মহানবীকে (সঃ) অবমাননার দায়ে বইমেলা তে রোদেলা প্রকাশনী বন্ধ।

0 137

মহানবী (সাঃ)কে অবমাননা করে বইমেলা তে নবী মুহাম্মদের (স.) ২৩ বছর বই প্রকাশ করায় রোদেলা প্রকাশনী স্টল বন্ধ করে দিয়েছে বাংলা একাডেমি।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে রোদেলা প্রকাশনী বন্ধ করে দিয়েছে বাংলা এডাডেমি। বইমেলার ১৬তম দিন সোমবার বিকেল ৩টায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গিয়ে স্টলটি বন্ধ দেখতে পাওয়া যায়। স্টলের সামনে প্রকাশনী প্রতিষ্ঠানের কাউকে পাওয়া যায়নি। স্টলটিকে বন্ধ করে দেয়ার পর সেখানে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

Rodela Boiরোদেলা প্রকাশনীর স্টলের সামনে দায়িত্বে নিয়োজিত এক পুলিশ সদস্য জানান, বাংলা একাডেমির নির্দেশ অনুসারে দুপুর ১২টায় স্টলটি বন্ধ করে তারা সেখানে অবস্থান করছেন ।

এ ব্যাপারে অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৫ এর সদস্য সচিব ড. জালাল আহমেদ জানান, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে এমন বই প্রকাশ করার অভিযোগ পাওয়ায় স্টলটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, রোদেলা প্রকাশনী এবারের বইমেলায় প্রকাশ করেছে ‘নবী মুহাম্মদের (স.) ২৩ বছর’ শীর্ষক একটি বিতর্কিত বই। বইটি মেলায় প্রকাশ হওয়ার পরপরই বিভিন্ন ওলামা সংগঠন বইটি বাজেয়াপ্ত এবং এর লেখক আলীকে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে আসছিল।

রোদেলা প্রকাশনী কর্তৃক প্রকাশিত ‘নবী মুহাম্মদের (স.) ২৩ বছর’ বইটি বাজেয়াপ্ত এবং এর লেখক আলীকে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ এবং যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান। অন্যথায় ইসলামী জনতা বইমেলা ঘেরাও করতে বাধ্য হবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন তারা। আজ এক বিবৃতিতে ‘নবী মুহাম্মদের ২৩ বছর’ বইয়ে মুহাম্মদাদুর রাসূলুল্লাহ (সা.) এর চরিত্র কলঙ্কিত করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তারা বলেন, বইটিতে পবিত্র কুরআন, পবিত্র মেরাজ ও মা হযরত আয়েশা রা. কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে রক্ত ক্ষরণ হচ্ছে। ইসলাম ও মানবতার দুশমন নাস্তিক-মুরতাদ গোষ্ঠী শেষ পর্যন্ত রাসূল (সা.) এর চরিত্রে কালিমা লেপন করেছে। কুরআনকে বলা হয়েছে বানানো ও উদ্ভট এবং পবিত্র মি’রাজকে বলা হয়েছে নবীজির কল্পকাহিনী। এছাড়া উম্মাহাতুল মু’মিনীন মা আয়েশা (রা.) কে ব্যাভিচারিনী হিসেবে আখ্যায়িত করে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছে। তাই অবিলম্বে রোদেলা প্রকাশনীর এই বাজেয়াপ্ত এবং লেখক আলীকে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

উত্তর দিন