মাষ্টার অফ এস ই ও সিরিজ (প্রথম-খণ্ড) সার্চ ইঞ্জিনের কাযর্প্রণালী – পঞ্চম অধ্যায়

0 151

আগের পোস্টঃ চতুর্থ অধ্যায়

আমরা প্রথম অধ্যায় এ যা যা করেছিলামঃ
• সার্চ ইঞ্জিনের ব্যাবহারকারিদের চিহ্নিত করেছি।
• কোন পণ্য / সেবার জন্য কোথায় প্রচার করা উচিত তা জেনেছি।
• ক্লায়েন্টকে টার্গেট করার পদ্ধতি জেনেছি।
• এস.ই.ও ফ্রেন্ডলি সাইট তৈরি করার টিপস পেয়েছি।
• সার্চ ইঞ্জিন এর সাথে আপনার সম্পর্ক তৈরি করার পদ্ধতি জেনেছি।
• সার্চ ইঞ্জিনগুলোর অভ্যন্তরীণ সম্পর্কের কথা জেনেছি।
• অরগানিক এবং পেইড রেজাল্ট সম্পর্কে ধারনা পেয়েছি।
• ক্রাউলার বা রোবট সম্পর্কে জেনেছি।
দ্বিতীয় অধ্যায় এ যা যা করেছিলামঃ
• সার্চ ইঞ্জিন সমূহের সাধারণ সংযোগ খুজে বের করেছি।
• মেজর এবং মিনর সার্চ ইঞ্জিন সম্পর্কে জেনেছি।
• অরগানিক,পেইড রেজাল্ট ও ওয়েব ডিরেক্টরি সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা পেয়েছি।
• ইঞ্জিনের মধ্যে উপযুক্ত স্থান খুজে বের করেছি।
• মেটা সার্চ ইঞ্জিন সম্পর্কে ধারনা পেয়েছি।

তৃতীয় অধ্যায়ে যা যা করেছিলামঃ
• সার্চ ইঞ্জিন এর রেজাল্ট পেইজ পরিচিতি (বিস্তারিত)
• সোনালী ত্রিভুজ (Golden Triangle)সম্পর্কে এবং রেংকিং এ এর প্রতিক্রিয়া জানবো।
• বাছাইকৃত ফলাফলের (Blanded Search) সাথে পরিচিত হবো।
• সোনালী ত্রিভুজে বাছাইকৃত ফলাফলের কাযর্ক্রম বের করবো।
• বাছাইকৃত ফলাফলের প্রতিক্রিয়া জানবো।

এবং চতুর্থ অধ্যায় এ যা যা করেছিলামঃ
• আপনার সত্যিকারের চাহিদা অনুযায়ী ট্রাফিক এর সন্ধান করেছি।
• স্প্যাম এর ক্ষতিকর দিক গুলো জেনেছি।
• বিহেবিওরাল সার্চ যেভাবে রেংকিং এ প্রভাব ফেলে, তা সম্পর্কে ধারনা পেয়েছি।
• ইনটেন্ট-ড্রাইভেন সার্চ এর সাথে পরিচিত হয়েছি।
• আপনার সুবিধায় ভার্টিকেল সার্চ ইঞ্জিন ব্যাবহার এর পদ্ধতি জেনেছি।
• লোকাল সার্চ রেজাল্ট এ অবস্থান গ্রহন এর ফর্মুলা পেয়েছি।

জেনে নিন সার্চ রেজাল্টকে কিভাবে পরিচালনা করা হয়।
• বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনে পেইড প্রোগ্রাম ব্যাবহার করা।
• সাধারণ ইউজার থেকে একটু ব্যাতিক্রমভাবে সার্চ করা।
• আপনার এস ই ও তে পরিবর্তন আনার জন্য অ্যাডভান্সড অপারেটর।
• ভার্টিকেল সার্চ ইঞ্জিনে নির্দিষ্ট ধরনের ফাইল টাইপ (Extension) খুজে বের করা।
• উচ্চ ট্রাফিক এবং উচ্চ কনভার্সন এর মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারা।
• দীর্ঘমেয়াদীভাবে অগ্রসর হওয়ার জন্য কনভার্সন গ্রহনের প্রয়োজনীয়তা।

