কোন পিসি চলছে বেশি?

0

বিশ্বজুড়ে পারসোনাল কম্পিউটার (পিসি) বিক্রির হার ক্রমশ কমছে। এর মধ্যে চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিক অর্থাৎ, জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর—এই তিন মাসে পিসি বিক্রিতে এইচপি ও লেনোভোর মধ্যে ব্যাপক প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে। ১১ অক্টোবর এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে মার্কিন বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান গার্টনার।

বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে এইচপির দখলে ছিল বাজারের ২১ দশমিক ৮ শতাংশ। লেনোভোর দখলে ছিল ২১ দশমিক ৪ শতাংশ। গার্টনারের প্রতিবেদনে জানানো হয়, বিশ্বজুড়ে পিসি বিক্রির ক্ষেত্রে টানা পাঁচ প্রান্তিক ধরে ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে এইচপি ইনকরপোরেশন। লেনোভো গত ১০ প্রান্তিকের মধ্যে আট প্রান্তিকে পিসি বিক্রির হার কমতে দেখেছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে ৬ কোটি ৭০ লাখ পিসি বাজারে এসেছে, যা গত বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকের চেয়ে ৩ দশমিক ৬ শতাংশ কম।

গার্টনারের প্রধান বিশ্লেষক মিকা কিতাগাওয়া বলেছেন, জাপান, লাতিন আমেরিকাসহ ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকা অঞ্চলে পিসির বাজার স্থিতিশীল হওয়ার চিহ্ন দেখা যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পিসি বিক্রি ১০ শতাংশ কমেছে। এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে ২ কোটি ৪০ লাখ ইউনিট পিসি বিক্রি হয়েছে, যা গত বছরের ওই সময়ের চেয়ে ২ দশমিক ১ শতাংশ কম। অর্থাৎ, এশিয়া অঞ্চলেও পিসি বিক্রি কমছে। শুধু যুক্তরাষ্ট্রের বাজার ছাড়া অন্য অঞ্চলগুলোতে এইচপির পিসি বিক্রি বেড়েছে। এশিয়া ও লাতিন আমেরিকায় এইচপির পিসি বেশি বিক্রি হয়েছে। এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে টানা পাঁচ প্রান্তিক ধরে প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে এইচপি।

২০০৫ সালে মার্কিন প্রতিষ্ঠান আইবিএমের পিসি ব্যবসা বিভাগকে কেনার পর থেকে প্রতিবছর দেশটিতে পিসি বিক্রি কমছে চীনের প্রতিষ্ঠানটির।

এইচপি ও লেনোভোর মতোই হাল ডেলের। গত বছরের তৃতীয় প্রান্তিকের চেয়ে এ বছর পিসি বিক্রির হার কিছুটা কমেছে ডেলের। ২০১৬ সালের প্রথম প্রান্তিকে প্রথম পিসি বিক্রির হার কমার অভিজ্ঞতা হয় মার্কিন প্রতিষ্ঠানটির।

পিসিতে সাধারণ ক্রেতার আগ্রহ কম থাকলেও ব্যবসার ক্ষেত্রে তা এখনো স্থিতিশীল। বিশেষ করে নোটবুকের চাহিদা বেশি।

গার্টনারের প্রতিবেদনে জানানো হয়, বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে চীনের বাজারে পিসি বিক্রি ৫ শতাংশ কমেছে।

ফেসবুক থেকে মন্তব্যঃ

Leave A Reply