হ্যাকারদের দখলে মালয়েশিয়ার সাড়ে ৪ কোটি মোবাইল ব্যবহারকারীর তথ্য

0 41

সম্প্রতি মালয়েশিয়া অনেক বড় হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছে। ইতোমধ্যে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে তা প্রকাশিতও হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী এখন পর্যন্ত দেশটির ৪ কোটি ৬০ লাখ মোবাইল ব্যবহারকারীর তথ্য হ্যাকারদের হাতে রয়েছে। এই খবরটি নিশ্চিত করেছে মালয়েশিয়ান কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড মাল্টিমিডিয়া কমিশন (এমসিএমসি)। ইতোমধ্যে তারা এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। এ তথ্য হ্যাকিং নিয়ে আবারও আলোচনায় এসেছে ইলেকট্রিক লেনদেনমাধ্যম বিটকয়েন। বিটকয়েনের বিনিময়ে বিশাল ডেটাবেইজ বিক্রির চেষ্টা করছিল একজন। বিষয়টি নজরে আসলে মালয়েশীয় প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট লোইয়াট ডট নেট এ বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ করে। ওবেয়সাইটটি জানতে পারে বিক্রি হবার অপেক্ষায় থাকা ডেটাবেইজে রয়েছে অন্তত ১২টি মালয়েশীয় টেলিযোগাযোগ অপারেটরের গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য। যার পরিপ্রক্ষিতে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে মালয়েশিয়ার পুরো ৩.২ কোটি মানুষই। সংবাদমাধ্যমটি বলছে, ১৮ অক্টোবর মালয়েশিয়ার যোগাযোগ পর্যবেক্ষক ও মালয়েশিয়ান কমিউনিকেশনস অ্যান্ড মাল্টিমিডিয়া কমিশনকে (এমসিএমসি) এ বিষয়ে অবহিত করা হয়।  অবহিত করার পর কর্তৃপক্ষের অনুরোধে সংবাদটি সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল ওয়েবসাইট থেকে। পরদিন ঘটনাটি স্বীকার করে নিয়ে এমসিএমসি তথ্য বেহাত হবার খবর নিশ্চিত করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি বিবৃতি দেয়। অক্টোবর মাসের একদম শেষ পর্যায়ে এসে সংস্থাটি নিশ্চিত করে জানায়, প্রায় ৪.৬২ কোটি মোবাইল গ্রাহকের তথ্য চুরি গেছে। জানা যায়, মালয়েশিয়ার একাধিক সরকারি ও বাণিজ্যিক ওয়েবসাইট থেকে ব্যক্তিগত বহু তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। এছাড়া হ্যাক হওয়া ডেটাবেইজে গ্রাহকদের মোবাইল নাম্বার, ইউনিক ফোন সিরিয়াল নাম্বার আর বাসার ঠিকানা রয়েছে। মালয়েশিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন, অ্যাকাডেমি অফ মেডিসিন মালয়েশিয়া, মালয়েশিয়া হাউজিং লোন অ্যাপ্লিকেশনস, মালয়েশিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশন আর ন্যাশনাল স্পেশালিস্ট রেজিস্টার অফ মালয়েশিয়া আর চাকরি খোঁজার প্লাটফর্ম জবস্ট্রিট ডট কম থেকেও বিশাল পরিমাণ তথ্য চুরি হয়েছে। মালয়েশিয়ার আইন অনুযায়ী, সেবাদাতাদের গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা প্রদান আবশ্যক। নিরাপত্তা দিতে না পারায় এক্ষেত্রে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

উত্তর দিন