মূলপাতা অন্যান্য ব্লগার টিউটোরিয়াল : ৩, সেটিংস (Basic – Comments)

ব্লগার টিউটোরিয়াল : ৩, সেটিংস (Basic – Comments)

10
ভাগ
EaseUS Data Recovery Wizard

সবাই কেমন আছেন। আশা রাখি আল্লাহ এর রহমতে সবাই ভালো আছেন।

আজ বেশি কথা না বলে ব্লগার টিউটোরিয়াল এর ৩ নং পর্ব শুরু করতে যাচ্ছি। এর আগে আমি ব্লগার সম্পর্কে ২ টি পর্ব উপস্থাপন করেছি। আশা করি ঐ ২ টি পর্ব আপনাদের কাজে লেগেছে। ২য় পর্বে আমি ড্যাসবোর্ড নিয়ে আলোচনার সময় Comments পযর্ন্ত আলোচনা করেছি, কিন্তু সময় এর অভাবে বাকিটুকু নিয়ে আলাপ করতে পারি নাই। তার জন্য আন্তরিক ভাবে দুঃক্ষিত। তাই আজ ৩য় পর্ব শুরু করতে যাচ্ছি। আজকে যে বিষয় নিয়ে আলাপ করতে যাচ্ছি তা হলো ব্লগার এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন বিষয়। আর তা হলো সেটিংস। সেটিংস নিয়ে যে অনেকের অনেক সমস্যার সম্মুক্ষিন হতে হয় তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তাই সেটিংস নিয়ে আজ বিস্তারিত আলোচনা শুরু করতে যাচ্ছি। আশা করি সেটিংস নিয়ে আপনার সব জটিল অবস্থা দূর হয়ে যাবে।
প্রথমে নিম্নের ছবিটি ভালোভাবে দেখুন।

আপনি যখন ব্লগার এ লগ-ইন করে প্রবেশ করবেন তখন Settings দেখতে পাবেন এবং সেখানে ক্লিক করে উপরের ছবিটি দেখতে পাবেন। নিম্নে সেটিংস এর বিভিন্ন পরিচিতি সম্পর্কে ধারাবাহিকভাবে আলোচনা করা হলো:

1. Basic: প্রথমেই এই ব্যাসিক নিয়ে আলোচনা করা যাক। এই ব্যাসিক-এ আপনি পাবেন কয়েকটি সেক্টর। সেগুলো হলোঃ

@ Blog Tools : Blog tools এর মাধ্যমে আপনি আপনার আগের কোন সাইট বা ব্লগের এক্সপোর্ট করা ফাইল নতুন করে ইম্পোট করতে পারেন। তবে আপনার ফাইল গুলো .xml ফরম্যাট এর হতে হবে। তাই প্রথমে আপনি যে ব্লগের ফাইল এবং লেখা গুলো আপনার ব্লগ এ ইম্পোট করবেন সেই ব্লগ থেকে প্রথমে ফাইল গুলো এক্সপোর্টেড করে নিন। এরপর আপনার নতুন ব্লগ থেকে ইম্পোর্ট অপশনে গিয়ে .xml ফাইল আপলোড করতে পারেন। যদি ব্লগটি ডিলিট করতে চান তাহলে Delete অপশনে গিয়ে তা ডিলিট করতে পারেন।

@Title : এখানে আপনার ব্লগ এর টাইটেল কি হবে তা দিতে পারেন। আমার টা SHOPNO JOY….. আর আপনার টা?????  যেমন, আমাদের সাইট এর টাইটেল নিজে জানুন… অন্যকে জানান……

@Description : এখানে আপনার ব্লগ এর বর্ননা দিতে পারেন।

@Add your blog to our listings? : এখান থেকে আপনি আপনার ব্লগটি ব্লগারের.কম এর ব্লগ তালিকায় যোগ করতে পারেন। তাই এখানে Yes টিক রাখা উচিত।

@Let search engines find your blog? : আপনি যদি আপনার ব্লগ গুগল সার্চ ইঞ্জিন এ যুক্ত করতে চান তাহলে Yes দিন এবং যদি না চান তাহলে No দিন।

@Show quick editing on your blog? : এখানে Yes দিলে আপনি এর মাধ্যমে ব্লগার এ লগ-ইন করা মাত্রই প্রথম পেজ এ থেকেই পোস্ট সম্পাদনা করতে পারবেন। আর যদি না চান তাহলে No চালু করে রাখেন।

@Show email post links? : এই অপশন এ যদি Yes দেওয়া থাকে তাহলে আপনার ব্লগ এ আশা সকল Visitor রা আপনার ব্লগ এর ঠিকানা ইমেইল এর মাধ্যমে অন্যান্য বন্ধুদের নিকট পাথাতে পারবে।