প্রথমেই আমরা এস ই ও এর ধাপগুলোর একটি হাইলাইটস দেখি।


আমরা গুগোল, ইয়াহু এবং মাইক্রোসফট লাইভ এর পেইড প্রোগ্রাম সম্পর্কে এই খণ্ডের (সার্চ ইঞ্জিনের কাযর্প্রণালী) দ্বিতীয় অধ্যায়ে হাল্কা ধারনা পেয়েছিলাম। আপনি যদি পেইড প্রোগ্রাম না ও ব্যাবহার করেন, তবুও আপনার এটি সম্পর্কে জানা প্রয়োজন। কারন, ক্লায়েন্ট এর সাইট এস ই ও করলে কোন প্রোজেক্টের জন্য আপনি কেমন অর্থ নেবেন, সেটি ঠিক করতে পারবেন পেইড রেজাল্ট থেকে। আপনি ভাবতে পারেন যে, বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনগুলোর পেইড প্রোগ্রাম এর মধ্যে পার্থক্য কি?

আমি ছোট্ট একটি উদাহরণ দিই। টেলিভিশন এ যে বিজ্ঞাপন প্রচার করা হয়, সবগুলোর মূল্য কি সমান? অবশ্যই না। কোন কোন চ্যানেল এ বিজ্ঞাপনের মূল্য বেশী, কোনটিতে কম। নির্দিষ্ট এলাকার প্রাইভেট চ্যানেলগুলোতে আরও কম। আরও সহজ কথায় বলতে গেলে, যে চ্যানেল যত বেশী জনপ্রিয়, সেখানে বিজ্ঞাপন দিতে খরচও তত বেশী। একই কথাটি সার্চ ইঞ্জিনের পেইড বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রেও সত্য। গুগোল থেকে কম ট্রাফিক পরিবাহী সার্চ ইঞ্জিনগুলোতে পেইড রেজাল্ট প্রদর্শনের খরচও তুলনামূলকভাবে কম। তথাপি, এসব সাইট থেকে আপনি ভিজিটরও পাবেন কম। এছাড়াও আপনি যে কিওয়ার্ড এর উপর বিজ্ঞাপন (পেইড রেজাল্ট) প্রচার করতে চাচ্ছেন, সেটির জনপ্রিয়তার উপরও মূল্য নির্ভর করবে। প্রধান তিনটি সার্চ ইঞ্জিনে আপনি সবচেয়ে বেশী পরিমান মূল্য বিড (নিলাম ডাক) করলে আপনার সাইট প্রথমে দেখাবে। তবে এটি মাথায় রাখতে হবে যে, সবচেয়ে বেশী ভিজিটর পাওয়ার জন্য আপনাকে যত বেশী সম্ভব সার্চ ইঞ্জিনে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করতে হবে।
এই অধ্যায়ের প্রথমে আমরা বর্ণনা করবো যে, কিভাবে আপনি পেইড রেজাল্ট কিনবেন। কেমন খরচ পড়বে, এবং কারা আপনার বিজ্ঞাপন দেখবে।

গুগোল অ্যাডওয়ার্ডস
আমরা আগেই জেনেছি যে, গুগোল অ্যাডওয়ার্ডস (adwords.google.com) হচ্ছে গুগোল এর পেইড প্রোগ্রাম। এটি আপনাকে আপনার নিজস্ব বিজ্ঞাপন তৈরি করার, কিওয়ার্ড নির্ধারণ করে দেয়ার, বিড প্রাইস নির্ধারণ করার এবং বাজেট ব্যাবস্থাপনার সুবিধা দিয়ে থাকে। আপনার অ্যাড তৈরি করতে কোন সমস্যা হলে আপনাকে সাহায্য করার জন্যও এর একটি অপশন রয়েছে। আপনার নির্ধারণ করা কিওয়ার্ড যুক্ত কুয়েরিতে যদি কেউ সার্চ করে, তাহলে আপনার বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবে, এবং শুধুমাত্র তখনি টাকা কাটবে, যখন আপনার বিজ্ঞাপনে কোন ইউজার ক্লিক করবে। আপনাকে কত টাকা দিতে হবে সেটা নির্ভর করবে আপনি যে কিওয়ার্ড দিয়েছেন সেটি কতোটা জনপ্রিয়। সেটির চাহিদা যত বেশী হবে, দামও তত বেশী হবে।

গুগোল অ্যাডওয়ার্ডস এ যাওয়ার পর এরকম একটি ক্যাম্পেইন শুরু করতে পারবেন। প্রথমে আপনার ক্যাম্পেইন এর একটি নাম (Example: PDF Tutorial Zone) দিন।

