প্রোগ্রামিং শিখি মোবাইলেই, এইচ টি এম এল হাতে খড়ি, পর্ব ০১

0

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম

আসসালামু আলাইকুম পিসিহেল্পের বন্ধুরা।

কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালো আছেন।
আজকে শুরু করতে যাচ্ছি এইচ টি এম এল নিয়ে ধারাবাহিক পর্ব। আশা করি সবাই সাথেই থাকবেন।

তো চলুন শুরু করা যাক।
কিছু আলোচিত বিষয় জেনে নেওয়া যাক।

কেন প্রোগ্রামিং শিখবেন?
নিজেকে একজন ওয়েব ডিজাইনার হিসেবে গড়ে তুলতে চাইলে প্রোগ্রামিং আপনার শেখা বাধ্যতামূলক।

প্রোগ্রামিং শিখে লাভ কি?
অনেক অনেক লাভ আছে। একজন প্রোগ্রামার একজন হ্যাকার হিসেবেও বিবেচিত হয়ে থাকে।
ফ্রিল্যান্সার হিসেবে নিজের জন্য ভালো জায়গা তৈরি করে নেওয়া। নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া

এবার আমাদের এইচ টি এম এল সারসংক্ষেপ জেনে নিয়ে কাজে নেমে যাওয়া যাক?

HTML-এর সারসংক্ষেপ:
HTML-এর সম্পূর্ণ রূপ হাইপার টেক্সট মার্ক আপ ল্যাঙ্গুয়েজ (Hyper Text Markup Language)।এটি একটি ফর্ম্যাট যাতে বিভিন্ন প্রকারের ফর্ম্যাটিং ও হাইপারলিংক ব্যবহার করা যায়। ইন্টারনেটে, তথা ওয়েবসাইটে এইচ টি এম এল সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। এই ফাইলের এক্সটেনশন .htm অথবা .html উভয়ই হতে পারে। এতে বিভিন্ন ট্যাগ ব্যবহার করে বিভিন্ন ফর্ম্যাটিং, অবজেক্ট ও লিংক প্রকাশ করা করা হয়।ওয়েব ডেভলোপিং শিখার হাতে-খরি এটিই। খুবই সহজ সরল একটা কোডিং পদ্ধতি।বর্তমানে HTML5 বলে আরও একটি ল্যাঙ্গুয়েজ আছে। HTML5 মূলত HTML-এরই পরিবর্তিত রূপ। তবে অনেক কাজ আছে যেগুলি শুধু HTML-তেই হয়,HTML5-এ হয় না।

তো এবার চলুন দেখে নেওয়া যাক এন্ড্রয়েডে প্রোগ্রামিং শিখতে গেলে আপনাকে কি কি করতে হবে এবং কিভাবে আপনার প্রথম কোড রান করাবেন?

ভুল ত্রুটি ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।
কোনো সমস্যা হলে প্লিজ কমেন্ট অথবা টিউমেন্ট করে জানাবেন, আমি ইনশাহ আল্লাহ্‌ রিপ্লাই করবো।
সাথে থাকবেন, কিছু শেখাতে পাড়বো ইনশাহ আল্লাহ।

যে কোনো সমস্যার সমাধান পেতে টেক টিউবে চলুন।

ফেসবুক থেকে মন্তব্যঃ

Leave A Reply