► কম্পিউটারের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করুন…৯৯.৮% হ্যাকিং প্রতিরোধী উপায় ◄

22 314

“আস্সলামুআলাইকুম” – আশাকরি সবাই নিরাপদেই আছেন। এই পোষ্টটি আরো পূর্বেই দিতে চেয়েছিলাম, কিন্তু আমার প্রোফাইলে ঢুকতে সমস্যা্ হওয়ায় কিছু কমেন্ট করা ছাড়া নতুন লেখা পোষ্ট করা সম্ভব হয়নি। Next time হয়তো বেশী সময় দিয়ে পোষ্ট করতে পারব না বিধায় আজকে আপনাদের সাথে কম্পিউটারের নিরাপত্তার বিষয়ে কিছু কৌশল আলোচনা করছি। Security নিয়ে এর পূর্বেও আমি একটি পোষ্ট করেছিলাম। চাইলে এই স্থানে ক্লিক করে দেখে আসতে পারেন।

আজকে এই বিষয়টি অনেকটা এই কারনে যে না’চাইতেও অনেকটা সেই ধরনের লেখা আবার আমায় লিখতে হলো। যদিও বিষয়টি নতুন নয় তবে, এটি পাসওয়ার্ড বিষয়ক না। এটি আমি আমার আগের লেখাতে আপনাদের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেছিলাম- ‘পাসওয়ার্ড প্রয়োগ-পদ্ধতি সম্পর্কে..’। তারই কিছু অংশবিশেষ।

➨ Keep safe your computer
It is 99.8% Hack proof process…

————————————————————-

আমরা অনেক সময় উইন্ডোজ Setup-এর মধ্যে পাসওয়ার্ড দিতে ভুলে যাই। কিংবা অনেক কারনে হয়তো Setup-এর পরে Operating সিষ্টেমে আমাদের পাসওয়ার্ড দেবার প্রয়জন পড়ে। আবার যারা পুরাতন কম্পিউটার কেনেন, তাদেরও অপারেটিং সিষ্টেমে পাসওয়ার্ড দেয়ার প্রয়জন পড়তে পারে।

এসকল ক্ষেত্রে সাধারনত আমরা নতুন করে কম্পিউটারে Windows Operating System ইনষ্ট‌লের মাধ্যমে পাসওয়ার্ড দিয়ে থাকি। কিন্তু এতে আমাদের অনেক মূল্যবান সময়ের অপচয় হয়।

আপনি চাইলে খুব সহজেই আপনার কম্পিউটারে এই সমস্যা দূর করতে পারেন। এমন কী অপারেটিং সিষ্টেমের পাওয়ার্ডের থেকেও অধিক Strong And Active একটি পাসওয়ার্ড ব্যবস্থা Use করতে পারেন এবং সেটি হবে উইন্ডোজ অপারেটিং সিষ্টেম ইনষ্ট‌ল করা ব্যাতীত। অবাক লাগছে? নিন্মে দেখুনঃ-

এই কাজটি করতে আপনি নিন্মের পদ্ধতি অনুসরণ করুনঃ

১. আপনি আপনার কম্পিউটারের Run অপশনটিতে যেয়ে টাইপ করুন syskey এবং Ok করুন অথবা Enter প্রেস করুন। আপনার কম্পিউটারে Security database চালু হবে।

২. এখানে Encryption Enabled অপশনটি সিলেক্ট‌ করা রয়েছে কি’না সেটি লক্ষ করুন। না’থাকলে সেটি সক্রিয় করে দিন আর সিলেক্ট‌ করা থাকলে update অপশনটিতে ক্লিক করুন।

৩. নতুন আসা উইন্ডোবক্সে অতিরিক্ত নিরাপত্তার জন্য system generated password অপশনটির store start up key locally অংশে চেকমার্ক করা আছে কি’না দেখে নিন। না’থাকলে সেটি চেকমার্ক করে উপরের পাসওয়ার্ড দেবার অংশে কমপক্ষে ৮টি বর্ণের সমন্বয়ে আপনার কাঙ্খিত পাসওয়ার্ডটি টাইপ করুন।

নিরাপদ পাসওয়ার্ড প্রসঙ্গে জানতে হলে এই স্থানে Click করে দেখে আসতে পারেন আমার করা পূর্বপ্রকাশিত পোষ্ট‌ “আপনার পাসওয়ার্ড সুরক্ষিত করুন..” শিরোনামে।