Type বা প্রকার – এখানে আপনার বিজ্ঞাপনটি কোন ধরনের হবে তা জানতে চাওয়া হয়েছে। প্রথম অপশনটি (Search Network with display Select) সিলেক্ট করলে আপনার বিজ্ঞাপনটি সার্চ রেজাল্ট এ দেখাবে, পাশাপাশি বিভিন্ন সাইটে Google Adsense এর PPC বিজ্ঞাপনের মাধ্যমেও দেখাবে।
Location বা অবস্থান- এখানে geo-targeting সিস্টেম (যেটি নিয়ে আমরা পূর্বেও বলেছিলাম) ব্যাবহার করা যায়। All countries and territories দিলে সকল দেশের মানুষ আপনার বিজ্ঞাপন দেখবে। আপনার পণ্য যদি আন্তর্জাতিকভাবে সরবরাহ দেয়া সম্ভব হয়, তাহলে এটি ব্যাবহার করতে পারেন। Bangladesh দিলে শুধুমাত্র বাংলাদেশের ইউজাররা আপনার বিজ্ঞাপন দেখবে এবং Let me choose… থেকে আপনি নির্দিষ্ট কয়েকটি দেশ নির্ণয় করে বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন।

Languages বা ভাষা – এই অপশনে আপনি সিলেক্ট করে দিতে পারেন, কোন কোন ভাষাভাষী ইউজারের কাছে আপনি বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবেন।
Budget – এই অপশনের আপনি নির্ধারণ করে দেবেন যে এই বিজ্ঞাপনের জন্য প্রতিদিন আপনার বাজেট কত।

এবার Save and continue তে ক্লিক করে আপনার সেটিংস সংরক্ষন করুন।

দ্বিতীয় পেইজে Headline বক্সে আপনার সাইটের নাম বা Title. এবার Description Line 1 এবং Line 2 তে আপনার সাইটের বর্ণনা দুই লাইনে প্রকাশ করুন। Display URL এ আপনার সাইটের যে লিংক সার্চ রেজাল্ট পেইজে দেখাবে সেটি। Destination URL আপনার সাইটের যে লিংক এ (পোস্ট বা পেইজ) ইউজারকে নিয়ে যাবে, সেটি দেখাতে হবে। সাধারনত Display URL এ সাইটের হোমপেইজের লিংক দেয়া থাকে।

Select keywords এ আপনি কোন কোন কিওয়ার্ড (সার্চ কুয়েরি) এর উপর আপনার বিজ্ঞাপন দেখাতে চান, সেটি নির্ণয় করুন। প্রতি লাইনে একটি করে সার্চ কুয়েরি দেবেন, এবং Enter চেপে পরের লাইনে গিয়ে দ্বিতীয় সার্চ কুয়েরি দেবেন।

আপনার নিজের দেশ নির্ণয় করুন।

এখানে আপনার পূর্ণ ঠিকানা দিয়ে পূর্ণ করুন।

How to pay অপশন থেকে আপনি অটোমেটিক বা ম্যানুয়াল পেমেন্ট সিস্টেম নির্ণয় করে দিতে পারেন।

এবার পেমেন্ট মেথড ব্যাবহার করে গুগোলকে নির্দিষ্ট পরিমান অর্থ প্রদান করে আপনি আপনার অ্যাড ক্যাম্পেইন শুরু করতে পারেন।

• সাধারণ ইউজার থেকে একটু ব্যাতিক্রমভাবে সার্চ করা
এই অধ্যায়ে, আপনি জানতে পারবেন যে, কিভাবে ভার্টিকেল সার্চ ইঞ্জিন এর এডভান্সড অপারেটর ব্যাবহার করে পেশাগতভাবে সার্চ ইঞ্জিন ব্যাবহার করা যায়। আপনি উচ্চ ট্রাফিক এবং উচ্চ কনভার্সন এর শর্তের পার্থক্য বুঝতে পারবেন। এবং বুঝতে পারবেন কিভাবে এটি তথাকথিত লং টেইল সার্চ রেজাল্ট গ্রহনে এটি কিভাবে আধিপত্য বিস্তার করে। মার্কেট রিসার্চ, কিওয়ার্ড এনালাইসিস ও অন্যোন্য কাজের জন্য এর প্রথম ধাপেই আপনাকে আগে সার্চ ইঞ্জিনের দক্ষ ব্যাবহারকারি হতে হবে। একজন দক্ষ সার্চার (যিনি সার্চ করেন) সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এ গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখতে পারে। তাই আমরা এই বিষয়ে গুরুত্ব দিয়েছি। এই অধ্যায়ের শেষে আপনি আপনার নতুন পাওয়া দক্ষতা আপনার কাঙ্ক্ষিত গ্রাহকের কাছে পৌঁছানোর জন্য আপনার সাইটের উপর প্রয়োগ করতে পারেন।

