এমএনপির লাইসেন্স হস্তান্তর মঙ্গলবার

0

আপনার ১১ ডিজিটের মোবাইল নম্বরটি ঠিক রেখে অপারেটর পরিবর্তনের সুবিধা চালুর প্রক্রিয়া আরেক ধাপ এগোচ্ছে। দীর্ঘ প্রতীক্ষিত এ সেবা দিতে নির্বাচিত অপারেটর ইনফোজিলিয়নকে লাইসেন্স দেওয়া হবে মঙ্গলবার।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন – বিটিআরসি এ বিষয়ে সব প্রস্তুতি শেষ করেছে বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার সংস্থার কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে কোম্পানিটিকে এ লাইসেন্স দেওয়া হবে।

লাইসেন্স হস্তান্তরের পর খুব দ্রুতই দেশে এ সেবা চালু হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এর আগে গত মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মোবাইল নম্বর পোর্টাবিলিসটি (এমএনপি) সেবা চালুর জন্য ইনফোজিলিয়নকে লাইসেন্স দেওয়ার প্রস্তাবে চূড়ান্ত অনুমোদন দেন। গত সেপ্টেম্বরে জয়েন্ট ভেঞ্চার কোম্পানি ইনফোজিলিয়নের নাম প্রস্তাব করে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে পাঠানো হয়।

অন্তত এক দশক ধরে বাংলাদেশে এমএনপি চালুর আলোচনা থাকলেও এতদিন পর্যন্ত তা হয়নি। এখন এটি চালুর পর্যায়ে আসায় সন্তুষ্ঠি প্রকাশ করেছেন অনেকে। বিশেষ করে যারা অপারেটরগুলোর সেবা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরক্ত।

এর আগে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে একবার নিলাম আহবান করেও শেষ পর্যন্ত নিরাপত্তার কথা বলে তা বাতিল করা হয়।

পরে সিদ্ধান্ত বদলে নিলামের পরিবর্তে সরকার দরপত্র আহবান করে। আগ্রহী পাঁচটি কোম্পানি এ সেবা দিতে আবেদন করে।

ইনফোজিলিয়ন ছাড়া অন্য চার কোম্পানি হলো- রিভ নম্বর লিমিটেড, গ্রিনটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, টেলিটেক কনর্সোটিয়াম, ব্রাজিল-বাংলাদেশ কনর্সোটিয়াম ও রুটস ইনফোটেক।

সিদ্ধান্ত অনুসারে এমএনপি সেবায় অন্য অপারেটরে যেতে হলে গ্রাহককে প্রতিবার ৩০ টাকা চার্জ দিতে হবে। আর একবার অপারেটর বদল করলে গ্রাহককে সেই অপারেটরে থাকতে হবে কমপক্ষে ৯০ দিন।

বর্তমানে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত, পাকিস্তানসহ প্রায় ৭২ দেশে এ সেবা চালু রয়েছে।

এর আগে বিটিআরসি’র চেয়ারম্যানও বলেছিলেন, এমএনপি সেবা চালু হলে দেশে মোবাইল সেবা খাতে প্রতিযোগিতা আরও বৃদ্ধি পাবে এবং গ্রাহকের স্বাধীনতাও আরও বাড়বে।

ফেসবুক থেকে মন্তব্যঃ

Leave A Reply