

  12. MIZAN_CSE-IUB বলেছেন

    Thanks ,This post share with our.

  13. Alam বলেছেন

    Hellow Brother, If possible Please Give Me “Fast Blog Finder” Software.

    1. মো: নাসির উদ্দিন বলেছেন

      পেলে জানাবো। কমেন্ট করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

  14. Real বলেছেন

    নাইস। খুব ভালো পোষ্ট। ধন্যবাদ আপনাকে।

  15. Tuhinzaman বলেছেন

    Valo post vai, lekhata pore valo laglo, Thank u for ur nice post.

  16. Deejay ArP বলেছেন

    অসাধারন পোস্ট নাসির ভাই 🙂

  17. alif বলেছেন

    thanks

    1. মো: নাসির উদ্দিন বলেছেন

      ওয়েলকাম

  18. Turjo, Bangladesh. বলেছেন

    নাহ্ , সিরিয়াসলি… লেখাটা সত্যিই ইউনিক।
    খুব ভালো লিখেছেন। শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ…

  19. আব্দুল বারী বলেছেন

    খুব ভাল

    1. মো: নাসির উদ্দিন বলেছেন

      আপনিও খুব ভালো। বারী ভাই আপনি ইদানিং অনেক কম কম কমেন্ট করছেন। কি অবস্থা????

  20. Turjo, Bangladesh. বলেছেন

    আপনার সাবটাইটেলটা বেশ হইছে নাসির ভাই…
    THINK CREATIVE BE POSITIVE
    হাঃ হাঃ হাঃ 😐 …sorry

    নাইস। খুব ভালো পোষ্ট। ধন্যবাদ আপনাকে। 😀

    1. মো: নাসির উদ্দিন বলেছেন

      আপনাকেও নাইস কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ।

উত্তর দিন