গুগল অনুবাদে ৪ লাখ বাংলা শব্দ যোগ হবে ২৬শে মার্চে

0 77

গুগল অনুবাদে স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে বাংলাকে সমৃদ্ধ করার একটি উদ্যোগ নিয়েছে গুগল ডেভলপার গ্রুপ বাংলা (জিডিজি বাংলা) এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি)৷ আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে একদিনে ৪ লাখ শব্দ যোগ করে নতুন রেকর্ড গড়তে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে৷ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের সুযোগ্য নেতৃত্ব ২৬ মার্চ সারাদেশে ৫০টির বেশি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে স্বেচ্ছাসেবীরা দেশব্যপী বাংলা অনুবাদের এই কার্যক্রমে অংশ নেবে৷

এসব ইভেন্ট প্রায় ৪ হাজার স্বেচ্ছাসেবক অংশ নিবে৷ দেশের বাইরে অস্ট্রেলিয়া, পর্তুগাল, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ দেশের বাইরেও কাজ করবেন আমাদের স্বেচ্ছাসেবীরা৷ আজ এ উপলক্ষে বিসিসি মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষনা দেন মাননীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক৷ তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাকে সবক্ষেত্রে সবার ওপরে রাখতে আমরা আরেকটি রেকর্ড করতে যাচ্ছি আমাদের স্বাধীনতা দিবসে। পৃীথিবীর যে যে প্রান্তেই আছেন না কেন, আসুন মাতৃভাষার জন্য একটু সময় দেই। আপনার, আমার সবার অংশগ্রহনে ২৬শে মার্চ গুগল অনুবাদে ৪ লাখ বাংলা শব্দ যোগ করে আমরা বাংলাকে নিয়ে যাব সবার ওপরে। আমরা এই কর্মসূচীকে বলছি ‘বাংলার জন্য চার লাখ’৷ আমরা পারবই। এজন্য সবার অংশগ্রহন আহবান করছি।’

জিডিজি বাংলার কমিউনিটি ম্যানেজার জাবেদ সুলতান পিয়াস বলেন, ‘২৬ মার্চ ওই দিন সর্বোচ্চ শব্দ সংযোজনকারী পাবেন সিঙ্গাপুরের গুগল অফিস ভ্রমণের সুযোগ।’ সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিসিসির নির্বাহী পরিচালক এস এম আশরাফুল ইসলাম, আইসিটি বিভাগের যুগ্ম সচিব সুশান্ত কুমার সাহা, বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের (বিডিওএসএন) সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসানসহ অনেকে।

২৬ মার্চের কর্মসূচী:
১. সারাদেশে বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন স্হানে ৫০টির বেশি ইভেন্ট আয়োজন হবে যেখানে স্বেচ্ছাসেবকেরা আসবেন গুগল ট্রান্সলেশনে বাংলার জন্য অবদান রাখতে৷ দেশের বাইরে অস্ট্রেলিয়া, পর্তুগাল, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ দেশের বাইরেও কাজ করবেন আমাদের স্বেচ্ছাসেবীরা৷
২. অনুষ্ঠানের মূল কেন্দ্র হবে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল৷ বিসিসি ক্যাম্পাসে এসে অংশ নেওয়া যাবে এতে৷
৩. এ ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি ও শহীদ মিনারের বিশেষ আয়োজন থাকবে৷ থাকবে ওয়াইফাই ইন্টারনেটের ব্যবস্থা৷
৪. আমরা আশা করছি সারাদেশে ৪ হাজার মানুষ সরাসরি অংশ নেবে আমাদের অনুষ্ঠানগুলোতে এসে৷ এই ইভেন্টগুলো আয়োজনে কাজ করছে প্রায় এক হাজার স্বেচ্ছাসেবী৷
৫. এর বাইরে আমরা আশা করছি বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে ভাষা ভাষাভাষী লোকজন স্বপ্রনোদিত হয়ে অংশ নেবে বাংলার জন্য চার লাখ কর্মসূচীতে৷

Comments
Loading...