এই মুহূর্তে পৃথিবীর সেরা এবং তাক লাগানো ট্যাবলেট গুলো!!

0 212

জীবন যাত্রাকে সহজ করার জন্য প্রযুক্তি পণ্যে এসেছে নানা পরিবর্তন। আগের সেই বড় কম্পিউটার এখন হয়ে এসেছে চাহিদার সাথে তাল মিলয়ে মানুষের হাতের মুঠোই। প্রযুক্তি নির্মাতারাও চাচ্ছে মানুষের উপযোগী করে সব ডিভাইস তৈরি করতে। ট্যাবলেট এরকমই এক ডিভাইস, যা আমাদের প্রযুক্তির সব চাহিদা মিটিয়ে দিচ্ছে ঘরে বাইরে।

এখন আপনি যদি নতুন একটা ট্যাবলেট কিনতে চান, তাহলে হাজারো ট্যাবলেটের মধ্যে আপনি দ্বিধায় পড়তে পারেন। তবে প্রযুক্তি নির্মাতারা আপনার চাহিদার কথা ভেবে আইওএস, অ্যান্ড্রোয়েড এবং উইন্ডোজ সব ধরণের অপারেটিং সার্ভিসের ট্যাবলেট তৈরি করছেন। ছোট, বড়, মাঝারি সব ধরণের চাহিদার ট্যাবলেট আপনি পাবেন।

ট্যাবলেটের এক্সট্রা কিছু সুবিধার মধ্যে আপনি ল্যাপটপের বিকল্প হিসেবে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারবেন। আবার ছোট পার্সের ভেতরও নিয়ে আপনি এটি চলতে পারবেন।

সর্বোদিক বিবেচনা করে পৃথিবীর সেরা ১০ ট্যাবলেটের রাঙ্কিং করা হয়। আসুন আমরা দেখি সেই রাঙ্কিং এর সব গুলো ট্যাবলেট সম্পর্কে।

পৃথিবীর সেরা ১০টি ট্যাবলেটঃ

১০) এনভিডিয়া শিল্ড ট্যাবলেটঃ

এনভিডিয়া শিল্ড ট্যাবলেটটি গেমারদের উপযোগী করে তৈরি। আপনি যদি ভালো গেমার হন তাহলে এই ট্যাবলেটটি আপনার জন্য অনেক ভালো হবে এবং এই ট্যাবলেটটির দামও অনেক কম। ট্যাবলেটটির গ্রাফিক্স এবং সর্বশেষ অপারেটিং গেম খেলার জন্য খুব পারফেক্ট। আপনি আপনার কম্পিউটার এবং টিভি যদি এনভিডিয়া সফটওয়্যারের হয়ে থাকে তাহলে আপনি এই ট্যাবলেট দিয়ে ভালোভাবে অপারেটিং করতে পারবেন।

দামঃ $৩০০ ডলার

৯) মাইক্রোসফট সারফেস প্রো 3:

মাইক্রোসফটের এই পাতলা ট্যাবলেটটি খুব দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠে। ১২ ইঞ্চির এই ট্যাবলেটটি ৮.১ অপারেটিং সমৃদ্ধ। আপনি যদি অফিসিয়ালি উইন্ডোজ ব্যবহারে আগ্রহী হন, তাহলে এই ল্যাপটপ হতে পারে আপনার প্রথম পছন্দ। এই ট্যাবলেটে আপনি ভালোভাবে কিবোর্ড ব্যবহার করতে পারবেন।

দামঃ $৭৯৯ ডলার

৮) গুগল নেক্সাস 7 (2013):

২০১৩ সালে বাজারে এসে এখনও ভালোভাবেই বাজার ধরে রেখেছেন গুগলের এই ট্যাবলেট। আপনি যদি কম দামে স্লিম একটি অ্যান্ড্রোয়েড ট্যাবলেট চান তবে আপনি গুগল নেক্সাস ৭ পছন্দ করতে পারেন। ব্যবহারকারীর তথ্য মতে মিনিমাম ৭ ঘণ্টা চার্জ পাবেন এই ট্যাবলেটে। যদিও গুগলের দেওয়া তথ্য মতে চার্জ থাকছে না, তবে আপনি ভালো সন্তুষ্ট থাকবেন এই চার্জে।

দামঃ $২০০ ডলার

Green Hosting

৭) সনি Xperia Z2 ট্যাবলেটঃ

সনি এক্সপেরিয়া জেড ২ প্রথম প্রজন্মের আইপ্যাড এয়ারের চেয়েও অনেক স্লিম এবং উজ্জ্বল। খুব মজার বিষয় হলো ট্যাবলেটটি ওটারপ্রুফ সেহেতু বৃষ্টি পানিতে আপনার চিন্তা করার নাই। সনির এই ট্যাবলেটে পাবেন বিনামূল্যে আট প্লেস্টেশন গেম এবং মুভি।

দামঃ $৫০০ ডলার

৬) আমাজন কিন্ডল ফায়ার HDX 8.9 (2014:

