সহজভাবে বুটেবল USB ড্রাইভ তৈরি করুন

0 521

সাধারন ব্যাবহারকারীরা পিসি বা ল্যাপটপে উইন্ডোজ অথবা অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করতে বাজার থেকে CD অথবা DVD কিনে অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করে। এক্সপার্ট ব্যাবহারকারীরা বুটেবল USB ড্রাইভ তৈরি করে অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করে থাকে।

CD অথবা DVD আর USB ড্রাইভ দিয়ে অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করার মধ্য পার্থক্য আছে। CD অথবা DVD প্রতি সেকেন্ডে ২০ মেগাবাইট ডেটা ট্রান্সফার করতে পারে। USB ড্রাইভ প্রতি সেকেন্ডে 60 মেগাবাইট থেকে ২.৫ গিগাবাইট ডেটা ট্রান্সফার করার ক্ষমতা রাখে। USB ড্রাইভ ভার্সনের উপর এই গতি নির্ভর করে। USB ভার্সন ২, ৩, ৩.১ এবং ৩.২ প্রতি সেকেন্ডে যথাক্রমে ৬০ মেগাবাইট, ৬২৫ মেগাবাইট, ১.২৫ গিগাবাইট এবং ২.৫ গিগাবাইট পর্যন্ত ডেটা ট্রান্সফার করতে পারে। সহজেই বুঝতে পারছেন CD অথবা DVD থেকে USB ড্রাইভ দিয়ে অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করতে কম সময় প্রয়োজন হবে। USB ড্রাইভ হিসেবে পেনড্রাইভ অথবা মেমোরি কার্ড ব্যাবহার করা যাবে। তবে আমি আপনাদেরকে পেনড্রাইভ ব্যাবহার করার পরামর্শ দিবো।

আজ আমি আপনাদেরকে ১ মেগাবাইটের এমন একটি সফটওয়্যারের সাথে পরিচয় করে দিবো, যা আপনার USB ফ্লাশ ড্রাইভ ফরমেট করে বুটেবল USB ফ্লাশ ড্রাইভে পরিণত করতে সাহায্য করে। সফটওয়্যারটির নাম Rufus। এই সফটওয়্যার এর সর্বশেষ ভার্সন ৩.৪ যা গতকাল ৫ ডিসেম্বর রিলিজ হয়েছে। এই সফটওয়্যারটি ব্যবহারের জন্য উইন্ডোজ ৭ বা তার পরবর্তী ভার্সন লাগবে। উইন্ডোজ এর ক্ষেত্রে ৩২ বা ৬৪ বিট কোন ব্যপার না। সফটওয়্যারটি একবার ডাউনলোড হয়ে গেলে, এটি ব্যবহারের জন্য তৈরি। এই সফটওয়্যারটির পোর্টেবল ভার্সনও রয়েছে।

এবার মূল টিউটোরিয়ালে যাই। প্রথমে নিচের লিংক থেকে Rufus এর যেকোন একটি ভার্সন ডাউনলোড করে নিন।

ডাউনলোড হয়ে গেলে সফটওয়্যারটি ওপেন করে পিসি অথবা ল্যাপটপে USB ড্রাইভটি কানেক্ট করতে হবে। পোর্টেবল ভার্সন ব্যাবহার করার পূর্বে পিসি অথবা ল্যাপটপে USB ড্রাইভটি কানেক্ট করতে হবে, নয়তো Device লিস্টে USB ড্রাইভ দেখাবে না।

প্রথমেই বলে রাখি Rufus ব্যাবহার এর ক্ষেত্রে প্রয়োজন অনুযায়ী সঠিক অপশন নির্বাচন করতে হবে।

নিচের ৬টি ধাপের মাধ্যমে সহজ ভাবে বুটেবল USB ড্রাইভ তৈরি করা যাবে।

Rufus সফটওয়্যার ওপেন করার পর USB ড্রাইভ কানেক্ট করলে নিচের ছবির মতন দেখাবে।

১. এরপর Boot selection থেকে Disk or ISO image সিলেক্ট করতে হবে।

২. Boot selection এর ডানদিকে SELECT বাটনে ক্লিক করে উইন্ডোজ অথবা অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেম এর ISO image ফাইলটির লোকেশন দেখিয়ে দিয়ে Open বাটনে ক্লিক করলে নিচের ছবির মতন দেখাবে।

৩. Image option লিস্ট থেকে Standard Windows Installation সিলেক্ট করতে হবে। Windows To Go সিলেক্ট করলে USB ড্রাইভটিতে উইন্ডোজ ইন্সটল হবে যা পরবর্তীতে যেকোন সময় যেকোন ডিভাইস থেকে আপনার নিজস্ব উইন্ডোজ বুট এবং চালু করে পোর্টেবল USB ড্রাইভ হিসেবে ব্যাবহার করা যাবে।

৪. Partition scheme খুব গুরুত্বপূর্ণ। Partition scheme এ ২টি অপশন থাকে, GTP এবং MBR। এই দুটি হচ্ছে পার্টিশন টাইপ। তাই আপনি এখানে ভুল পার্টিশন টাইপ নির্বাচন করলে উইন্ডোজ ইন্সটল হবে না। তাই আপনার পিসির হার্ডডিস্ক এর পার্টিশন টাইপ অনুযায়ী Partition scheme নির্বাচন করতে হবে। আপনার হার্ডডিস্ক এর পার্টিশন টাইপ Disk Management থেকে দেখা যাবে। বলে রাখি, যেকোন সময় আপনার হার্ডডিস্ক এর পার্টিশন টাইপ GTP থেকে MBR অথবা MBR থেকে GTP তে পরিবর্তন করা সম্ভব। আমি আপনাকে পিসিতে GPT পার্টিশন টাইপ ব্যাবহার করার জন্য পরামর্শ দিবো। আমার পিসির হার্ডডিস্ক এর পার্টিশন টাইপ বর্তমানে MBR করা আছে। তাই আমি নিচের ছবির মতন Partition schemeMBR নির্বাচন করেছি। Partition scheme নির্বাচন করলে Target system এবং File system অটোমেটিক পরিবর্তন হয়ে যাবে।

৫. এবার Volume lable বক্সে আপনার পছন্দ অনুযদি নাম দিতে হবে। আমার ক্ষেত্রে ডিফল্ট ভাবে CCSA_X64FRE_EN-US_DV5 দেওয়া আছে, তাই আমি আর পরিবর্তন করিনি। Cluster size থেকে 4096 bytes (Default) নির্বাচন করে START বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৬. START বাটনে ক্লিক করার পর এক্টী পপআপ বক্স আসবে। সেখানে আপনার USB ড্রাইভ ফরমেট করার জন্য ওয়ার্নিং দেখাবে। পপআপ বক্সে OK বাটনে ক্লিক করতে হবে।

আপনার USB ফ্লাশ ড্রাইভ ফরমেট করে বুটেবল USB ফ্লাশ ড্রাইভে পরিণত করতে ৩০ থেকে ৪৫ মিনিট বা তারবেশিও সময় লাগতে পারে। বুটেবল USB ড্রাইভে প্রস্তুত হয়ে গেলে নিচের ছবির মতন Ready লেখা দেখতে পারবেন।

আজ এই পর্যন্তই। সবাই ভালো থাকবেন।

নিজে জানুন, অন্যকে জানান

উত্তর দিন