এখানে ক্লিক করুন।

৪. ঠিক তার নিচের কনফর্মেশন বক্সেও একই পাসওয়ার্ড টাইপ করে Ok করুন।

৫. একটি নিশ্চিতকরন বার্তা (success message) আসলে সেটিতেও Ok করে দিন। বাকী যদি কোন ম্যাসেজ বক্স থাকে, তবে সেটি বন্ধ করে দিন।

আপনার কাজ এখানেই সমাপ্ত‌। এরপরে প্রত্যেকবার কম্পিউটার চালু হওয়ার পূর্বে আপনার কাছে একটি পাসওয়ার্ড চাওয়া হবে। তখন আপনি আপনার দেওয়া সেই পাসওয়ার্ডটি দিলেই কেবলমাত্র আপনার কম্পিউটার চালু হবে।

অন্যথায় পাসওয়ার্ডটি যদি আপনি ভুলে গিয়ে থাকেন তবে আপনাকে পূনরায় System Drive Format করে অপারেটিং সিষ্টেম নতুনকরে সেটআপ দিতে হবে। এছাড়া পাসওয়ার্ডটি পূনরূদ্ধার (Recover) করার কোন সুযোগ নেই।

যারা অপারেটিং সিষ্টেমে আগে থেকেই পাসওয়ার্ড দিয়ে রেখেছেন এবং সেটি ব্যবহার করছেন, চাইলে তারাও এটি অনুসরণের মাধ্যমে কম্পিউটারের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করতে পারেন। এটি Administrative Password থেকেও ভালোমানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আপনাকে প্রদান করবে। পাসওয়ার্ডটি আপনার সিষ্টেমের অংশ হিসেবে কাজ করবে।

এবারে আসি কিভাবে আপনি আবার পাসওয়ার্ডটি রিমুভ করবেন, সেই প্রসঙ্গে।

এই পাসওয়ার্ডটি যদি আপনি বাতিল করতে চান তবে উপরোক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করে update অপশনটিতে যান। সেখানের পাসওয়ার্ডের অংশটি ফাঁকা রাখতে হবে। এবারে system generated password অংশটির উপরে ক্লিক করলে দেখবেন, পাসওয়ার্ডের অংশটি নিস্ক্রিয় অবস্থানে চলে গেছে। এমন অবস্থায় Ok করলে আপনার দেওয়া চলতি পাসওয়ার্ড চেয়ে একটি বক্স‌ আসবে। সেটিতে আপনার দেওয়া সেই পাসওয়ার্ডটি-ই লিখে Ok করুন, যেটি বর্তমানে কার্যকর রয়েছে। একটি নিশ্চিতকরন বার্তা (success message) আসলে সেটিতেও Ok করে দিন।

দেখুন ,পরবর্তীতে আপনার কম্পিউটার চালু হওয়ার সময় আপনার পিসি- আপনার কাছে সেই পাসওয়ার্ডটি আর চাইছে না।

তবে অবশ্যই পাসওয়ার্ড বাতিলের সময় পাসওয়ার্ডের অংশটি সতর্কতার সাথে নিস্ক্রিয় অবস্থানে নিয়ে তারপর Ok করবেন। নতুবা প্রত্যেকবার আপনার কম্পিউটার চালু হওয়ার সময়ে, আপনি পাসওয়ার্ড চেয়ে একটি বার্তা আপনার কম্পিউটারের পর্দায় দেখতে পারেন। অবশ্য সেখানে পাসওয়ার্ড না দিয়ে শুধু শূন্য বক্সটিতে Ok করে দিলেই আপনার কম্পিউটার স্বাভাবিক উপায়েই চালু হবে।

এই পদ্ধতির একটি সুবিধা হলো যে আপনার ইউনিক পাসওয়ার্ড ছাড়া পিসি কোন উপায়েই চালু করা সম্ভ‌ব নয়। যারা সেটাপের সময় Administrative Password প্রয়োগ করেন, তাদের পাসওয়ার্ড না’জানলেও বিভিন্ন ট্রিকস খাটিয়ে পাসওয়ার্ড হ্যাক করা যায়। যেমন রনি ভাই একটি উপায় বলেছেন। কিন্তু আমি যতদূর জানি, এভাবে দেওয়া পাসওয়ার্ড হ্যাক প্রুফ। আর সেটাপের সময়ে Administrative Password প্রয়োগ করলে পিসি চালু হওয়ার সময় দু’টো পাসওয়ার্ডের-ই প্রয়োজন পড়বে।

