লেখাটি একেবারে নতুন ইউটিউবারদের জন্যঃ ইউটিউবে কি কি করা যায় সেটা জানুন

0

ইউটিউব কি?

ভিডিও শেয়ার করার একটি সামাজিক মাধ্যম হচ্ছে ইউটিউব। ইউটিউব কি এই প্রশ্নের এক কথায় উত্তরটি আমরা সবাই জানি। ২০০৫ সালে যখন ইউটিউব যাত্রা শুরু করেছিল তখন এর সংজ্ঞা দিতে ঐ একটা বাক্যই হয়ত যথেষ্ট ছিল। এখন ইউটিউবে শুধু শেয়ার করা না, ভিডিও ক্লিপ, সিনেমা, গান, ডকুমেন্টরি এবং আরো নানা ধরণের ভিডিওর বিশাল একটি আর্কাইভে পরিণত হয়েছে। গুগোলের অংশ হওয়ার পর থেকে হোস্টেড এডসেন্সের মাধ্যমে এড দেখিয়ে এখান থেকে অর্থ উপার্জনও করা যাচ্ছে। বাংলাদেশের এক শ্রেণীর নতুন ইউটিবাররা অর্থ উপার্জনের চক্করে পড়ে ইউনিক এবং ভালো মানের কন্টেন্ট নির্মাণের বদলে  মাণহীন এবং কোনক্ষেত্রে অশ্লীল, কুরুচিপূর্ণ এবং কপিরাইটেড কন্টেন্ট নিজের কন্টেন্টের সাথে মিশিয়ে প্রচার করছে। নতুন ইউটিউবারদের জন্য আমাদের ধারাবাহিক ইউটিউব টিউটোরিয়াল।

ইউটিউবের মাধ্যমে কি কি করা যায়

ইউটিউব কি সেটা তো জানলেন। এবার দেখে নেয়া যাক, ইউটিউবের মাধ্যমে কি কি করা যায়-

১. একটি একাউন্ট খুলেই ১৫ মিনিটের ভিডিও আপলোড করতে পারবেন। আর একাউন্ট ভেরিফাই করে 20GB এর চেয়ে বড় ভিডিও ফাইলও আপলোড করতে পারবেন। এজন্য খুব সহজে মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভেরিফাই করতে পারবেন। ইউটিউব হেল্প পেজের নির্দেশনা দেখুন

২. ভিডিও এডিট করার সুবিধাও ইউটিউব দেয়। ফ্রী অনলাইন ভিডিও এডিটর হিসেবেও ইউটিউবকে ব্যবহার করা যায়। Youtube Video Creator দিয়ে অনলাইনে নতুন ভিডিও তৈরি করতে পারবেন। এখানে ফ্রী মিউজিক লাইব্রেরীও আছে।

৩. ভিডিওটি আপনি কাকে দেখাবেন আর কাকে দেখাবেন না সেটা নির্ধারণ করে দিতে পারবেন। আপনি যদি চান আপনার ভিডিও লিংক যার কাছে আছে সেই শুধু দেখবে, অন্যরা দেখতে পাবে না। তাহলে সেটাও করা যায়। Rabitholebd এপে সম্ভবত এই ভাবে ক্রিকেট খেলা লাইভ দেখায়। অনেক ইউটিউব ইউজার আছে যারা ইউটিউবে এডাল্ট ভিডিও খোজে। হ্যাঁ, এডাল্ট ভিডিও ও ইউটিউবে আছে তবে Age restricted, লগ ইন করা না থাকলে এই ধরণের ভিডিও দেখা যাবে না। আপলোড করার সময়ও ব্যাপারটা মাথায় রাখবেন।

৪. ভিডিওতে সাবটাইটেল যুক্ত করতে পারেন। অন্যসব সাবটাইটেলের চেয়ে ইউটিউবের সাবটাইটেলের সুবিধা হচ্ছে- Google Translator এর মাধ্যমে যেকোন ভাষায় পড়তে পারবেন। বিশ্বের যে কারো কাজে লাগবে এমন ভিডিও তৈরি করলে ভিডিওটি বাংলায় হলেও চেষ্টা করুন এর ইংরেজী সাবটাইটেল যুক্ত করতে।

৫. এখন টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর বিকল্প হয়ে দাড়িয়েছে ইউটিউব চ্যানেল। প্রফেশনাল ভিডিও নির্মাতারা ইউটিউব চ্যানেলে ভেরিফাইড চিহ্ন লাগিয়ে নিতে পারবেন। সাধারণত 100k সাবস্ক্রাইবার হলে সহজে এই চিহ্ন যুক্ত হয়, কম হুলেও হতে পারে।

৬. 100K সাবস্ক্রাইবার হলে Silver Play button পেতে পারেন। এছাড়া Golden, Diamond, Ruby button রয়েছে যেগুলো বাংলাদেশের কেউ পাওয়ার স্বপ্ন দেখেছে বলে শুনিনি।

৭. যেসব ভিডিও চ্যানেলে আছে সেগুলোতে ১০০০০ এর চেয়ে বেশী মোট ভিউ থাকলে ভিডিওগুলো Monetize করতে পারবেন। আর ইউটিউব মাল্টি চ্যানেল নেটওয়ার্কেও ঐ একই শর্ত পূরণ করতে হব

শুভকামনাঃ ইউটিউবে আপনার চ্যানেলের Ruby তে মোড়ানো ভবিষ্যত হোক।

আজকে আলোচনা হলো ইউটিউব কি সেটা নিয়ে। পরের পোস্টে আলোচনা হবে, কি কি করা যায় না। অর্থাৎ, ইউটিউবে কি কি কাজ করলে নিজের  চ্যানেলটি Banned/Suspended চ্যানেলের তালিকায় খুব দ্রুত দেখতে পাবেন সেটা নিয়ে। আমার মনে হয় এই লেখার পাঠকেরা অনেকেই সেই অসাধারণ কাজটি করে বসে আছেন।

লেখাটি এর আগে Tutorialsbangla তে ইউটিউব টিউটোরিয়াল সিরিজে “ ইউটিউব কি ? এটাতে কি কি করা যায় সেটা জানুন” শিরোনামে প্রকাশিত

ফেসবুক থেকে মন্তব্যঃ

Leave A Reply