হেডফোনেও ‘মিসড কল’

0 1,105

হারিয়ে গেলে অ্যাপে জানা যাবে হেডফোনের অবস্থান। ‘চোখের আড়াল হলেই মনের আড়াল’ কথাটা মুঠোফোনের বেলায় খাটে না। উল্টো ‘দে একটা মিসড কল’ বলে হুকুম করে বসেন। অবশ্য মিসড কল দেওয়ার এই সুবিধাটা বেশ কাজের। আশেপাশে কোথাও ফোন থাকলে সঙ্গে সঙ্গে হদিস মেলে। শুধু ফোনে নয়, সুবিধাটি কিন্তু হেডফোনেও থাকা দরকার ছিল। আর সেটি যদি তারহীন হয়, তো কথাই নেই। যখন-তখন, যেখানে-সেখানে হারিয়ে ফেলার ঝুঁকি থেকে রেহাই পাওয়া যেত। ঘটনা হলো, এর কাছাকাছি একটা সুবিধার ঘোষণা দিয়েছে গুগল। ব্লুটুথ সংযোগের সীমার মধ্যে থাকলে তো বটেই, সচল থাকলে বাইরে গেলেও মিলবে খোঁজ।

ফাষ্ট পেয়ার নামে একধরনের সেবার ঘোষণা কয়েক বছর আগেই দিয়েছিল গুগল। পর্যায়ক্রমে তার উন্নয়ন চলছে। কাছাকাছি দুটি যন্ত্র যদি একই গুগল অ্যাকাউন্ট দিয়ে লগইন করা থাকে, তবে পেয়ার (সংযোগ) করা যাবে সহজেই। ব্লুটুথ যন্ত্র পেয়ার করার বেলায় যেমন লাগে তেমন বাড়তি সময়ও লাগবে না। তাত্ত্বিক দিক থেকে যেকোনো যন্ত্রের কথা বললেও সেবাটি বেশি কাজে লাগছে তারহীন হেডফোনের বেলায়। অনেকটা অ্যাপলের এয়ারপডসের মতো কাজ করছে। তবে গুগলের সেবা বলে কথা, কিছু নিয়মকানুন মেনে যেকোনো প্রতিষ্ঠান ফাস্ট পেয়ার প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারবে। জেবিএল, অ্যাংকর, এলজির মতো প্রতিষ্ঠান এরই মধ্যে হেডফোন ছেড়েছে বাজারে।

নতুন ঘোষণায় গুগল বলেছে, ফাস্ট পেয়ার প্রযুক্তির হেডফোনে যুক্ত হচ্ছে ‘ফাইন্ড মাই ডিভাইস’ সুবিধা। শেষবার কখন ও কোথায় ব্যবহার করা হয়েছে, তা দেখাবে অ্যাপে। আর ব্লুটুথের সংযোগ সীমার মধ্যে থাকলে সংকেত দিয়েই জানিয়ে দেবে।

সুত্রঃ টেকক্রাঞ্চ

উত্তর দিন