সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং হতে পারেন আপনার আয়ের সবচেয়ে ভালো পথ আসুন শুরু করি ।

1 91

সময়য় এখন সামাজিক মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ! মানুষ টিভি চেনেল থেকে বা পত্র পত্রিকা থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সময় ব্যায় করছে বেশি এটি হতে পারেন ফেসবুক, টুইটার, লিঙ্কডিন বা ইউটিউব অথবা ব্লগ , ফোরাম ইন্টারনেট সহজলভ্য হয়ে যাওয়ার কারনে এবং উক্ত মাধ্যম গুলো ফ্রি ব্যাবহার সহয এবং মোবাইল দিয়ে ব্যাবহার করার সুবিধা থাকার কারোনে দিন দিন এর চাহিদা বারছে বারছে ব্যাবহারের পরিমান ইউসার। তাই এখন পন্যের বা সেবার বিজ্ঞাপন দেয়ার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অনেক গুরুত্বপূর্ন বিশেষ করে আপনার গ্রাহক যদি হয়ে থাকে ১৮ থেকে ৩০ বছর বয়েষের মাধ্যমে বা আপনার পন্য ও সেবা যদি হয়ে থাকে আইটি ভিত্তিক যেমন মোবাইল ফোন বা ই-কমার্স বিত্তিক কিছু তাহলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিজ্ঞাপনের জন্য সবচেয়ে ভালো মাধ্যম। কিন্তু এখানে শুধু পেইড বিজ্ঞাপন দিলেই ভালো ফল পাওয়া যায় না । যারা এড ফার্ম এর সাথে যরিত তারা হয়ত যানেন বিজ্ঞাপ বলতে অনেক কিছু বোঝায় যেমন কোন মুভি তে আপনি দেখছেন নায়ক IPHONE 5S MOBILE USE করছে এটি কিন্তু বিজ্ঞাপন এর  ফলাফল কিন্তু ট্রেডিসনাল বিজ্ঞাপন থেকে বেশি। বিজ্ঞাপন বা প্রচারনা একটি অনেক বড় বিষয় এর উপর অনেকে ৪/৫ বছরের কোর্স ও করে পূর ব্যাপারে ধারনা লখে দেয়া সম্ভব না তো যায় হোক আমাদের আজকের বিষয়ে আসি আজকে আমারা কথা বলব সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং নিয়ে।

সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং জিনিশ টা কি ?
সহয ঊদাহরন দিয়ে বোঝাই ধরেন আপনি হস্টিং কিনবেন প্রথমে কি করেন গুগোল এ সার্চ দেন তারপর ফেসবুকে কারো কাছে জিজ্ঞেসা করেন ফরাম বা ব্লগে অই কম্পানি সম্পর্কে জানতে চেস্টা করেন বা তার দেনপেজ চেক করেন তার আগের ক্লাইন্ট কি বলে তাদের সম্মপর্খে। ৮০ ভাগ মানুষই এই কাজ করে। আপনি যদি এক্টিভ থাকেন ব্লগে ফরামে সোসাল মিডিয়া তে তাহলে এই ৮০ভাগ ক্লাইন্ট পেতে আপনার বেগ পেতে হবে না আর এই এক্টীভ থাকাই সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং।
বর্তমান সময়ে খুবি গ্রুরুত্বপুর্ন বিষয় এই সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং কারোন মার্কেটিং ছাড়া যত ভালো পন্য বা সেবাই হক সফলতা পায় না। কথায় আছে যা দেখা যায় তাই বেচা যায়।
তো আসুন যানি কিভাবে সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং শুরু করা যায় আমরা তো ফেসবুকে বেস সময়য় দেই আসুন কাজে লাগাই সময়। সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং শিখতে হলে ভালো কাজ করতে হলে বেশ কিছু জিনিস দরকার আর একটা টিম হলে ভালো কাজ করা যায়।
শুরু করা-
আপনাকে ব্লগ লিখতে জানতে হবে প্রচুর লেখুন সব ব্লগে প্রচুর পরুন এবং লেখুন ফেসবুক একাউন্ট করুন যত পারেন এক্টিভ থাকুন নিয়মিত পোস্ট দিন। টুইটার সহ অন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গূলোতে এক্টিভ থাকুন। পারলে নিজে এক্টী ফ্যান পেজ করুন এবং একটি ব্লগ ও করুন তাতেও এক্টিভ থাকুন । টুক টাক কিছু কোড শিখুন ই-মাইল মার্কেটিং এর জন্য। একটা ক্লাইন্ট লিস্ট করুন মেইল সহ। এটা করার কিছু উপায় আছে বিস্তারিত পরের পোস্টে দেব।
কাজ করা-
টিম হলে কাজ সবাই ভাগ করে নিন যেই পড়দাক্ট এর মার্কেটিং এ নেমেছেন তার সম্মপরখে জানুন ভালো করে তার বিকল্প গুল জানুন এবং তার পসিটিভ নেগিটিভ সম্মপরখে জানুন। এবার ছরিয়ে দিন সমস্ত সামাজিক মিডিয়াতে প্রতিটা কমেন্ট এর রিপ্লাই দিন প্রতিদিন এক্টিভ থাকুন। ভিসিতর রিপ্লাই পড়দাক্ট সেল এর ট্র্যাক রাখুন। ইমেইল মার্কেটিং করলে তার ও ট্র্যাক রাখুন । কাজে হাত দেয়ার আগে প্ল্যান করে নিন প্ল্যান র প্ল্যান বি আরকম দুই তিন টা প্ল্যান করবেন যাতে এক্টায় ফল ভালো পাওয়া না গেলে এর একটি কাজে লাগানো যায়। আত্যবিস্যাশি হোন। এই কাজগূল বিস্তারিত কিভাবে করা যায় তা নিয়ে পরে পোস্ট দিব।
আয় কেমন করা যায়-
আমরা সবাই আয় নিয়ে ভাবি আগে কাজ নিয়ে পরে আসোলে আর ঊল্ট করতে না পারলে সফলতা আসে না কাজ নিয়ে ভাবুন আগে আয় নিয়ে পরে ফেসবুক বানানোর আগে এর আয় নিয়ে ভাবেনি জুকার্বার্গ ভেবেছে কাজ নিয়ে যাই হোক। ভালো কাজ করতে পারলে সব যায়গা থেকে ভালো আয় করা যায়। সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং এর উপররে চাকরি পাওয়া যায় এখন BD Jobs এ Search করলে তা পাবেন বেতন দেখে নিন। আর ফ্রিলেন্সার হিসেবে ভালো টিম থাকলে ৫০০০ ডলার মাসে আর্ন করতে পারবেন মিনিমাম। বায়ার এর অভাব নেই মার্কেটীং লাইনে যদি কাজ ভালো পারেন।

বাকিটা আগামি পর্বে সেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন । ধন্যবাদ।

 

কাজ করতে বা কাজ শিখতে চাইলে আমাদের গ্রুপে যয়েন করতে পারেন – আমাদের গ্রুপ

পোস্টটি সর্ব প্রথম টেকসময় ব্লগে প্রকাশিত

1 টি মন্তব্য
  1. MD. Abdullah বলেছেন

    অসাধারন একটি পোস্ট শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং সম্পর্কে বেশ সম্যক ধারনা পাইলাম।

উত্তর দিন