ফেসবুক বিনা অনুমতিতে ব্যবহারকারীদের মেইল সংরক্ষণ করেছে

0 1,740

ফেসবুক স্বীকার করেছে প্রায় ১.৫ মিলিয়ন ব্যবহারকারীর ইমেইলের তথ্য তাদের বিনা অনুমতিতে সংরক্ষণ করেছে ফেসবুক। বিজনেস ইনসাইডারের জানায়, ২০১৬ সালের মে মাস থেকে গত মার্চ মাস পর্যন্ত ফেসবুক তাদের নতুন ব্যবহারকারীদের ইমেইল ভেরিফিকেশনের জন্য ইমেইলের পাসওয়ার্ড চেয়েছে। আর এর ফলে ব্যব‌হারকারীদের ইমেইলের যাবতীয় তথ্য তাদের কাছে জমা হয়ে যেত, কোন ধরণের বের হওয়ার সুযোগ ছাড়াই।

এই রিপোর্ট প্রকাশের পর, ফেসবুকের একজন মুখপাত্র বিজনেস ইনসাইডারকে জানান যে বিষয়টি “অনিচ্ছাকৃত ভুলে” হয়ে গিয়েছে। তারা জানান যে এই তথ্যগুলো কারো সাথে বিনিময় হয় নি এবং বর্তমানে সেগুলো মুছে ফেলার প্রক্রিয়া চলছে। ফেসবুক আরো দাবি করে, তারা এই সমস্যাটির সমাধান করে ফেলেছে।

ইমেইল ভেরিফিকেশন অনলাইনে সার্ভিসের ক্ষেত্রে খুবই সাধারণ একটি ঘটনা, তবে ফেসবুক এটি নিজস্ব প্রক্রিয়ায় করে থাকে। সাধারণত নতুন অ্যাকাউন্ট খুলতে চাইলে একটি ইমেইল অ্যাড্রেস চাওয়া হয়, যাতে একটি ভেরিফিকেশন মেইল পাঠানো হয়, এতে ক্লিক করে বুঝাতে হয় যে ইমেইলের ব্যবহারকারীই নতুন অ্যাকাউন্টটি খুলতে যাচ্ছেন। সেখানে ফেসবুক ব্যবহারকারীদেরকে ইমেইল ভেরিফিকেশন করতে পাসওয়ার্ডের তথ্যও জানতে চাইত। ব্যবহারীরা চাইলে এটি এড়াতেও পারেন- দ্যা ডেইলি বিস্ট জানায় যে ইমেইল বক্সের নিচে “Need help?” নামে একটি অপশন রয়েছে যেখান থেকে ব্যবহারকারী চাইলে মোবাইলে একটি কোড পাঠিয়ে অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করতে পারেন। পাসওয়ার্ড বক্সের নিচে ছোট একটি ঘোষণার মাধ্যমে ফেসবুক জানাত যে তারা কোন পাসওয়ার্ড সংরক্ষণ করে না, এটি শুধু একটি প্রক্রিয়া। গত বছরের আগস্ট মাস থেকে তাদের কোন প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা না থাকায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি কিছু নিরাপত্তা জনিত অসুবিধায় ভুগছে। গত মাসে তারা লক্ষ্য করে যে, প্রায় দেড় মিলিয়ন ব্যবহারকারীর পাসওয়ার্ড তাদের সার্ভারে জমা হয়ে আছে।

আমার ওয়েব সাইটে ভিজিট করতে এখানে ক্লিক করুন।

 

উত্তর দিন