একটি সাধারণ সার্চ অসংখ্য সাইট খুজে আনে। তার মধ্যে একটি বড় অংশই সার্চ কুয়েরির সাথে সম্পর্কিত নয়। কারন, সার্চ ইঞ্জিন সেটিই খুজে বের করে, যেটি আপনি তাকে খুজতে বলেছেন। এমনকি একটি বিরক্তিকর সার্চ কুয়েরির উপরও এটি অনেক বেশী ফলাফল প্রদর্শন করে। আপনি মিজানুর রহমানের সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বইটি পড়ে সার্চিং এর বেশ কিছু সাধারণ কৌশল জানেন। এখন আমরা কয়েকটি নিয়ে আলোচনা করবো। যেমন, আপনার সার্চ কুয়েরিকে অনেক বেশী স্পেচিফিক করবেন। যেমন, শুধু Hotel লিখে সার্চ না করে Hotel in Dhaka অথবা Hotel in Cox’s bazar লিখে সার্চ করুন। অথবা সার্চ কুয়েরিতে একটি প্রশ্নবোধক চিহ্ন সংযুক্ত করতে পারেন। যেমন, How to find good hotel in cox’s bazar? এছাড়াও আপনি Advanced Search অপশনে নিয়ে আপনার সার্চকে আরও বেশী টার্গেটেড করে তুলতে পারবেন।

গুগল এর সার্চ রেজাল্ট পেইজে Search Tools এ ক্লিক করলে এডভান্সড সার্চ এর কিছু টুল পাবেন। এখানে বিভিন্নভাবে সার্চ রেজাল্টকে ফিল্টার করা যায়। প্রতিটি ভার্টিকেল সার্চ ইঞ্জিনে আলাদা আলাদা সার্চ টুল রয়েছে।
এছাড়া রেজাল্ট পেইজের (SERP) ডান পাশের গিয়ারটিতে ক্লিক করে Advanced Search এ ক্লিক করেও এটি করতে পারবেন।

এডভান্সড সার্চ অপারেটরঃ
কিছু অপারেটর ব্যাবহার করে একটি নির্দিষ্ট সাইটের অভ্যন্তরীণ তথ্য সার্চ করা যায়। এগুলোকে এডভান্সড সার্চ অপারেটর বলে। যেমন, site:সাইটের লিংক লিখে সার্চ করলে শুধুমাত্র ওই সাইটের যে যে পেইজ গুগোলের ইনডেক্স এ আছে, সেগুলো দেখাবে। এখানে site: এবং লিংক এর মাঝে কোন স্পেস দেয়া যাবে না।

কোন একটি কিওয়ার্ড আপনার সাইটে কোন কোন পেইজে ব্যাবহার করা হয়েছে, সেটি দেখার জন্য inurl:সাইটের লিংককিওয়ার্ড লিখে সার্চ করবেন।

Operator Format Example Description
filetype: business plan filetype:pdf Restrict search results by file type extension
site: google site:whitehouse.gov Search within a site or domain
inurl: inurl:business Search for a word or phrase within the URL
allinurl: allinurl: business plan Search for multiple words within the URL
intext: intext:business Search for a word in the main body text
allintext: allintext: business plan Search for multiple words within the body text
intitle: intitle:”business plan” Search for a word or phrase within the page title
allintitle: allintitle: business plan Search for multiple words within the page title
inanchor: inanchor:”business plan” Search for a word or phrase within anchor text
allinanchor: allinanchor: business plan Search for multiple words within anchor text
daterange: business plan daterange: 2454832-2455196 Display results indexed during the specified range (requires Julian dates)
related: related:http://www.company.com/page/ Display pages with similar content
info: info:http://www.company.com/page/ Display information about a page
link: link:http://www.company.com/page/ Display pages linked to the specified page
cache: cache:http://www.company.com/page/ Display a cached version of a page
• ভার্টিকেল সার্চ ইঞ্জিনে নির্দিষ্ট ধরনের ফাইল টাইপ (Extension) খুজে বের করা
আপনি যখন এস ই ও এর কাজ করছেন, আপনি অবশ্যই বুঝতে পারবেন যে একটি নির্দিষ্ট ফাইল (যেমনঃ চিত্র) খুজে বের করা কতোটা গুরুত্বপূর্ণ। কিছু কিছু ভার্টিকেল সার্চ ইঞ্জিন আছে, যেগুলো শুধুমাত্র নির্দিষ্ট প্রকারের ফাইল খুজে বের করে। উদাহরণসরূপ, গুগোল ইমেজ সার্চ শুধুমাত্র চিত্র খুজে বের করে। ইউটিউব শুধুমাত্র ভিডিও খুজে বের করে। এগুলো আমাদের প্রয়োজনীয় ফাইল খুজে পেতে সাহায্য করে। আপনি যদি গুগোল এ সার্চ করে একটি ফাইল খুজে পান, তাহলে আপনি নিশ্চিতভাবে বলতে পারবেন যে, ফাইলটি গুগোল এ ইনডেক্সড আছে।

