আপনার কি Gmail অ্যাকাউন্ট আছে? তা হলে যেনে নিন জিমেলের নতুন ফাঁদ ?

3 83

 

জিমেইল থেকে তথ্য চুরি করতে নতুন ধরনের ফাঁদ পেতেছে সাইবার দুর্বৃত্তরা, ছড়িয়েছে নতুন স্ক্যাম। মার্কিন অনলাইন নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভুয়া গুগল ড্রাইভের আদলে এই স্ক্যামটি ছড়াতে এতটাই কৌশল ব্যবহার করা হয়েছে যে একে শনাক্ত করা খুব জটিল। অনলাইন নিরাপত্তা পণ্য নির্মাতা সিমানটেকের গবেষকেরা এই তথ্য জানিয়েছেন।

গবেষকেরা জানিয়েছেন, যদি ‘ডকুমেন্টস’ শিরোনামে  বা ইমেইলের সাবজেক্টের ঘরে ‘ডকুমেন্ট’ কথাটি লেখা থাকে তবে সেই মেইল সংশ্লিষ্ট কোনো লিংকে ক্লিক করা থেকে সতর্ক থাকুন। এ ধরনের মেইলে ক্লিক করা হলে তা গুগল ড্রাইভের মতো চেহারায় একটি সাইন ইন পেজে নিয়ে যায়। অনেকেই তা গুগলের সার্ভিস ভেবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট ও পাসওয়ার্ড দিয়ে সাইন ইন করে বসেন।

সিমানটেকের গবেষকেরা সতর্ক করে জানিয়েছেন, জিমেইলে আসা ‘ডকুমেন্টস’ শিরোনামের মেইলে ক্লিক করা ও গুগল ড্রাইভের ভুয়া ল্যান্ডিং পেজের মতো একটি অ্যাকাউন্টে জিমেইল ঠিকানা ও পাসওয়ার্ড দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। এটি মূলত একটি স্ক্যাম।

এদিকে গুগল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তাদের সাইটের আদলে তৈরি ভুয়া পেজটি সরিয়ে দেওয়া হয়েছে এবং এ ধরনের প্রতারণা ঠেকাতে গুগলের একটি দল কাজ শুরু করেছে।

গুগলের পরামর্শ হচ্ছে, যদি এ ধরনের কোনো স্ক্যামে আপনার ইমেইল ও পাসওয়ার্ড দিয়ে থাকেন তবে দ্রুত আপনার জিমেইলের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে ফেলুন।

p.txt

 

ছবি ২:

 

 

ওপরের ছবি দুটিতে কোনো পার্থক্য ধরতে পারছেন? এর মধ্যে একটি হচ্ছে ভুয়া গুগল সাইন-ইন পেজ। এই দুটি পেজের মধ্যে প্রথমটি হচ্ছে ভুয়া। একই রকমের পাতার কারণে অনেকেই কোনটি স্ক্যাম তা বোঝা প্রায় অসম্ভব বলেই জানান সিমানটেকের গবেষকেরা।

আপনি যদি ভুল করে ভুয়া সাইন-ইন পেজে আপনার তথ্য পূরণ করে থাকেন তবে আপনার তথ্য চুরি হওয়ার আশঙ্কা বেশি। আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্ট থেকে স্ক্যামাররা গুগল প্লে থেকে অ্যাপ্লিকেশন কিনতে পারে কিংবা আপনার গুগল প্লাস অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারে। এ ছাড়াও গুগল ড্রাইভের ডকুমেন্ট চুরি করতে পারে এমনকি গুরুত্বপূর্ণ ইমেইলের তথ্য চুরি করেও নিতে পারে।

এ ধরনের স্ক্যাম থেকে সুরক্ষিত থাকার সবচেয়ে নিরাপদ উপায় হচ্ছে অপরিচিত লিংকে ক্লিক না করা এবং অপরিচিত কারও মেইলের বিষয়ে সতর্ক থাকা। শত ভাগ নিশ্চিত না হয়ে আপনার পাসওয়ার্ড অনলাইনে কোথাও লেখার আগে সতর্ক থাকা সবচেয়ে জরুরি।

সময় হলে আমার ব্লগ    এ ঘুরে আসবেন।

এখন অনলাইনে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকির নাম প্রতারণামূলক মেইল। ব্যক্তিগত তথ্য নিয়েই দুর্বৃত্তরা এখন আর সন্তুষ্ট থাকছে না, ভয় দেখিয়ে স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করে বসছে। এখন জীবনেরই অংশ হয়ে গেছে ই-মেইলে যোগাযোগ করা। অফিসের কাজ বা ব্যক্তিগত দুই জায়গাতেই ই-মেইল সেবা প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। ধীরে ধীরে নিজের ই-মেইল ঠিকানা ছড়িয়ে পড়ে ভারচুয়াল দুনিয়ায়। অনেক সময় কিছু আকর্ষণীয় অফার নিয়ে ই-মেইল আসে, যেগুলোতে নানা ধরনের প্রলোভন দেখানো হয়।  এসব আসলে কৌশলে ব্যক্তিগত বিভিন্ন তথ্য এমনকি অর্থ আত্মসাত্ করার একটা অপচেষ্টা। না জানা থাকায় অনেকে এসব ফাঁদে পা দেন। গবেষকেদের পরামর্শ হচ্ছে, অনলাইন প্রতারণার বিষয়ে নিজে সচেতন থাকুন।

সময় হলে আমার ব্লগ    এ ঘুরে আসবেন।

 

3 মন্তব্য
  1. ব্লগার ভাই বলেছেন

    শেয়ার করার জন্য অনেক ধন্যবাদ ।

  2. imtiaz.kabir বলেছেন

    Bujhlam na! Ekhon porjonto erkom kichu dekhi ni.

  3. নাজমুল ইসলাম বলেছেন

    এই পোস্ট টা পূর্বে http://www.pchelplinebd.com/archives/99933 পোস্ট হয়ছে ।

উত্তর দিন