আজকে এই পর্যন্তই। পাসওয়ার্ড বা নিরাপত্তা বিষয়ে সামনের পোষ্টগুলো লিখব আপনাদের কমেন্টের উপরে Base করে। যেমনটি আমি আমার বিগত পোষ্টে লিখেছিলাম যে নিরাপত্তা সিলমোহর (Stamp) কিংবা এধরনের যত Security সম্পর্কিত প্রয়োগ-পদ্ধতি-প্রোগ্রাম রয়েছে সেগুলো সম্পর্কে লিখব। ধন্যবাদ, সাথেই থাকুন এবং নিরাপদে পথ চলুন আর সবসময় ইতিবাচক চিন্তা করুন।

বি;দ্র; এই পোষ্ট নিয়ে যেকোন ধরনের সমস্যা/উপদেশ বা অতিরিক্ত কিছু জানার থাকলে মন্তব্যের পথ খোলা আছে। আমি আমার সাধ্যমতো চেষ্টা করবো। – আল্লাহ্হাফেয।

খুলনা, ১৮-ই ফেব্রুয়ারী ২০১২ –তে করা হয়েছিলো। Now… Modified & Recovered.

 

22 মন্তব্য
  1. Rejaul73 বলেছেন

    Brother i try this before seeing your post.it is nice but it canbe remove by a bootable software. I use “Windows passward remover.iso”.after creating a cd i try this software .it can remove this ‘syskey” password.
    So i tell that without reinstall of an operiting system any one can remove this password if he forgot his password by this process.
    ok thank you & all.

    1. Turjo, Bangladesh. বলেছেন

      ভালো সময়েই মন্তব্যটা করেছেন। অনেকদিন ধরে পুরাতন পোষ্টে আসা হয়না। আপনার মন্তব্যটা চোখে পড়ে যাওয়ায়…
      anyway, you’re right. It’s also possible with an installation CD of microsoft windows or bootable linux operationg system. But it’s not mean that the encryption will be disable.
      you’re maybe doing this because when you’re creating a CD to try this software (Windows passward remover.iso) you also continuing to use database encryption security system (syskey) or maybe another account like not as system administrator.
      So that, your effort was completed.
      It’s also an another reason that your iso has logical element to break the password to do this.
      Now i think you can got it.
      Thank you Mr. Rejaul for your comment and attendance.

      1. Rejaul73 বলেছেন

        Thank you for giving comment.

  2. HassanMahfuj বলেছেন

    Xotil jinish. vaiya

    1. Turjo, Bangladesh. বলেছেন

      Thank you Mr. Hassan Mahfuj but do i know you??

      Just kidding brother. take it like a joke or something!

  3. মো: নাসির উদ্দিন বলেছেন

    নাইস। খুব ভাল পোস্ট। ধন্যবাদ আপনাকে।

    1. Turjo, Bangladesh বলেছেন

      স্বাগতম।

  4. সিহাব সুমন বলেছেন

    Thanks for share.

    1. Turjo, Bangladesh বলেছেন

      Welcome.

  5. sarminmitu বলেছেন

    ভাইআ আমার পিসি র সব ফাইল সেতু safe মুডে রান করে নিয়া গেছে আমি কিভাবে এটা রোধ করব

    1. Turjo, Bangladesh বলেছেন

      Sarminmitu, আপনি কিভাবে নিশ্চিত হলেন যে সেফ মুডে রান করে ডাটা ট্রান্সফার করা হয়েছে- সেটি আমি ঠিক বুঝলাম’না তবে, আপনি উপরে বর্ণীত প্রক্রিয়া অনুসরণ করে কম্পিউটারের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করুন।
      Believe me, কেউ আপনার পিসি Safe Mode -এ চালু করেও ডাটা Transfer করতে পারবে না।
      কারণ, এই পাসওয়ার্ড আপনার কম্পিউটারকে- সেফ মোডে চালু হবার সময়েও নিরাপত্তা প্রদান করে।

      আপনি এই পদ্ধতি অনুসরণ করে থাকলে- Safe Mode-এ কম্পিউটার চালু করার সময়ে এই পাসওয়ার্ড চেয়ে একটি Message আসবে যেখানে, আপনার গোপন পাসওয়ার্ড না’লিখলে পিসি সেফ মোডেও চালু হবে’না।