আপনি সাধারন একটি সার্চ করে ফেলার পরও সার্চ রেজাল্ট পেইজে Images এ ক্লিক করে ওই সার্চ কুয়েরির উপর ইমেজ সার্চ ইঞ্জিনে চলে যেতে পারেন। যেটি, আপনাকে ওই সার্চ এর ইমেজ ফাইল গুলো (JPEG, PNG, BMP etc) দেখাবে।

আমরা পূর্বেই বলেছিলাম যে, ইমেজ ফাইলকে সহজে ইনডেক্স করার জন্য Alt ট্যাগ বাবহার করতে। আপনার সাইটের কি কি চিত্র গুগোল এর ইনডেক্স এ আছে, সেটি দেখার জন্য ইমেজ সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ অপারেটর ব্যাবহার করতে পারেন।

আপনার সাইটের অনেক বেশী চিত্র গুগোল এর ইনডেক্স এ থাকলে আপনি সহজেই সেগুলোর মাধ্যমে ভিজিটর পেতে পারেন। একটি ইউনিক ইমেজ (যেটি শুধুমাত্র আপনার সাইটেই আছে, তাই ইউজার আগে এটি দেখেনি) আপনার সাইটের ইউজার পেতে খুবই সহায়ক।

• উচ্চ ট্রাফিক এবং উচ্চ কনভার্সন এর মধ্যে পার্থক্য
আপনি অবশ্যই আপনার সাইটে অনেক বেশী ট্রাফিক অর্থাৎ ভিজিটর চান। আপনার সাইটে হাজার হাজার ভিজিটর আসলো, কিন্তু একজনও সাইট পড়লোনা। সবাই এসেই চলে গেলো। তাহলে কি এই ভিজিটর এর কোন প্রয়োজন আছে? আপনাকে কোয়ালিটি ট্রাফিক খুজতে হবে। ধরি, যে আপনার সাইটে মেডিকেল এর তথ্য রয়েছে। যার এই তথ্যগুলো প্রয়োজন নেই, যেমন আমি। এরকম ১০০০ ভিজিটর আপনার সাইটে না এসে যদি মেডিকেল এর ১০ জোন ছাত্র আপনার সাইটে আসে, তাহলে সেটি আপনার সাইটের জন্য বেশী ইতিবাচক। কারন, এই ১০ জোন আপনার সাইটে সময় দিয়ে পড়বে। আপনি যদি পাশে ২-১ টি বিজ্ঞাপন দেন মেডিকেল সম্পর্কিত পণ্য বিক্রয়ের, তাহলে সেগুলোও বিক্রয় হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং এর ভাষায়, যেসব ভিজিটর আপনার সাইটে এসে আপনার পণ্য বা সেবা ক্রয় করেছে, তাদেরকে কনভার্টেড ইউজার বলে। আর এই প্রক্রিয়াকে কনভার্সন বলে। আপনার কোয়ালিটি ট্রাফিক এর যত বেশী শতাংশ ট্রাফিক কনভার্সন হবে, ততই আপনার এস ই ও সফল হিসেবে চিহ্নিত হবে। তাই আমাদের এস ই ও সুবিধাযুক্ত সাইট তৈরি করার সময় উচ্চ ট্রাফিক থেকেও উচ্চ কনভার্সন এর কথা মাথায় রেখে কাজ করতে হবে।

