দোকানের বা ব্যবসার হিসাব করার সফটওয়্যার বানিয়ে ফেলুন Microsoft Excel দিয়ে

1 338

অনেকেই দেখা যায় দোকান বা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের জন্য বিভিন্ন সফটওয়্যার ব্যবহার করেন কিন্তু আমি আজ দেখাব কিভাবে আপনি Microsoft Excel ব্যবহার করে অতি সহজেই আপনার যে কোন ধরনের দোকানের হিসাব রাখতে পারেন। যেমন ,মনিহারি দোকান,বইয়ের দোকানক,ঔষধের দোকান,ইলেক্টিক দোকান, কাপড়ের দোকান ইত্যাদি।
প্রথমেই বলি আমি এই টিউন টি তৈরি করতে Microsoft office 7 ব্যবহার করেছি । তাই আপনি যদি অন্য ভার্শন ব্যবহার করেন তবে চিত্রের সাথে কিছু টা অমিল হতে পারে। তবে মূল বিষয় কিন্তু একই। যাহোক আমি আজকে যে বিষয় টা দেখাব তা হল আপনি শুধু আপনার পন্যের নাম,পরিমাণ, দর বসিয়ে মোট টাকার পরিমাণ বের করতে পারবেন কোন ক্যালকুলেটর ব্যবহার ছাড়াই !এর পর কমিশনের ঘরে আপনি কত পারসেন্ট কমিশন দিবেন তা বসিয়ে কমিশন ও নিট টাকার পরিমাণ টাকার পরিমাণ বের করতে পারবেন এবং শুধু গ্রাহকের প্রদত্ত টাকা বসিয়ে দিলেই বের হবে গ্রাহক কে কত টাকা ফেরত দিতে হবে বা আপনি গ্রাহকের কাছে আর কত টাকা পাবেন ।পুরো টিউন না পরলে কিন্তু কিছুই বুঝতে পারবেন না তাই মনোযোগ দিয়ে পুরু বিষয় টা বুঝতে চেষ্টা করুন। প্রথমেই Microsoft Excel চালু করুন তার পর চিত্রের মতলিখে ফেলুন

আমি বাংলায় লিখেছি আপনি চাইলে যে কোন ভাষায় লেখতে পারেন ভাষা কোন প্রবলেম না ! লক্ষ করুন, এখানে
পন্যের নাম মানে আপনি কি বেচলেন তার নাম। পরিমাণ মানে কয়টা বেচলেন। দর মানে একক প্রতি মুল্য কত। মোট টাকা মানে মোট কত টাকা হল।কমিশনের হার মানে কত পারসেন্ট কমিশন দিবেন।কমিশন মানে মোট কত কমিশন দিলেন।নিট টাকা মানে মোট টাকা থেকে কমিশন বাদ দিয়ে আপনি কত টাকা নিবেন।প্রাপ্ত টাকা মানে গ্রাহক আপনাকে কত দিয়েছে । গ্রাহক পাবে মানে গ্রাহকে কত টাকা ফিরিয়ে দিতে হবে
আশা করি এই টুকু লিখতে কোন সমস্যা হয়নি ,হওয়ার কথাও না ।এবার শুধু সূত্র বসানোর পালা ! আর হ্যাঁ সূত্র কিন্তু কেস সেনসেটিভ অর্থাৎ বড় হাতের মানে ক্যাপিটাল লেটারে অক্ষর বসাতে হবে। প্রথমেই D2 সেল এ কার্সর রেখে ক্লিক করুন এবং = প্রেস করে(সুত্র লেখার পুর্বে অবশ্যই = চিহ্ন দিতে হবে) সূত্র লিখুন =B2*C2 এবার F2 সেল এ সূত্র লিখুন =D2*E2% এবার G2 সেলে সূত্র লিখুন     =D2-F2। এবার I2 সেলে সূত্র লিখুন=H2-G2 বুঝতে সমস্যা হলে নিচের ছবিটি দেখুন আশা করি বুঝতে পারবেন।

কাজ প্রায় শেষের দিকে। :lol:
এবার আমরা যে কাজটি করব তা হল বারবার যাতে সূত্র প্রয়োগ করতে না হয় সেজন্য প্রথমে D2 সেলে কার্সর নিয়ে ক্লিক করে কার্সর একটু নিচে ডান দিকের কোনায়  নিয়ে আসুন   চিত্র দেখুন

ঠিক চিত্রের মত  যায়গায় পয়েন্টার নিয়ে যান(যদিও স্কিন শট নেয়ার সময় মাউস পয়েন্টার + চিহ্ন ধারন করেনি কিন্তু আপনি যখন করবেন তখন অবশ্যই হবে)  কার্সর যখন + চিহ্ন ধারন করবে তখন মাউসের বাম বাটন চাপ দিয়ে নিচের দিকে টানতে থাকুন নিচের দিকে যত দূর সম্ভব! এভাবে বাকী তিনটি সেল অর্থাৎ F2,G2,I2 তে করুন, তা হলে বিষয় টি নিচের মত হবে।

মনে রাখবেন নিচের চিত্রের মত যদি নাহয় তাহলে কিন্তু হবেনা :roll: সো বি কেয়ারফুল। আর যদি হয় তা হলে কোন কথা নেই এবং আপনার কাজ শেষ ।
তো চলুন শুরু করি – মনে করি একটা মোবাইলের দাম ৫১০০ টাকা এবং তার উপর ৪% কমিশন আছে । গ্রাহক ২টি মোবাইল নিয়েছে আর আপনাকে ১০০০০ টাকা দিয়েছে। এবার যেভাবে হিসাব করবেন-
প্রথমে পণ্যের নাম মোবাইল লিখুন, পরিমাণ ২ লিখুন দর ৫১০০ লিখুন। কি ম্যাজিক ? ঘাবড়াবেন না ।এবার কমিশনের হারের ঘরে ৪ লিখুন আর প্রাপ্ত টাকার ঘরে ১০০০০ লিখুন । ব্যস কাজ শেষ :-P । দেখুন তো চিত্রের মত হল কি না?

ভালো ভাবে স্কিনে তাকিয়ে দেখুন তো আপনি লিখতে যত দেরি করেছেন আপনার প্রজেক্ট হিসাব করতে তত দেরি করেছে কি না! দেখলেন তো কত সোজা এভাবে আপনি আরও উদাহরন দ্বারা হিসাব করে দেখতে পারেন। কাজ শেষ হলে Ctrl+S প্রেস করে ফাইল টি অবশ্যই সেভ করে রেখে দিন। আরা হ্যাঁ নাম্বার গুলো অবশ্যই ইংরজিতে লিখবেন।
অনেকেই মনে করে এক্সেল অনেক কঠিন কিন্তু বাস্তবে এক্সেল অনেক মজার একটা জিনিস ! সময় পেলে এক্সেল নিয়ে আরও বেশ কিছু টিউন করব ।নেক্সট টিউন করব কি ভাবে সহজেই পরিক্ষার ফলাফল শিট তৈরি করা যায়, সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন
সমস্যা হলে আমাকে ফেইসবুকে প্রশ্ন করতে পারেন।

1 টি মন্তব্য
  1. sabbir islam বলেছেন

    ধন্যবাদ ভাইয়া শেয়ার করার জন্য।

উত্তর দিন