ইন্টারনেট সেবায় এগিয়ে গ্রামীণফোন ও এয়ারটেল

0 76

স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট পিসিতে নিয়মিত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যার বিবেচনায় সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শীর্ষে এয়ারটেল। তবে মোট ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যায় এগিয়ে আছে শীর্ষস্থানীয় মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন। বিশ্বজুড়ে মোবাইল নেটওয়ার্ক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান এরিকসনের কনজিউমার ল্যাবের জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। ২০১৪ সালে
বাংলাদেশে ৫ হাজার স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট পিসি ব্যবহারকারীর মধ্যে পরিচালিত জরিপে জানা গেছে এ তথ্য। গতকাল বুধবার গুলশানে এরিকসন হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে এ তথ্য তুলে ধরা হয়। এরিকসনের নতুন নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি এবং জরিপের ফল তুলে ধরেন এরিকসন অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের হেড অব মার্কেটিং ওয়ার্নার ক্রিশ্চিয়ান এবং দক্ষিণ এশিয়ার হেড অব এক্সটার্নাল কমিউনিকেশন ব্রুচু টুরেল। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এরিকসন বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজ জানান, এটি শুধু গ্রাহক জরিপ, কোনো গবেষণা নয়। এরিকসনের নিজস্ব মতামতও নেই, শুধু গ্রাহকদের মতামতই উঠে এসেছে।

জরিপে দেখা যায়, মোট ইন্টারনেট গ্রাহকের মধ্যে ৩৫ শতাংশ স্মার্টফোন ব্যবহার করেন। মোট স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর মধ্যে ৩০ শতাংশ নিয়মিত ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন। নিয়মিত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর মধ্যে ৪১ শতাংশ এয়ারটেল নেটওয়ার্ক, ৩৩ শতাংশ রবি নেটওয়ার্ক, ২৯ শতাংশ গ্রামীণফোন নেটওয়ার্ক এবং ১৯ শতাংশ বাংলালিংক নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছেন। মোট মোবাইল গ্রাহকের মধ্যে ৩ শতাংশ ট্যাবলেট ব্যবহার করছেন। ট্যাবলেট গ্রাহকদের মধ্যে ৫ শতাংশ এয়ারটেল, ৩ শতাংশ গ্রামীণফোন এবং ২ শতাংশ বাংলালিংক ও ২ শতাংশ রবি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছেন। অন্যদিকে বাংলাদেশে মোট স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর মধ্যে (নিয়মিত ও অনিয়মিত ব্যবহারকারীর বিবেচনায়) ৫৭ শতাংশ গ্রামীণনফোন, ৪৫ শতাংশ এয়ারটেল, ৩৪ শতাংশ রবি এবং ২৮ শতাংশ বাংলালিংক নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছেন। ট্যাবলেট পিসির ক্ষেত্রে নিয়মিত ও অনিয়মিত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৪ শতাংশ। মোট গ্রাহকের মধ্যে ২১ শতাংশ এয়ারটেল, ১৬ শতাংশ গ্রামীণফোন এবং রবি ও বাংলালিংকের প্রত্যেক নেটওয়ার্কের ব্যবহারকারী ১১ শতাংশ।

মতবিনিময়কালে এয়ারটেলের নতুন রেডিও ডট সিস্টেমের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন এয়ারটেল বাংলাদেশের চিফ টেকনোলজি অফিসার আবদুস সালাম ও হেড অব কমিউনিকেশন মেহনাজ কবীর। তারা জানান, রেডিও ডট সিস্টেমের মাধ্যমে থ্রিজি নেটওয়ার্কে ইন্টারনেট ব্যবহারের সক্ষমতা দ্বিগুণ বাড়ানো সম্ভব। এটি একটি পূর্ণাঙ্গ বিটিএস ব্যবস্থা হিসেবে বড় বড় ভবনের ভেতরে একই সঙ্গে অনেক গ্রাহককে পূর্ণ গতির ইন্টারনেট সেবা দিতে সক্ষম। বাংলাদেশে মোবাইল ফোন অপারেটররা এই সিস্টেম ব্যবহার করে ইন্টারনেট সেবাকে আরও স্বাচ্ছন্দ্য করতে পারেন বলে তারা জানান। বর্তমানে ভবনের ভেতরে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা মোট গ্রাহকের ৭৫ শতাংশ। এরিকসন ২০২০ সালকে সামনে রেখে ৫জি প্রযুক্তির রেডিও সিস্টেম আনছে বলেও জানানো হয়।

উত্তর দিন