উইন্ডোজ দশের সেরা ১০ সুবিধা

0 174

আসছে মাইক্রোসফটের নতুন অপারেটিং সিস্টেম (ওএস) উইন্ডোজ ১০। এখনো ব্যবহারকারীদের হাতে এটা না পৌঁছালেও এর সুবিধার কথা জানা হয়েছে অনেকেরই। চলতি বছরের শেষদিকে বাজারে আসবে নতুন উইন্ডোজ। উইন্ডোজ দশের সেরা দশ সুবিধা জানা যাক এখনই।
আবার এসেছে স্টার্ট মেন্যু      

ফিরে এসেছে স্টার্ট মেনু
এক সঙ্গে একাধিক উ​ইন্ডোউইন্ডোজের প্রচলিত সংস্করণগুলোর গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় ছিল স্টার্ট মেনু। বাম পাশে থাকা এ বোতামটি হঠাৎ সরিয়ে নেয় মাইক্রোসফট। উইন্ডোজ ১০-এ আবার ফিরে আসছে স্টার্ট মেনু। নতুন মেনু আসছে নতুন সুবিধা নিয়ে। এতে ক্লিক করলে দুটি সুবিধা পাওয়া যাবে। যার এক প্যানেলে থাকবে পিন করে রাখা সফটওয়্যার এবং অন্য পাশে থাকবে সর্বশেষ ব্যবহৃত সফটওয়্যারগুলো। এ ছাড়া থাকছে পাওয়ার বোতাম, হাইবারনেট বা স্ট্যান্ডবাই এবং বন্ধ করার সুবিধাও। এটি ইচ্ছেমতো স্মার্টফোন, ট্যাবলেট বা ডেস্কটপেও রাখা যাবে।
ডেস্কটপেও কর্টানা

মাইক্রোসফটের কণ্ঠ নিয়ন্ত্রিত ভার্চুয়াল ব্যক্তিগত সহকারী ‘কর্টানা’ এবার উইন্ডোজ ১০-এর ডেস্কটপ সংস্করণেও ব্যবহার করা যাবে। কণ্ঠ দিয়েই নিজের কম্পিউটার নিয়ন্ত্রণ করে নির্দিষ্ট ফাইল, ছবি ইত্যাদি সহজেই খুঁজে পাওয়া যাবে। এ ছাড়াও তাৎক্ষণিকভাবে ই-মেইলও পাঠানো যাবে।
এক্সবক্স অ্যাপ
এক্সবক্স ওয়ান কিংবা অন্যান্য গেম খেলার জন্য বাড়তি কিছুর প্রয়োজন নেই। এবার উইন্ডোজ ১০ সংস্করণেই থাকছে এক্সবক্স অ্যাপ। ডিজিটাল ভয়েস রেকর্ডার সুবিধাযুক্ত এ অ্যাপে পছন্দসই গেম খেলা যাবে এবং গেমের নানা অংশ চাইলে সংরক্ষণের সুবিধাও পাওয়া যাবে।
স্পার্টান ব্রাউজার
প্রথম কোনো উইন্ডোজে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার থাকছে না। বদলে থাকছে নতুন ব্রাউজার ‘স্পার্টান’। এতে পাওয়া যাবে কর্টানা ব্যবহারের সুবিধা।
উন্নত মাল্টিটাস্কিং
মাল্টিটাস্কিং সুবিধা ব্যবহার করে একাধিক উইন্ডোজ চালানোর সুবিধা যুক্ত হচ্ছে দশে। নির্দিষ্ট একটি ডেস্কটপের পাশাপাশি একাধিক ডেস্কটপ তৈরির এ বৈশিষ্ট্য নতুন এক মাত্রা দিয়েছে এ সংস্করণটিকে। এ সুবিধাটি অনেকটা অ্যাপলের ওএসএক্স অপারেটিং সুবিধার মতোই যাতে নিজের কাজের সফটওয়্যার কিংবা অ্যাপ সহজে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।
ইউনিভার্সাল অ্যাপস
সফটওয়্যারকে বিভাগভিত্তিক ব্যবহারের সুবিধা নিয়ে মাইক্রোসফট এবার চালু করেছে ইউনিভার্সাল অ্যাপস নামের নতুন সুবিধা। এর ফলে পুরো অপারেটিং সিস্টেম, ছবি, ভিডিও, সংগীত, ম্যাপ, বার্তা আদান-প্রদান এবং ই-মেইল, ক্যালেন্ডার ইত্যাদি সুবিধাগুলো ডেস্কটপের পাশাপাশি ট্যাবলেট, স্মার্টফোনেও ব্যবহার করা যাবে। এসব কাজের তথ্যগুলো জমা হবে ‘ওয়ান ড্রাইভ’-এ সংরক্ষিত হবে।
অফিস অ্যাপে টাচ সুবিধা
মাইক্রোসফটের জনপ্রিয় অফিস সফটওয়্যারে ওয়ার্ড, এক্সেল, পাওয়ার পয়েন্ট এবং আউটলুক ইত্যাদি প্রোগ্রামগুলোতে এবার যুক্ত হয়েছে স্পর্শ সুবিধা। এর ফলে এ প্রোগ্রামগুলো ডেস্কটপের পাশাপাশি স্মার্টফোন, ট্যাবলেটেও ব্যবহার করা যাবে।
কন্টিনিয়াম
হাইব্রিড ল্যাপটপ এবং ট্যাবলেটের উপযোগী উইন্ডোজ ১০ সংস্করণে যুক্ত হয়েছে নতুন এই সুবিধা। এর ফলে এ স্বয়ংক্রিয় সুবিধাটি নিজেই বুঝতে পারবে, কখন ব্যবহারকারী কি-বোর্ড কিংবা মাউস যুক্ত করছেন আবার কখন সেটি খুলে ফেলছেন। খুলে ফেললে চালু হবে টাচস্ক্রিন সুবিধাযুক্ত ট্যাবলেট উপযোগী ব্যবস্থা। এর সাহায্যে ভার্চুয়াল একধরনের কি-বোর্ড ব্যবহার করেই কাজ করা যাবে।
অ্যাকশন সেন্টার
সব ধরনের বার্তা বা নোটিফিকেশন এক জায়গায় পেতে এ সংস্করণে রাখা হয়েছে ‘দ্য অ্যাকশন সেন্টার’। এটি অনেকটা অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএসে চলা যন্ত্রে এক জায়গায় সব নোটিফিকেশন পাওয়ার সুবিধার মতোই।
ইউনিফায়েড সেটিংস
18

অন্য যন্ত্র ও কম্পিউটারের সেটিংস সুবিধা আলদা রাখতে উইন্ডোজ দশে থাকছে ইউনিফায়েড সেটিংস সুবিধা। এর ফলে একই অপারেটিং সিস্টেম বিভিন্ন যন্ত্রে ব্যবহার করলেও তেমন কোনো সমস্যা হবে না ব্যবহারকারীদের।

উত্তর দিন