ফেসবুকে যে বড় সাতটি পরিবর্তন আসতেছে

0 73

ফেসবুকের ব্যবহারকারী বাড়ছে প্রতিদিনই । সে সঙ্গে বাড়ছে ফেসবুকের পরিসর। প্রতিনিয়ত নতুন কিছু যোগ হচ্ছে ফেসবুকে। ব্যবহারকারীদের আরো ভালো অভিজ্ঞতা দেওয়ার জন্য বেশি সুযোগ দিতে কাজ করে যাচ্ছেন ফেসবুকের প্রকৌশলীরা। ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ প্রতিষ্ঠানটির ডেভেলপার সম্মেলনে এমন সাতটি বড় পরিবর্তনের কথা বলেছেন, যেগুলো অচিরেই হাতে পেতে যাচ্ছেন ব্যবহারকারীরা। সিএনএন মানিতে এ-সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদনে এমন খবর পাওয়া গেল।

১. ৩৬০ ডিগ্রি ভিডিও

ইউটিউবে চালু হয়ে গেছে ৩৬০ ডিগ্রি ভিডিও। গুগল ম্যাপের স্ট্রিট ভিউতেও রয়েছে এই প্রযুক্তি। পর্দায় ক্লিক করে বা ড্র্যাগ করে আপনি যেকোনো দিক থেকে এসব ভিডিও দেখতে পারবেন। এ প্রযুক্তি চলে আসবে ফেসবুকেও। কারণ, মানুষ এখন প্রচুর ভিডিও শেয়ার করছে ফেসবুকে।

ntv

 

 

 

 

 

 

২. মেসেঞ্জারে কেনাকাটা

ফেসবুকে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে কেনাকাটা তো আছেই, ব্যবহারকারীদের জন্য ব্যাপারটা আরো সহজ করে দিতে চায়। সে কারণেই মেসেঞ্জারকে আপডেট করছে ফেসবুক। টাকা পাঠানোর অপশন চালু হয়ে গেছে। এখন ফেসবুক কাজ করছে ই-কমার্স সাইটগুলোর সঙ্গে মেসেঞ্জারকে সংযুক্ত করতে, যাতে ফেসবুকের মাধ্যমেই অনলাইনে কেনাকাটার কাজটা সারতে পারেন ব্যবহারকারীরা।

৩.

 অন্য অ্যাপ্লিকেশনের ব্যবহার

ফেসবুকের মে

৪. ভিডিও শেয়ারিংসেঞ্জারে অন্য অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে মেসেজ পাঠানো যায় না। এ ক্ষেত্রে পরিবর্তন আনতে চায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ফেসবুকের মেসেঞ্জার টিমের প্রধান ডেভিড মার্কুস বলেন, ‘মেসেঞ্জারে অন্য অ্যাপ ব্যবহারের সুযোগ করে দিতে চাই।’ এতে ব্যবহারকারীর সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশা করছেন মার্কুস।

এখন ফেসবুকেই ভিডিও আপলোড ও শেয়ারের ব্যবস্থা রয়েছে। ফেসবুকে আপলোড করা ভিডিও অন্যান্য সাইটেও শেয়ার করার অপশন চালু হচ্ছে সামনেই। ফলে আর ইউটিউবের মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হবে না ফেসবুক ব্যবহারকারীদের।

৫. খবর পড়া এবং কমেন্ট

ফেসবুক ফিডেই সরাসরি খবর পড়ার অপশন চালু হতে যাচ্ছে। এ বিষয়ে অনেক কাজ এগিয়ে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া কোনো নিউজ সাইটে যদি আপনি কমেন্ট করেন, সেটাও স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফেসবুকের ওয়ালে চলে আসবে। অর্থাৎ যাঁরা খবর পড়েন এবং সাংবাদিক, তাঁদেরকে ফেসবুকের ওয়ালেই ধরে রাখতে চাইছে কর্তৃপক্ষ। এ জন্য বাজফিড, এলিট ডেইলি, দ্য হাফিংটন পোস্ট এবং ফক্স স্পোর্টসের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে ফেসবুক।

৬. গ্যাজেট-বান্ধব

ফেসবুককে আরো বেশি গ্যাজেট-বান্ধব করে তোলা হচ্ছে। নিত্যনতুন গ্যাজেট পণ্য আসছে বাজারে, যার সবগুলোই ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো গ্যাজেট থেকেই যেন ফেসবুক ব্যবহার করা যায়, সে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ফেসবুকের ডেভেলপার ও প্রকৌশলীরা।

৭. ব্যবহারকারীদের তথ্য

ব্যবহারকারীরা ফেসবুকে কোন অ্যাপটি ব্যবহার করছেন, কতজন ব্যবহার করছেন এমন সব তথ্য পাবেন ফেসবুকের ডেভেলপাররা। ফেসবুক নিয়ে নতুন নতুন অ্যাপ তৈরিতে ব্যস্ত তাঁরা। বাড়ছে এর চাহিদাও। তাই সব ডিভাইসের জন্য উপযুক্ত অ্যাপ্লিকেশন তৈরির কাজে ব্যস্ত এখন ফেসবুক। অচিরেই নতুন নতুন আরো অ্যাপ নিয়ে আসছে সামাজিক যোগাযোগের এই জনপ্রিয় মাধ্যম।

উত্তর দিন