টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের প্রোফাইল ভেরিফাইড

0 111

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের ফেসবুক প্রোফাইল ভেরিফাইড হয়েছে। শুক্রবার মধ্যরাতে ফেসবুক তাঁর প্রোফাইটি ভেরিফাইড ঘোষণা করে। এখন তাঁর পেজের মতো প্রোফাইলেও নীল রঙের ভেরিফাইড টিক চিহ্ন দেখা যাচ্ছে। বাংলাদেশে কারও ফেসবুক পেজ এবং প্রোফাইল এক সাথে ভেরিফাইড হওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম। এর আগে গত বছর ১৩ জুন শুক্রবার তাঁর অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ ভেরিফাইড করে ফেসবুক। তখন তাঁর পেজে লাইক সংখ্যা ছিল মাত্র ৫০ হাজার। এবং তৎকালে জাতীয় সংসদের সদস্য এবং মন্ত্রী পরিষদের সদস্য হিসেবে তিনিই প্রথম ফেসবুক পেজ ভেরিফাইডের স্বীকৃতি পান।

palak

ফেসবুক প্রোফাইল স্বীকৃতিতে বন্ধু, ভক্ত এবং ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ দিয়ে একটি স্ট্যাটাসও দিয়েছেন তরুণ এই প্রতিমন্ত্রী। বিগত সংসদ এবং এবারের মন্ত্রিসভার সর্বকনিষ্ঠ সদস্য পলক ১৯৮০ সালের ১৭ মে নাটোরের সিংড়া উপজেলার সিংড়া বাজার এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। ফয়েজ উদ্দিন আহমেদ ও জমিলা আহমেদের সন্তান পলক পাঁচ ভাই-বোনের সবার ছোট। তাদের ভাই-বোন সবার নামই চোখের প্রতিশব্দ দিয়ে-নয়ন, মণি, আঁখি, দৃষ্টি ও পলক।

ঢাকা কলেজ থেকে ২০০১ সালে এমএসএস এবং ২০০৩ সালে ঢাকার জাতীয় আইন কলেজ থেকে এলএলবি ডিগ্রি নেন পলক। এর আগে ১৯৯৯ সালে সিংড়া সরকারি জি এ ডিগ্রি কলেজ থেকে স্নাতক, ১৯৯৭ সালে রাজশাহী সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি এবং ১৯৯৫ সালে রাজশাহী বোর্ডের অধীনে সিংড়া দমদমা পাইলট স্কুল থেকে এসএসসি পাস করেন। রাজনীতির পাশাপাশি আইন পেশায় থাকা পলক নিম্ন আদালত পেরিয়ে আইনজীবী হিসেবে হাইকোর্টেও নিবন্ধিত রয়েছেন।

বর্তমানে পলকের ফেসবুকে পেজে লাইক সংখ্যা ৬ লাখ ৬৫ হাজার এবং প্রোফাইল ফ্রেন্ড লিস্টে রয়েছেন ৫ হাজার এবং তাঁকে ফলো করছেন প্রায় ৮৬ হাজার ফেসবুক ইউজার। পলকের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ দেখা যাবে https://www.facebook.com/zapalak এই ঠিকানায় এবং প্রোফাইল দেখা যাবে https://www.facebook.com/palakmp এই ঠিকানায়।

উত্তর দিন