@Adult content? : যদি আপনার ব্লগ এ Adult content থাকে তাহলে Yes করে দিন। কারন এর ফলে আপনার ব্লগ এ ঢুকার আগে ভিজিটররা সতর্ক মূলক সংকেত পাবে। আর Adult content না থাকলে No দিয়ে দিন।

এরপর সবশেষে Save Settings এ ক্লিক করে Basic কাজ গুলো শেষ করুন।

2. Publishing: Publishing থেকে আপনি প্রথমে আপনার ব্লগকে Custom Domain এ রূপান্তরিত করতে পারবেন। এবং এরপর ব্লগ স্পট এড্যেসবার এ আপনার বর্তমান ডোমেইন পরিবর্তন করতে পারবেন। যে নামটি দিতে চান তা ঐ বার এ লিখে এড করে নিন। এড করার পর নিচে Word Verification এ চিত্র আকারে লেখাটি টাইপ করে নিন। সবশেষে Save Settings এ ক্লিক করে দিন।

3.Formatting: এখানে আপনি বেশ কয়েকটি সেটিংস অপশন দেখতে পাবেন। এখান থেকে আমি প্রায় সবগুলো নিয়ে আলোচনা করছি।

@Show at most: এটি একটি গুরুত্বপূর্ন সেক্টর। এখানে আপনি আপনার ব্লগ এর প্রথম পেজ এ কতগুলো পোস্ট রাখবেন তার সংক্ষ্যা ঠিক করে দিতে পারবেন। প্রথমে এখানে ডিফল্ট হিসেবে ৭ টি দেওয়া থাকবে। কিন্তু আপনি এখান থেকে তা বাড়িয়ে নিতে পারেন।

@Date header format: আপনার ব্লগ এর তারিখের স্টাইল পরিবর্তন করে নিতে পারেন।

@Archive index date format: আপনার ব্লগের পোস্ট সমুহের ইনডেক্স কিভাবে সেট করবেন তা আপনি এর মাধ্যমে ঠিক করতে পারেন।

@Timestamp format: আপনি কোন স্টাইল এ পোস্ট এবং কমেন্ট প্রকাশ এর সময়ের স্টাইল সেট করবেন তা এখানে ঠিক করুন।

@Time Zone: এখানে আপনি আপনার টাইম যোন সেট করতে পারেন। আপনি যে দেশের বাসিন্দা সে দেশের ভিত্তিতে টাইম সেট করবেন।

@Language: যে দেশের ভাষা সংযুক্ত করতে চান তা সেট করুন।

@Convert Line Breaks: যারা যারা বিশেষ করে HTML এ কাজ করতে ইচ্ছুক তারা এখানে Yes দিয়ে সেট করতে পারেন।

@Show Title Field: যদি আপনি পোস্ট এর উপর টাইটেল দেখতে চান তাহলে Yes করে দিন আর না চাইলে No করে দিন।

@Show Link Fields: এখানে No সিলেক্ট করেন তাহলে আপনি পোস্ট করার সময় এডিটর এর টাইটেল বারের নিচে লিঙ্ক যোগ করার ভিন্ন একটা অপশন থাকবে।

@Enable Float Alignment: এই অপশন এ আপনি ইচ্ছা করলে No অথবা Yes দিয়ে দিতে পারেন।

@Post Template: আপনাদের অনেকের হয়ত পোস্ট লেখার সময় একই লেখা বারবার প্রয়োজন হয়। এতে সময়ের অপচয় রোধ করার জন্য এই Post Template বক্সে সেই সব লেখা লিখে রাখতে পারেন যা আপনার প্রয়োজনের সময় কাজে লাগতে পারে।

3.Comments: Comments সম্পর্কে নিম্নে আলোচনা করা হলো।

@Comments: প্রথমে এখানে আপনি আপনার ব্লগ এর কমেন্ট Show অথবা Hide করে রাখতে পারেন।

@Who can comments: আপনার ব্লগ এ অনেকেই ভিজিট করবে। তবে এখানে রেজিস্টারসহ অনেকেই আসবে। তাই এই অপশন এর মাধ্যমে কোন ব্যাবহারকারীরা আপনার ব্লগ এর পোস্ট এর কমান্ট করতে পারবে তা এখান থেকে সম্পাদন করতে পারবেন। প্রথমে আছে Anyone – includes Anonymous Users – যারা রেজিস্টেসনবিহীন ব্যাবহারকারী তারা এখানে মন্তব্য করার অনুমতি পাবে। তাই এখানে টিক চিন্ দিয়ে দিন। Registered Users – includes OpenID – এই অপশানটি দ্বারা আপনার ব্লগ শুধুমাত্র Gmail, WordPress, Live Journal, AIM, OpenID dwara রেজিস্টারকারীরা ব্লগে মন্তব্য করার অনুমতি পাবে। এরপর Users with Google Accounts -এর মাধ্যমে শুধু Gmail ব্যবহারকারীদের মন্তব্য করার অনুমতি পাবে। তাই আপনি টিক চিন্ এর মাধ্যমে তা অনুমতি দিতে পারেন। এবং সবশষে Only members of this blog- এটি দিয়ে আপনি আপনার ব্লগারের শুধু রেজিস্টার ব্যাবহারকারীরা কমেন্ট বা মন্তব্য করার অনুমতি পাবে।