আমাজানের সর্বশেষ এই ট্যাবলেট পড়া এবং বিনোদেনের জন্য খুব চমকপ্রদ। আপনি যদি আমাজনের প্রাইম সদস্য এবং পূর্বের ক্রেতা হন তাহলে ফায়ার এফডিএক্স সহ স্পেসাল কিছু গিফটও পাবেন। ট্যাবলেটটি অনেক হালকা এবং অন্য সকল আমাজান পণ্যের চেয়ে অনেক ভালো মানের এবং সর্বোচ্চ ফিচার সমৃদ্ধ।  মুভি দেখা, ওয়েব ব্রাউজিং এবং শপিং এর জন্য ফায়ার এফডিএক্স আপনাকে সঠিক ব্যবহার অভিজ্ঞতা দিবে। তবে এই ট্যাবলেটে আপনি আমাজান অ্যাপ ষ্টোর ছাড়া গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে পারবেন না।

দামঃ $ ৩৭৯ ডলার

৫) গুগল নেক্সাস ৯:

গুগলের এই সর্বশেষ ট্যাবলেটে অনেক শার্প স্ক্রিন, চমৎকার অ্যালুমিনিয়াম নকশা এবং সর্বশেষ অ্যান্ড্রোয়েড চালিত। আপনি আই প্যাডের স্বাদ পাবেন এই ট্যাবলেটে। এই ট্যাবলেটটি সর্বশেষ অ্যান্ড্রোয়েড ৫.০ ললিপপ ভার্সন এবং এনভিডিয়া কে১ চিপ দ্বারা চালিত। নেক্সাস ৯ খুব মসৃণ, ফাস্ট এবং নাইস লুকিং।

বর্তমান দামঃ $৪০০ ডলার

green hosting

৪) স্যামসাং গ্যালাক্সি ট্যাব এসঃ

স্যামসাং গ্যালাক্সি ট্যাব এস সর্বশেষ অ্যান্ড্রোয়েড অপারেটিং চালিত দারুণ একটা ট্যাবলেট। স্যামসাং এর ট্যাব দারুণ স্লিম এবং মসৃণ। বিশেসজ্ঞ জানায় এটি পূর্বের তুলনায় এবং বাজারের অন্যান্য ট্যাবের চেয়ে অধিক মানসম্মত। ৮.৪ এবং ১০.৫ দুই মডেলের ট্যাবলেট পাবেন আপনি বাজারে।

বর্তমান দামঃ $৫০০ ডলার

৩) আই প্যাড মিনি ২:

আইপ্যাড মিনি ২ বেশ পূর্বে বাজারে আসলেও এখনও তার কদর সমপরিমাণ। আইপ্যাড মিনির সাথে খুব কম পার্থক্য আছে এই ফোনে। আইপ্যাড মিনি ৩ তে শুধু একটি গোল্ড রঙের বাটন এবং ফিঙ্গার প্রিন্ট অপশন। আইপ্যাড মিনি ২ খুব স্লিম, গরজিয়াস এবং একবার চার্জে অনেকক্ষণ ব্যাটরি ক্ষমতা। আপনি যদি খুব স্লিম এবং দারুণ লুকিং সম্পন্ন ট্যাবলেট চান তাহলে এটি আপনার বেস্ট চাহিদা হতে পারে।

বর্তমান দামঃ $২৯৯ ডলার (শুরু)

Green Hosting

২) আইপ্যাড এয়ারঃ

অ্যাপেলের প্রথম প্রজন্মের এই ট্যাবলেট অ-নে-ক হালকা, ফাস্ট এবং শক্তিশালি। আপনি যদি খুব গরজিয়াস এবং ফাস্ট ট্যাবলেট চান তাহলে আইপ্যাড এয়ার আপনার প্রথম পছন্দ হতে পারে।

বর্তমান দামঃ $ ৪০০ ডলার থেকে শুরু।

১) আইপ্যাড এয়ার ২:

অবশেষে অ্যাপল তার সবথেকে স্লিম এবং গরজিয়াস আইপ্যাড তৈরি করতে সক্ষম, যা আগের সকল মডেলকে হার মানাবে। প্যাডটি সুপার স্লিম এবং সুপার ফাস্ট। আপনি শুধু মাত্র হোম বাটন টাচ করে ট্যাবলেটটি লক করতে পারবেন। অ্যাপেলের এই প্যাডের জন্য অনেক অ্যাপ এর স্ক্রিন এর উপযোগী করে গড়ে তোলা।

বর্তমান দামঃ $৫০০ ডলার

কি কোন ট্যাবলেটটা পছন্দ করলেন? :)

(একটি প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদনা) 

ভালো লাগলে কমেন্ট, শেয়ার করুন, অন্যকে জানতে সহায়তা করুন।

Green Hosting

তথ্যসুত্র ও সংগ্রহঃ এখানে

লেখক- ইমরান তপু সরকার।

উত্তর দিন