      বিষয়টি আমি পরীক্ষা করেই বলছি। তবে- এখানে আরো কিছু ট্রিকস ব্যাবহার করা যায়।
      থাক, সেই বিষয়ে আমি পরে কোনো সময়ে আলোচনা করবো।
      আশাকরি, এই কৌশলটি আপনার কাজে আসবে।
      ধন্যবাদ আপনাকে, সাথে থাকবার জন্য। Turjo

  6. কাজী আব্দুল্লাহ বলেছেন

    Thank U 4 share this nice post.

    1. Turjo, Bangladesh বলেছেন

      You’re most welcome.

  7. zahid বলেছেন

    খুব ভাল পোস্ট । এটি করলে internet security কতটুকু পাওয়া যায় ? আমি বলতে চাচ্ছি, ইন্টারনেটের মাধ্যমে কেউ আমার
    আই পি হ্যাক করতে পারবে কি না ?? প্লিজ জানাবেব……।

    1. Turjo, Bangladesh বলেছেন

      জি’না, আমি এটির সাথে- আই পি হ্যাক করার কোনো সম্পর্ক দেখছি’না।
      সংক্ষেপে উদাহরণ দিতে গেলে…

      একটু লক্ষ করুনঃ
      আপনার এই প্রক্রিয়াতে আপনার অবর্তমানে অর্থাৎ আপনি না’থাকলে অন্যকেউ শত চেষ্টা করলেও (অপারেটিং সিষ্টেম সেটআপ ব্যাতীত) আপনার পিসি Open করতে পারবে’না।
      এখন আপনার এই পাসওয়ার্ড দিয়ে পিসি চালু করার পরে তো সুরক্ষার কথা আর আসছে না। মানে, আপনি তো নিজেই পিসির সামনে।
      তাই, কেউ আপনার IP হ্যাক করতে পারবে কি’না সেটা তো এই পাসওয়ার্ড দেখবে না।
      কেননা, আপনি পিসি চালু করার সাথে সাথে পাসওয়ার্ডের কাজ শেষ।

      তবে হ্যা, আপনার পিসি Local Aria Network [LAN] -এর অধীনে থাকলে এবং আপনার পিসিটি বন্ধ থাকলে, কেউ Remotely আপনার পিসিতে Access করতে পারবে’না।
      আশাকরি, বোঝাতে পেরেছি।

      ধন্যবাদ আপনাকে – Turjo, Bangladesh.

  8. কাস্টিং বলেছেন

    ধন্যবাদ, ভাল লাগলো

    1. Turjo, Bangladesh বলেছেন

      আপনাকেও ধন্যবাদ। সাথেই থাকুন।

  9. শুভ বলেছেন

    দারুন হয়সে তুর্য ভাই……… এটার অপেক্ষায় ছিলাম ……………… আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ তুর্য ভাই।

    1. Turjo, Bangladesh বলেছেন

      আপনাকেও ধন্যবাদ।
      লেখাটি পূর্বেই প্রকাশ করেছিলাম, আপনি দেখেছিলেন কি’না জানিনা। [১৮-ই ফেব্রুয়ারী ২০১২ –তে করা হয়েছিলো ]
      তবে আপনার কাজে আসছে জেনে ভালো লাগলো। 🙂

      প্রথম মন্তব্যদাতা হিসেবে আপনি পাচ্ছেন…

      কি পাচ্ছেন ভেবে বলুন তো ?

      1. শুভ বলেছেন

        হয়তবা আপনার মনের মাধুরী মেশানো ধন্যবাদ…………।।

        1. Turjo, Bangladesh বলেছেন

          ভালোই guess করেছেন।
          আমি অবশ্য…
          ঠিক আছে, আপনি যা ভেবেছেন- আপনাকে তাই-ই দেওয়া হলো। 😀
          আমার পক্ষ থেকে দেওয়া- মনের মাধুরী মেশানো ধন্যবাদ -টি, আপনি কল্পনা করে নিন। !!
          আশাকরি, এখন ভালোই লাগছে- কি’বলেন?
          :):)
          ধন্যবাদ আপনাকে, সময় দিয়ে সাথে থাকবার জন্য।

উত্তর দিন