লম্বা লেজ (Long Tail) নীতিঃ
লম্বা লেজ হোল একটি নীতি। এটির ব্যখ্যা অনেকটা এরকম, একটি বড় বইয়ের দোকানে প্রতিদিন যে পরিমান বিক্রয় হয়, একটি ছোট বইয়ের দোকানে মাসেও ততগুল হয় না। আরেকটু অন্যভাবে উদাহরণ দিলে, প্রান কোম্পানির কাছে প্রানের অনেক পণ্য আছে, প্রান ক্যান্ডি থেকে শুরু করে জুস, চানাচুর, চিপ্স ইত্যাদি। কিন্তু, একটি দোকানে প্রানের সব পণ্য নিশ্চয় রাখে না। মনে করুন, আপনার দোকানে আপনি প্রান চিপ্স রেখেছেন, তাহলে যে গ্রাহক এর প্রান চানাচুর দরকার, সে অন্য দোকানে চলে যাবে। কোথাও না পেলে সরাসরি প্রান কোম্পানিতে যোগাযোগ করবে। অর্থাৎ, আপনার কাছে যত বেশী ধরনের পণ্য থাকবে, আপনি তত বেশী পরিমান গ্রাহক পেতে পারেন।

এই নীতি আপনি কিওয়ার্ড ব্যাবহার এর সময় খাটাতে পারেন। আপনার সাইটকে, অর্থাৎ সাইটের কন্টেন্টকে সঙ্গতিপূর্ণ প্রচুর কিওয়ার্ড দিয়ে পরিপূর্ণ করে ফেলুন।

দীর্ঘমেয়াদীভাবে অগ্রসর হওয়ার জন্য কনভার্সন গ্রহন
আপনার সাইটে আপনি অনেকদিন ধরে এস ই ও করছেন, কিন্তু আপনার কাঙ্খিত পণ্য বিক্রয় হচ্ছে না। তাহলে কি আপনার এস ই ও এর প্রবলেম? না ও হতে পারে। আপনার মার্কেটিং সিস্টেমেও সমস্যা থাকতে পারে। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার পণ্য নিয়ে এনালাইসিস করতে পারেন। আপনার পণ্য আপনার কম্পিটেটররা কি দামে দিচ্ছে? কেমন সুযোগ সুবিধা দিচ্ছে? এসব তথ্য নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করুন। আপনি হয়তো চেয়ার-টেবিল বিক্রয় করেন। গুগোলে সার্চ করলে হাজার হাজার চেয়ার টেবিল বিক্রয়কারী সাইট পাওয়া যায়। আপনি নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করুন, এত সাইটের মধ্যে কেন আপনি সকল সাইট বাদ দিয়ে এই সাইট থেকে পণ্য কিনবেন? এখানে আপনাকে কি বাড়তি সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছে? যেটি আপনার প্রয়োজন। পণ্যের দামের দিকেও খেয়াল রাখতে হবে। ট্র্যাডিশনাল মার্কেটিং এবং অনলাইন মার্কেটিং এ কিছু পার্থক্য আছে। যেমন ধরুন, আপনার গ্রামে শুধুমাত্র আপনারই টেলিভিশন এর দোকান আছে। ঢাকাতে যে টেলিভিশনটির মূল্য ৭০০০ টাকা, সেটি আপনি ১০০০০ টাকা বিক্রয় করলেও মানুষ কিনবে। কারন অধিকাংশ গ্রাহকেরই ধারনা নেই, এটির দাম কত। সবার পক্ষে খবর নেয়াও সম্ভব না যে, এটির অন্যোন্য জায়গায় মূল্য কত। কিন্তু, ইন্টারনেট এর মার্কেটপ্লেস সম্পূর্ণ আলাদা। এখানে মুহূর্তের মধ্যে পৃথিবীর যাবতীয় তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব। তাই, ইউজার অন্যোন্য সাইটে যাচাই করা খুবই সহজ। তাই, আপনার পণ্যের দাম আপনার কম্পিটেটর সাইটগুলোর সমান (সম্ভব হলে কম) হতে হবে। তা না হলে আপনার সাইটের কনভার্সন হওয়ার সম্ভাবনা কমে যাবে।

কয়েকটি এস ই ও ডায়াগ্রামঃ
১। একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ সাইটের ব্যাকলিংক এর উৎস-

২। চরম একটি এস ই ও উদাহরণঃ

৩। সার্চ ইঞ্জিনের কার্যপ্রণালীঃ

৪। ক্রাউলিং করার পদ্ধতিঃ

যারা আমার পূর্বের অধ্যায়গুলো পড়েছেন। আশা করছি যে, এই ডায়াগ্রামগুলো দেখে তাদের ধারনা সামান্য হলেও উন্নত হবে। এগুলো সবই ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত।

এই লেখাটি আগে প্রকাশিত হয়েছিলো আমার ব্লগে
PDF আকারে ডাউনলোড করে নিন এখানে

উত্তর দিন