ডাক্তার কিংবা ইঞ্জিনিয়ার নাকি ওয়েব ডেভলপার হবেন?

1 80

ডাক্তার/ইঞ্জিনিয়ার নাকি ডেভলপার হবেন?

আমি ফয়সাল, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এ ডিপ্লোমা করছি এনপিআই থেকে। নিজের বিবেগ থেকে আজ আপনাদের আমি একটা সহজ হিসাব দেখাব। চলুন শুরু করি।

মনেকরি,
একটি ছেলের নাম “সোহাগ”, সে এইচএসসি শেষ করে ডাক্তার হওয়ার জন্য চেষ্ঠা করছে। মানে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে/মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হওয়ার জন্য সব রকম প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।

আর একজন ছেলে যার নাম “লাবিব”, সে এখন ডিপ্লোমা করছে কোন একটা সাবজেক্টে। ৩-৪ বছর পর সে ডিপ্লোমা শেষ করে ২য় বা ৩য় শ্রেনীর কর্মচারী হিসাবে বাংলাদেশের কোন একটি প্রতিষ্ঠানে চাকুরী নিবে ২০-৩০ হাজার টাকা বেতনে (কাল্পনিক)।

অপর দিকে সোহাগ সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে সুযোগ না পেয়ে ২০-৩০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ভাল কোন মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হয়ে গেল এবং যথারীতি ৪ বছর পরে সে M.B.B.S ডাক্তারের সনদ নিয়ে কোন মেডিক্যালে ও বিভিন্ন ছোট ছোট ওষুধ বিক্রির দোকান গুলোতে বসা শুরু করল।
দেখি সে মাসে কত টাকা আয় করতে পারে, যদিও সে ৪ বছরে ২০-৩০ লক্ষ বা ২৫ লক্ষ একাডেমিক খরচ সহ ৩০ লাখ টাকা ব্যয় করে ডাক্তার হয়েছে।

ধরি, তার ভিজেট ৫০০৳ এবং সে ১ ধন্টায় রোগী দেখে ৬ টা।
তাহলে, তার এক ঘন্টায় আয় ৫০০*৬=৩,০০০৳
(সে কি পুরো টাকায় পায় নাকি কিছু সেই মেডিক্যাল কিংবা ওষুধের দোকান মালিককেও দিতে হয়? ধরলাম সে পুরো টাকায় পায়।)

এখন সে যদি প্রতিদিন ৬ ঘন্টা করে মাসে ২৫ দিন রোগী দেখে তবে তার মাসে আয় হয়ঃ
৫০০*৬*২৫=৭৫,০০০৳ (বেশি/কম হতে পারে)


এখন ফিরে আসি সেই ডিপ্লোমা করা লাবিবের কাছে।

লাবিব ৩ সেমিষ্টার এর পর সিন্ধান্ত নিল সে একজন #ওয়েব_ডেভলপার হবে। তার সেই “X-IT” নামের কোন প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হল এবং কঠোর পরিশ্রম করে ৪-৫ মাস পর ১৫-২০ হাজার টাকা খরচ করে একজন সাধারণ মানের ওয়েব ডেভঃ হল। সে এখন বিভিন্ন মার্কেট প্লেস এ কাজ করে, তার কিছু চিনা জানা ফিক্সড ক্লায়েন্ট ও আছে। এভাবে সে মাসে ২৫-৩০ হাজার টাকা আয় করে।
১-১.৫ বছর পর সে ভাল মানের অভিক্ষ ডেভঃ হয়ে উঠল অনেক কষ্ট/পরিশ্রম করে।
এখন তার ওডেস্ক, ইলেন্স বা অন্য মার্কেটপ্লেস গুলোতে আওয়ারলি রেট ১০-১৫ ডলার (মিনিমাম) :P।
তাহলে সে প্রতি ঘন্টায় আর করে ১০ ডলার আর এভাবে করে প্রতিমাসে দৈনিক ৮ ঘন্টা কাজ করে আয় করেঃ
8*10*25=2000$*78=1,56,000৳ (min)
[মার্কেট প্লেস গুলোতে গেঁটে গুঠে দেখেন সত্যি নাকি মিথ্যা]


পরিশেষে দেখা গেল সোহাগ ৩০ লাখ টাকা ব্যয় করে ৪ বছর পর থেকে ৭৫ হাজার কিংবা ১ লাখ টাকা আয় করে আর তার বিপরীতে লাবিব ১৫-২০ হাজার টাকার কোর্স করে কঠোর পরিশ্রম করে ১-১.৫ বছর পর থেকেই মাসে ১.৫ লাখ টাকা আয় করতে পারে যদি ২ ক্ষেত্রেই ২ জন চরিত্র কঠোর পরিশ্রমি হয় অন্যথায় সুপার অলস হলে মাসে ০৳ টাকাও কামাতে পারে ২ জন্য চরিত্র।

তাহলে দেখা গেল একজন ছেলে/মেয়ে চাইলেই সে ওয়েব ডেভঃ এ তার স্মার্ট ক্যারিয়ার গড়তে পারে বাসায় বসেই অল্প খরচে। এই পেশায় নেই কোন বস নেই কোন ৯-৫ টার সিডিওল। নিজের বাসায়/বিছানায় বসেই সে শুরু করতে পারে।

তাহলে আপনি কি ডাক্তার কিংবা ইঞ্জিনিয়ার নাকি ওয়েব ডেভঃ হতে চান? ইচ্ছা আপনার আর তার ফল বা সুবিধা ভোগও আপনিই করবেন। আজই সিন্ধান্ত নিন কি হিসাবে আজ থেকে 1.5-4 বছর পর নিজেকে দেখতে চান।


1 টি মন্তব্য
  1. MimosaHaque বলেছেন

    valo legehce:D

উত্তর দিন