@Comment form placement: আপনার ব্লগের মন্তব্য করার জন্য বক্সটি কি আকারে দেখতে চান তা এই অপশন এর মাধ্যমে তা সেট করতে পারেন। Full Page এ সিলেক্ট করলে পুরো পৃষ্টা মন্তব্য বক্স দেখাবে। যদি Pop-up window দেখাতে চান তাহলে এখানে সিলেক্ট করুন। এরপর Embedded below post আকারে দেখতে চাইলে এখানে সিলেক্ট করে নিতে পারেন।

@Comments Default for Posts: আপনি যদি নতুন পোস্টসমুহে মন্তব্য গ্রহন করতে চান অথবা যদি না চান তাহলে এই অপশন এর মাধ্যমে ঠিক করে নিতে পারেন।

@Backlinks: এখানে আপনি আপনার ব্লগের পোস্ট সমূহের মন্তব্য করা ব্যাকলিঙ্ক প্রদর্শন করাতে চান না চান না তা সেট করতে পারেন।

@Backlinks default for posts: ব্লগের নতুনপোস্ট গুলোর মন্তব্যে গুলো ব্যাকলিঙ্ক প্রদর্শন করাতে চান না চান না তা ঠিক করুন।

@Comments Timestamp Format: আপনার ব্লগের মন্তব্যের সময়সূচীর দৃশমান স্টাইল আপনি এই অপশনের মাধ্যমে ঠিক করে নিতে পারেন।

@Comment Form Message: এই অপশনের মাধ্যমে আপনি আপনার ব্লগের মন্তব্য করার বক্সের উপর আপনার ইচ্ছামত লিখে দিতে পারেন। আপনি এখানে সাধারণত মন্তব্যকারীদের উদ্দেশ্যে কিছু বলতে পারেন।

@Comment moderation: এখানে আপনি আপনার ব্লগের মন্তব্য মডারেট করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে প্রথমে একটি ইমেইল এড্রেস নিচের খালি ঘরে সেট করতে হবে। আপনার ব্লগ এ করা মন্তব্যগুলো ঐ ইমেইল এ চলে যাবে। সেখান থেকে আপনি মন্তব্য মডারেট করতে পারবেন। যদি সবসময় মন্তব্য মডারেট করতে চান তাহলে Always টি নিবার্চন করে নিতে পারেন। আর যদি মডারেট করতে না চান তাহলে Never এ ক্লিক করে রাখতে পারেন।

@Show word verification for comments?: কেউ যদি আপনার ব্লগ এ মন্তব্য করতে চায় তাহলে তাকে ভেরিফিকেশন করতে হবে… যদি এই অপশনটা এনাবল করতে চান তাহলে এখানে তা করতে পারেন। আর যদি না চান তাহলে এই অপশন এর মাধ্যমে তা ঠিক করে দিতে পারেন। এই অপশনটি চালু রাখা জরুরি।

@Show profile images on comments?: ব্লগের মন্তব্যকারীর প্রোফাইল পিকচার দেখতে চাইলে এখানে Yes করে দিন। আর না চাইলে No করে দিন।

@Comment Notification Email: এই অপশন এর মাধ্যমে খালি বক্সে যদি ইমেইল ঠিকানা দেন তাহলে সেটিতে আপনার ব্লগে করা সকল মন্তব্য এর নোটিফিকেশান আপনার সেই ইমেইল এ চলে যাবে। যদি খালি রাখেন তাহলে নোটিফিকেশন যাবে না।

এরপর Save Settings এ ক্লিক করে নিন।

আজকের মত এখানেই শেষ। বাকিটুকু পরবর্তি পোস্টে।

ফেসবুক থেকে মন্তব্যঃ

10 মন্তব্য

  1. খুবি সুন্দর হয়েছে, অনেক কাজের টিপস। তবে এখানে আমার একটা প্রশ্ন :
    ১) আমি কিভাবে ব্লগে মেম্বার এ্যাড করাতে পারব। যেমন আমার ব্লগে অনেক রেজিষ্টার করে যাতে তাদের কথা লিখতে পারে। সমাধান এর অপেহ্মায় রইলাম।